• শুক্রবার, ১০ এপ্রিল ২০২০, ২৭ চৈত্র ১৪২৬
  • ||

করোনা সচেতনতায় গুগল ডুডল 

প্রকাশ:  ২১ মার্চ ২০২০, ১৪:৩৪
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক

চীনের উহান থেকে বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। দিন দিন বাড়ছে ভাইরাসটির ভয়াবহতা। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১১ হাজারের বেশি মানুষ। আক্রান্ত হয়েছে প্রায় তিন লাখ মানুষ। এই ভাইরাসের ভয়াবহতা থেকে রক্ষা পেতে সচেতনতার বিকল্প নেই বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। করোনা প্রতিরোধে এরই মধ্যে নানা সচেতনামূলক কার্যক্রম হাতে নিয়েছে বিভিন্ন সংস্থা।

ভাইরাস প্রতিরোধে হাত ধোয়ার ওপর সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা-হু। কারণ হাতের মধ্য দিয়ে এই ভাইরাস শ্বাসনালিতে আক্রমণ করে। এ কারণে হাত ধোয়ার ওপর গুরত্ব দিয়েছে সার্চ ইঞ্জিন জায়ান্ট গুগল।

শুক্রবার (২০ মার্চ) থেকে গুগলের হোমপেজে প্রকাশিত এক ভিডিওর মাধ্যমে দেখানো হচ্ছে হাত ধোয়ার পদ্ধতি। ডুডলটিতে রয়েছে একটি প্লে বোতাম। সেটিতে ক্লিক করলেই ৫০ মিনিটের অ্যানিমেশনের মাধ্যমে ছয় ধাপে হাত ধোয়া শেখানো হচ্ছে।

জেনে নিই এই ৬টি ধাপ-

প্রথমে হাতে সাবান মাখাতে হবে। দ্বিতীয় ধাপে আঙুলের খাঁজ পরিষ্কার করতে হবে। তৃতীয় ধাপে দুই হাতের আঙুলগুলো একে অপরের মধ্য দিয়ে কচলে সাবান মাখানো। এর পর আঙুলের ডগা পরিষ্কার করে পঞ্চম ধাপে বুড়ো আঙুল কচলে ধোয়া।

ষষ্ঠ ধাপে হাতের তালু পরিষ্কার। এর পর পানি দিয়ে ভালো করে সাবান ধুয়ে ফেললেই হাত পরিষ্কার হয়ে গেল।

এবার আসা যাক অ্যানিমেটেড ভিডিওতে দেখা যাওয়া ব্যক্তি প্রসঙ্গে। তিনি হাঙ্গেরির আগনাজ সেম্মেলউইস। যিনি মৃত্যুর পর ‘প্রসূতিদের ত্রাণকর্তা’ নামে খ্যাতি পান।

তার হাত ধরেই বিশ্ব জানতে পারে হাত ধোয়ার উপকারিতা। অ্যান্টিসেপটিক ধারণার জন্মও দেন তিনিই। সেই বিখ্যাত মানুষটির শেখানো হাত ধোয়া এই একবিংশ শতাব্দীতেও করোনা থেকে রক্ষা করছে মানুষকে।

গত ডিসেম্বরে চীনের উহান শহরে করোনাভাইরাসের আবির্ভাব ঘটে। প্রতিনিয়ত এই ভাইরাসে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। এখনো কোনো টিকা বা প্রতিষেধক আবিষ্কার করতে পারেনি বিশ্ব স্বাস্থ্যসংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

এ রোগের কোনো উপসর্গ যেমন জ্বর, গলা ব্যথা, শুকনো কাশি, শ্বাসকষ্ট, শ্বাসকষ্টের সঙ্গে কাশি দেখা দিলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। জনবহুল স্থানে চলাফেরার সময় মাস্ক ব্যবহার করতে হবে এবং পোষা প্রাণির সংস্পর্শ এড়িয়ে যেতে হবে। বাড়িঘর পরিষ্কার রাখতে হবে। বাইরে থেকে ঘরে ফিরে এবং খাবার আগে সাবান দিয়ে হাত পরিষ্কার করতে হবে। খাবার ভালোভাবে সিদ্ধ করে খেতে হবে।

বাংলাদেশের কেউ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বলে সন্দেহ হলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কন্ট্রোল রুমের হট লাইন ০১৯৪৪৩৩৩২২২ নম্বরে যোগাযোগের জন্য পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

করোনাভাইরাস সম্পর্কে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বা অন্য কোনোভাবে মিথ্যা বা ভুল তথ্য প্রচার নজরে আসলে তথ্য অধিদপ্তরের সংবাদকক্ষের ফোন নম্বর ৯৫১২২৪৬, ৯৫১৪৯৮৮, ০১৭১৫২৫৫৭৬৫, ০১৭১৬৮০০০০৮ এবং ইমেইল: [email protected]/[email protected] অথবা ৯৯৯-এ যোগাযোগ করার জন্য সর্বসাধারণের প্রতি অনুরোধ জানানো হয়েছে।


পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএম

করোনাভাইরাস,গুগল,ডুডল
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close