• মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৬ আশ্বিন ১৪২৮
  • ||

ফারইস্ট ইসলামী লাইফের সিইও হেমায়েত উল্লাহকে অপসারণ

প্রকাশ:  ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২০:৫৪
নিজস্ব প্রতিবেদক
ফারইস্ট ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ হেমায়েত উল্লাহ

নানা অনিয়মের অভিযোগে পুঁজিবাজারের তালিকাভুক্ত ফারইস্ট ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ হেমায়েত উল্লাহকে অপসারণ করেছে বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ)।

আইডিআরএ-এর পরিচালক (উপ সচিব) শাহ আলম স্বাক্ষরিত বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) এক আদেশে হেমায়েত উল্লাহকে বৃহস্পতিবার থেকে অপসারণের কথা বলা হয়েছে।

আদেশে বলা হয়, কোম্পানি পরিচালনার ক্ষেত্রে বিভিন্ন অনিয়ম, অব্যবস্থাপনা, আর্থিক অনিয়ম, বিমা পলিসি গ্রাহক, বিমাকারীর স্বার্থের জন্য ক্ষতিকর ও পরিপন্থি কর্মকাণ্ড কর্তৃপক্ষের নজরে এসেছে। এ ছাড়া, হেমায়েত উল্লাহর বিরুদ্ধে জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জন করে তা নিজ ভোগদখলে রাখা এবং মিথ্যা তথ্য সম্বলিত সম্পদ বিবরণী দাখিলের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশন মামলা করা হয়েছে।

সেইসঙ্গে তার বিদেশ যাত্রার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি রয়েছে বলে কর্তৃপক্ষের নিকট তথ্য রয়েছে।

এ পরিপেক্ষিতে বিমা আইন ২০১০ এর ৫০ ধারা মোতাবেক বিমা পলিসি গ্রাহকের স্বার্থ নিশ্চিত করতে ফারইস্ট ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ হেমায়েত উল্লাহকে অপসারণ করা হয়।

আদেশে বলা হয়, ‘তবে শর্ত থাকে যে, এই অপসারণ মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ হেমায়েত উল্লাহর কোম্পানি পরিচালনায় আর্থিক অনিয়ম ও অন্যান্য অনিয়মের দায় থেকে অব্যহতি প্রদান করবে না। এছাড়াও ভবিষ্যতে হেমায়েত উল্লাহর দায়িত্বপালনকালে সংঘটিত কোনো ধরনের অনিয়ম উদঘাটিত হলে তার সম্পূর্ণ দায় তার ওপর বর্তাবে।’

সেই সঙ্গে আদেশে কোম্পানির জরুরি ও দৈনন্দিন কার্যক্রম পরিচালনার জন্য বিমা আইন ২০১০ এর ধারা ৮০ (৪) মোতাবেক ৩ মাসের মধ্যে একজন যোগ্য মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা নিয়োগের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এই তিন মাস কোম্পানির মুখ্য নির্বাহীর অব্যবহিত পরের পদের ব্যক্তিকে মুখ্য নির্বাহীর পদে চলতি দায়িত্ব পালন করতে বলা হয়েছে।

এদিকে ১ সেপ্টেম্বর ফারইস্ট ইসলামী লাইফের পরিচালনা পর্ষদ ভেঙে দিয়ে নতুন ১০ জন স্বতন্ত্র পরিচালক নিয়োগ দিয়েছে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। বিএসইসি সেদিন সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছিল, বিনিয়োগকারী, পলিসি গ্রাহক ও সামগ্রিক পুঁজিবাজার রক্ষায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

জানা গেছে, কোম্পানিটির সদ্য অপসারিত চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলামের দুর্নীতির অন্যতম সহযোগী হিসেবে বিবেচনা করা হয় হেমায়েত উল্লাহকে।

পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস

ফারইস্ট ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close