• শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০ আশ্বিন ১৪২৮
  • ||

নৌ-অবকাঠামোয় বিনিয়োগে আগ্রহী নেদারল্যান্ডস

প্রকাশ:  ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৩৮
নিজস্ব প্রতিবেদক

বাংলাদেশে নদীপথের টেকসই উন্নয়ন, নদীশাসন, নদীখনন ও সর্বোপরি জলজ অবকাঠামো নির্মাণে নেদারল্যান্ডসের বিনিয়োগকারীদের মধ্যে আগ্রহ রয়েছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশে নেদারল্যান্ডসের নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূত অ্যানে ভেন লিওভেন।

বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই)-এর সভাপতি রিজওয়ান রাহমানের সঙ্গে সাক্ষাৎকালে তিনি এ তথ্য জানান।

এ সময় বাংলাদেশের সমুদ্র অর্থনীতিকে অত্যন্ত সম্ভাবনাময় খাত হিসেবে উল্লেখ করে ঢাকা চেম্বারের সভাপতি রিজওয়ান রাহমান বলেন, ‘এ খাতের সুফল ভোগ করতে নেদারল্যান্ডসের অভিজ্ঞতা ও দক্ষতা খুবই কার্যকর ভূমিকা পালন করতে পারে।’

ডিসিসিআই সভাপতি বলেন, ‘২০১৯-২০ অর্থবছরে দু’দেশের দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যের পরিমাণ ছিল ১ দশমিক ২৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার, যেখানে বাংলাদেশের আমদানি ও রফতানির পরিমাণ ছিল যথাক্রমে ১৩৮ মিলিয়ন এবং ১ দশমিক ০৯ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।’

রিজওয়ান রাহমান আরও বলেন, ‘বাংলাদেশ মূলত তৈরি পোশাক, হিমায়িত মাছ এবং চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য নেদারল্যান্ডসে রফতানি করে।’ বাংলাদেশে হতে আরও বেশি হারে তৈরি পোশাক ও পরিবেশবান্ধব পাট ও পাটজাত প্রভৃতি পণ্য বেশি হারে আমদানির আহ্বান জানান তিনি। এছাড়া বাংলাদেশের নবায়নযোগ্য জ্বালানি, নদী ব্যবস্থাপনা ও নদী শাসন, ডিজিটাল শিল্প খাত এবং সমুদ্র অর্থনীতি অত্যন্ত সম্ভাবনায় হিসেবে উল্লেখ করে এ খাতগুলোতে বিনিয়াগের জন্য নেদারল্যান্ডসের উদ্যোক্তাদের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানান ডিসিসিআই সভাপতি।

ডিসিসিআই সভাপতি আরও বলেন, ‘‘ডিসিসিআই এবং বাণিজ্য মন্ত্রণালয় যৌথভাবে চলতি বছরের ২৬ অক্টোবর থেকে সপ্তাহব্যাপী ‘বাংলাদেশ ব্যবসা ও বিনিয়োগ সম্মেলন’ আয়োজন করবে।’’ এ সম্মেলনের বিটুবি সেশনগুলোতে ডাচ বিনিয়োগকারী ও উদ্যোক্তাদের অংশগ্রহণের জন্য তিনি আহ্বান জানান।

রাষ্ট্রদূত অ্যানে ভেন লিওভেন বলেন, ‘‘বাংলাদেশ ও নেদারল্যান্ডসের দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য বেশ সন্তোষজনক অবস্থানে রয়েছে। তবে সেটাকে আরও উন্নীত করতে হলে দু’দেশের বেসরকারি খাতের মধ্যকার যোগাযোগ আরও বৃদ্ধি করতে হবে।’ বাংলাদেশ সরকার গৃহীত ‘ডেল্টা প্ল্যান’-এর কার্যকর বাস্তবায়নে ভবিষ্যতে বৃহৎ বিনিয়োগ প্রয়োজন বলে তিনি অভিমত ব্যক্ত করেন। বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বাজার অত্যন্ত বৃহৎ ও সম্ভাবনাময় উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘স্থানীয় জনগণের চাহিদা মেটাতে বিশেষ করে কৃষি খাতের আধুনিকায়ন খুবই জরুরি।’ তিনি উল্লেখ করেন, সারা পৃথিবীতে কৃষি পণ্য রফতানিতে নেদারল্যান্ডসের অবস্থান দ্বিতীয় এবং বাংলাদেশ কৃষি খাতে নতুন প্রযুক্তির ব্যবহার বৃদ্ধি ও পণ্যের বহুমুখীকরণে ডাচ উদ্যোক্তাদের অভিজ্ঞতা এবং প্রযুক্তিগত সহায়তা নেওয়ার আহ্বান জানান রাষ্ট্রদূত।

ডিসিসিআই ঊর্ধ্বতন সহ-সভাপতি এন কে এ মবিন এবং সহ-সভাপতি মনোয়ার হোসেন এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

পূর্বপশ্চিমবিডি/এআই

নেদারল্যান্ড
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close