• বৃহস্পতিবার, ১৬ জুলাই ২০২০, ১ শ্রাবণ ১৪২৭
  • ||

যেখানে সেখানে জীবাণুনাশক ব্যবহার, হতে পারে বিপদ

প্রকাশ:  ২০ এপ্রিল ২০২০, ১২:০৩
নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনাভাইরাসের তাণ্ডব চলছে বিশ্বব্যাপী। আর এই ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে আপনি যেখানে সেখানে ব্যবহার করছেন জীবাণুনাশক? যদি তা-ই হয় বিপদ ডেকে আনছেন।

সংক্রমণের ভয় হলেই কি সোডিয়াম হাইপোক্লোরাইডের মতো ডিস-ইনফেক্ট্যান্ট মানে জীবাণুনাশক ব্যবহার করা যায়? করলেও তা কোথায় কোথায় ব্যবহার করা যায়? এ নিয়ে বিস্তর আলোচনা চলেছে নানা মহলে।

ডিস-ইনফেক্ট্যান্ট নিয়ে সাধারণ মানুষের ভুল বোঝাবুঝি দূর করতে এগিয়ে এসেছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। তারা বলছেন, মানব দেহে ডিস-ইনফেক্ট্যান্ট ব্যবহার করা রীতিমতো বিপজ্জনক।অনেক সময়ে এই ডিস-ইনফেক্ট্যান্ট বা জীবাণুনাশক অতিমাত্রায় ব্যবহার করলে তাতে হিতে বিপরীত হতে পারে।

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মানবদেহে এ ধরনের ওষুধ ব্যবহার অত্যন্ত বিপজ্জনক। তাই, বাইরে ডিস-ইনফেক্ট্যান্ট ব্যবহার করতে গেলে হাতে গ্লাভস পরা-সহ বিভিন্ন সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে।

এ ধরনের মিশ্রণ ব্যবহার করতে গেলে প্রয়োজনীয় সতকর্তা কী কী নিতে হবে?-এই ধরনের রাসায়নিক জিনিস শুধুমাত্র খোলা দেওয়াল বা মেঝেতে ব্যবহার করতে বলা হয়। কোনও অবস্থাতেই মানুষের দেহে ব্যবহার করা যাবে না। তাতে ওই ব্যক্তি শারীরিক এবং মানসিক ভাবে অসুস্থ হয়ে যেতে পারেন।

কভিড-১৯ ভাইরাসের সংক্রমণ হওয়ার সম্ভাবনা থাকলেও তার গায়ে ডিস-ইনফেক্ট্যান্ট দেওয়া যাবে না। এমনকি, শরীরের ভিতরের অংশেও ওই ডিস-ইনফেক্ট্যান্ট দেওয়া যাবে না। ডিস-ইনফেক্ট্যান্টের মধ্যে যে ক্লোরিন থাকে তা এক ব্যক্তির চোখ এবং ত্বকের ক্ষতি করতে পারে। ক্ষতি হতে পারে পেটেরও।

শুধু তাই নয়, ক্লোরিন নাকে মুখে ঢুকে গেলে নাকের ভেতরের চামড়া, শ্বাসনালী এবং ফুসফুসের ক্ষতি হতে পারে।

পূর্বপশ্চিমবিডি/আরএইচ

জীবাণুনাশক
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close