• শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২, ৫ ভাদ্র ১৪২৯
  • ||

জানা-অজানা

আয়তনে বৃহত্তম ১০ দেশ

প্রকাশ:  ০৫ আগস্ট ২০২২, ১৯:১৩ | আপডেট : ০৫ আগস্ট ২০২২, ১৯:২১
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক

বর্তমানে বিশ্বে মোট দেশের সংখ্যা ২০৬ টির মতো। এসব দেশের কোনটি আকারে অনেক বড় আবার কোনটি একদম ছোট। ইতিহাসে বহু বড় বড় দেশ ভেঙে একাদিক ছোট দেশে পরিণত হয়েছে আবার একাদিক ক্ষুদ্র রাষ্ট্র মিলে একটি বৃহৎ দেশ গঠন করেছে। তবে ছোট দেশগুলোর তুলনায় বড় দেশগুলোতে ভৌগলিক, জলবায়ুগত ও জীবজগতের অধিক বৈচিত্ৰতা লক্ষ করা যায়।

চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক আয়তনে বিশ্বের বৃহত্তম ১০টি দেশ সম্পর্কে।

১০. আলজেরিয়া

আলজেরিয়া বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম মুসলিম দেশ যা আয়তনের দিক থেকে বিশ্বের দশম বৃহত্তম দেশ। এই দেশের রাজধানীর নাম আলজিয়ার্স। এই দেশটি আফ্রিকা মহাদেশে অবস্থিত। এটি আফ্রিকা মহাদেশের সর্ব বৃহৎ দেশ। এর আয়তন ২.৩৮ মিলিয়ন বর্গকিলোমিটার যা পৃথিবীর মোট আয়তনের ১.৬%। আলজেরিয়ার জনসংখ্যা প্রায় ৪ কোটি ২০ লক্ষ। উত্তর আফ্রিকায় অবস্থিত এই দেশটিতে একটি ভূমধ্য সাগরীয় উপকূল রয়েছে যা ৯৯৮ কিলোমিটার দীর্ঘ। এই দেশের শতকরা ৯০ শতাংশ মরুভূমি যার বৃহত্তম অংশজুড়ে সাহারা মরুভূমির অবস্থান।

৯. কাজাকিস্তান

বিশ্বের নবম বৃহত্তম দেশটি হলো কাজাকিস্তান। এই দেশের রাজধানীর নাম নূর সুলতান। এই দেশটি মধ্য এশিয়ায় অবস্থিত। এটি পৃথিবীর সবচেয়ে বৃহত্তম স্থলবেষ্টিত দেশ যাদের কোনো সমুদ্রসীমা নেই। আয়তনে বিশ্বের সবচেয়ে বড় মুসলিম দেশও এটি। দেশটির আয়তন প্রায় ২.৭২ মিলিয়ন বর্গকিলোমিটার যা পৃথিবীর মোট আয়তনের ১.৮%। দেশটির জনসংখ্যা প্রায় ১ কোটি ৮০ লক্ষ। এই দেশে গাছপালা কম থাকায় সাধারণত আবহাওয়া শীতল ও শুকনো, তবে পুরোপুরি মরুভূমির মতো নয়।

৮. আর্জেটিনা

আয়তনে বিশ্বে অষ্টম বৃহত্তম ও দক্ষিণ আমেরিকার ২য় বৃহত্তম দেশ হলো আর্জেন্টিনা। এই দেশের রাজধানীর নাম বুয়েনোস আইরেস। আর্জেন্টিনা ফুটবলের জন্য দুনিয়া জুড়ে বিখ্যাত। দেশটির আয়তন প্রায় ২.৭৮ মিলিয়ন বর্গকিলোমিটার যা পৃথিবীর মোট আয়তনের ২%। দেশটির জনসংখ্যা প্রায় ৪ কোটি ৪০ লক্ষ। দেশটির ভূগোল ও জলবায়ুতে কিছুটা বৈচিত্ৰতা লক্ষ্য করা যায়। দেশটিতে উত্তর অঞ্চলে মৌসুমী বায়ু দেখা গেলেও দক্ষিণ অঞ্চল অধিকাংশ সময় বরফে ডাকা থাকে কেননা দেশটির দক্ষিনে এন্টার্কটিকা মহাদেশ অবস্থিত। এছাড়াও দেশটির দক্ষিন পশ্চিমে বিখ্যাত আন্দিজ পর্বতমালা অবস্থিত।

৭. ভারত

ভারত বিশ্বের ৭ম বৃহত্তম ও এশিয়ার অন্যতম অর্থনৈতিক উন্নয়নশীল দেশ। দেশটির রাজধানীর নাম নয়া দিল্লি। গত শতাব্দীতে ভারতের সীমানা কয়েকবার পরিবর্তিত হয়েছে কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে। কাশ্মীর ছাড়া ভারতের আয়তন প্রায় ৩.২৯ মিলিয়ন বর্গকিলোমিটার, যা পৃথিবীর মোট আয়তনের ২.৩%। দেশটির জনসংখ্যা প্রায় ১৩৫ কোটি। জনসংখ্যার দিক দিয়ে এটি পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহত্তমদেশ। ভারত অত্যান্ত বৈচিত্রপূর্ণ একটি দেশ যেখানে নানার ভাষা, জাতি, ধর্ম ও সংস্কৃতির মানুষরা একসাথে বসবাস করে।

৬. অস্ট্রেলিয়া

বিশ্বের ষষ্ঠ বৃহত্তম এবং ওশেনিয়ার সর্ব বৃহৎ দেশ হলো অস্ট্রেলিয়া। এই দেশের রাজধানীর নাম ক্যানবেরা। দেশটি একটি দ্বীপ হলেও এটি আয়তনে এত বৃহৎ যে একে দ্বীপ হিসেবে বিবেচনা করা যায় না। এর আয়তন প্রায় ৭.৬৯ মিলিয়ন বর্গকিলোমিটার যা ভারতের আয়তনের দ্বিগুন এবং পৃথিবীর মোট আয়তনের ৫.২%। দেশটির জনসংখ্যা প্রায় আড়াই কোটি। এই দেশের অধিকাংশ মানুষ উপকূলবর্তী শহরে বসবাস করে। তবে এই দেশ সম্পর্কে একটি মজার তথ্য হলো এই দেশে মানুষের তুলনায় ক্যাঙ্গারুর সংখ্যাই বেশি।

৫. ব্রাজিল

বিশ্বের ৫ম বৃহত্তম দেশ হলো ফুটবলের দেশ ব্রাজিল। তবে দেশটি তার নিজস্ব সংস্কৃতি এবং বিশাল অর্থনীতির জন্যও পরিচিত। এই দেশের রাজধানীর নাম ব্রাসিলিয়া। ব্রাজিলের প্রধান ভাষা হল পর্তুগিজ এবং এটি দক্ষিণ আমেরিকার একমাত্র পর্তুগিজভাষী দেশ। ব্রাজিলের বর্ডার দশটি দেশের সাথে সংযুক্ত। এর আয়তন প্রায় ৮.৫১৫ মিলিয়ন বর্গকিলোমিটার যা দক্ষিণ আমেরিকা মহাদেশের সবচেয়ে বড় দেশ এবং পৃথিবীর আয়তনের মোট ৫.৭%। দেশটির জনসংখ্যা প্রায় ২১কোটি। এছাড়াও বিশ্বের সবচেয়ে বড় রেইনফরেস্ট আমাজন বনের সবচেয়ে বড় অংশ এই ব্রাজিলেই অবস্থিত।

৪. চীন

চীন বিশ্বের ৪র্থ বৃহত্তম এবং এশিয়া মহাদেশের সর্ব বৃহত্তম দেশ। এই দেশের রাজধানীর নাম বেইজিং। এটি প্রায় ৯.৫৯৬ মিলিয়ন বর্গ বর্গকিলোমিটার জায়গা দখল করে আছে, যা পৃথিবীর মোট আয়তনের ৬.৪%। চীনের বর্ডার ১৪ টি দেশের সাথে সংযুক্ত যার মধ্যে পূর্বে আফগানিস্তান, উত্তরে রাশিয়া এবং দক্ষিনে ভিয়েতনাম অন্যতম। চীনের ভৌগলিক অবসবথা খুবই বৈচিত্র্যময় কারণ এর উত্তর অঞ্চল খুবই শীতল আর দক্ষিনে মরুভূমি। দেশটির জনসংখ্যা প্রায় ১৪০কোটি। জনসংখ্যার দিক দিয়ে বিশ্বের এক নম্বরে চীন।

৩. যুক্তরাষ্ট্র

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র হলো বিশ্বের ৩য় বৃহত্তম এবং সবচেয়ে শক্তিশালী দেশ। এই দেশের রাজধানীর নাম ওয়াশিংটন, ডি.সি.। তবে দেশটির সবচেয়ে বড় ও জনবহুল শহরটি হলো নিউ ইয়র্ক। দেশটি উত্তর আমেরিকায় অবস্থিত। দেশটির আয়তন প্রায় ৯.৮৩৩ মিলিয়ন বর্গ কিলোমিটার যা পৃথিবীর মোট আয়তনের ৬.৫%। দেশটির দক্ষিণে মেক্সিকো ও উত্তরে কানাডার সাথে সীমান্ত সংযুক্ত আছে এছাড়াও দেশটির পূর্বে আটলান্টিক মহাসাগর এবং পশ্চিমে রয়েছে প্রশান্ত মহাসাগর। আমেরিকার জনসংখ্যা প্রায় ৩৩ কোটি। এই দেশটিকে বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ অর্থনীতির দেশও বলা হয়।

২. কানাডা

কানাডা হচ্ছে পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহত্তম এবং শীতলতম দেশ। এই দেশের রাজধানীর নাম অটোয়া। এটি উত্তর আমেরিকার উত্তরাংশে অবস্থিত। এর আয়তন প্রায় ৯.৯৮৪ মিলিয়ন বর্গকিলোমিটার যা উত্তর আমেরিকা মহাদেশের প্রায় ৪১% এবং পৃথিবীর মোট আয়তনের ৬.৭%। এদেশের আয়তনের তুলনায় জনসংখ্যা খুবই, কম প্রতি বর্গ কিলোমিটারে মাত্র ৪ জন বাস করে এবং মোট জনসংখ্যা প্রায় ৩৫ মিলিয়ন। এছাড়াও এই দেশে ২০২,০৮০ কিলোমিটার সমুদ্র উপকূল রয়েছে যা পৃথিবীর অন্য যে কোনো দেশের তুলনায় দীর্ঘতর সমুদ্রপথ।

১. রাশিয়া

রাশিয়া আয়তনে বিশ্বের সর্ব বৃহৎ দেশ যার পূর্ব নাম ছিল সোভিয়েত ইউনিয়ন। এই দেশের রাজধানীর নাম মস্কো। উত্তর এশিয়া ও পূর্ব ইউরোপের বিশাল অংশজুড়ে রাশিয়ার অবস্থান। আয়তনে ইউরোপ মহাদেশের চেয়ে বৃহত্তম দেশ রাশিয়া। এর আয়তন প্রায় ১৭.০৯৮ মিলিয়ন বর্গ কিলোমিটার, যা পৃথিবীর মোট আয়তনের ১১% জায়গা দখল করে আছে। চীনের মত রাশিয়ার বর্ডারও ১৪ টি দেশের সাথে সংযুক্ত। দেশটির জনসংখ্যা প্রায় ১৪ কোটি। দেশটি খনিজ সম্পদে পরিপূর্ণ তবে তার বেশির ভাগই এখনো উত্তোলন যোগ্য নয়। প্রায় সারাবছরই শৈত্যপূর্ণ অবস্থা থাকার কারনে দেশটি বিশ্বের শীতলতম দেশ হিসেবে পরিচিত।

পূর্বপশ্চিম- এনই

জানা-অজানা
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close