• শুক্রবার, ২১ জানুয়ারি ২০২২, ৭ মাঘ ১৪২৮
  • ||

হিমেল দিনের প্রস্তুতি

প্রকাশ:  ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:০২ | আপডেট : ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:০৭
লাইফস্টাইল ডেস্ক

শীত এসে গেছে। ভোরে হিমেল বাতাসের সঙ্গে ঘাসের ডগায় জমতে শুরু করেছে কুয়াশার কণা। পথপ্রান্তর উড়ছে ধুলোবালি। নগরজীবনে এখনও সেইভাবে শীত অনুভূত না হলেও গ্রামাঞ্চলে টের পাওয়া যাচ্ছে শীতের কামড় । শীত পুরোপুরি জাকিয়ে বসার আগেই কিছু প্রস্তুতি জরুরি।

এখন সকালের দিকে যে রোদ আছে তা লেপ, কম্বলের মতো ভারী জিনিস রোদে দেয়ার জন্য যথেষ্ট। তাই অনেক দিন ধরে তুলে রাখা লেপ, কম্বল, কাঁথাগুলোর এখনই সময় কড়া রোদে দেয়ার। লেপ, কাঁথা, কম্বল যথেষ্ট পরিমাণে না থাকলে কিনে নিতে হবে এখনই। লেপ রোদে দেয়ার পর এলোমেলো ভঁাজে না রেখে অবশ্যই রোল করে ভঁাজ রাখতে হবে। এ ছাড়া কম্বলের কভার, লেপের কভার এগুলো ধুয়ে রোদে শুকিয়ে তারপর ব্যবহার করতে হবে। কম্বল রোদে দেয়ার সময় আরও একটা গুরুত্বপূণর্ জিনিস মাথায় রাখতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে ঝাড়ার সময় এর লোমগুলো যেন উঠে না যায়, সে জন্য নরম ব্রাশ ব্যবহার করতে হবে। এ ছাড়া ছেঁড়া বা পোকায় কাটা লেপ বা কম্বলজাতীয় কিছু থাকলে সেগুলো সারিয়ে রোদে দেয়ার এখনই উপযুক্ত সময়।

সোয়েটার, শাল, চাদর, জ্যাকেট ইত্যাদি পোশাক ভালো করে ধুয়ে অবশ্যই কড়া রোদে শুকিয়ে রাখতে হবে। রোদ থেকে তোলার পর ভালোভাবে ঝেড়ে রাখতে হবে শীত পোশাকগুলো। সোয়েটার, শাল, চাদর এগুলো পুরনো হয়ে গেলে প্রয়োজনে এখনই কিনে নিতে পারেন। ভোরে কিংবা সকালে ঘর থেকে বেরোনোর সময় সুতির পাতলা হালকা ফ্যাশনেবল শালগুলো ব্যবহার করা যেতে পারে। এগুলো কেনা না থাকলে এখনই কিনে নিতে হবে। শুধু তাই নয়, যেখানে এ পোশাকগুলো রাখা হবে সেখানে এয়ার ফ্রেশনার, ন্যাপথলিন এগুলো ব্যবহার করা যেতে পারে। এতে পোকার সংক্রমণ হবে না। আবার পোশাকগুলো থেকে সুন্দর ঘ্রাণ আসবে। অনেক দিন ধরে তুলে রাখা শাল ব্যবহার না করলে হলদেটে দাগ পড়ে যায়। এমন হলে শালটি ড্রাইওয়াশ করিয়ে নিতে হবে। উল বা ফ্লানেলের যে কোনো কাপড় ব্যবহারের আগে ভালো করে ধুয়ে রোদে শুকিয়ে নিতে হবে। এ ছাড়া বাচ্চাদের পোশাকের ব্যাপারেও এখন থেকেই সতকর্ হতে হবে। কানটুপি, হাত মোজা, পায়ের মোজা এখনই কিনে রাখুন। হঠাৎ করেই শীত নেমে গেলে তারা যাতে কষ্ট না পায়।

ছেলেদের কোট, ব্লেজার ব্যবহারের আগে ব্রাশ দিয়ে ঘষে পরিষ্কার করে রোদে শুকাতে হবে। রোদ থেকে আনার পর এগুলো হ্যাঙ্গারে ঝুলিয়ে রাখতে হবে। মাফলার, কানটুপি, হাত মোজা, পায়ের মোজা সব সময় হাতের নাগালেই রাখতে হবে। আগের বছর কেনা থাকলেও দেখে নিন সেগুলো ছিঁড়ে বা ফুটো হয়ে গেছে কিনা। নয়ত নতুন কিনে আনার কথা ভাবতে হবে।

শীতে ছোটদের, বিশেষ করে নবজাতকের সমস্যা বেশি হয়। তাই এই সময় পাতলা চাদর, পাতলা কাঁথা অথবা কুইল্ট ব্যবহার করতে পারেন সকালবেলা। শীত জেকে বসার আগে প্রস্তুতি নিন সুস্থ থাকার, ভালো থাকার।

পূর্বপশ্চিম- এনই

শীতের প্রস্ততি,শীত
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close