• শনিবার, ০৪ এপ্রিল ২০২০, ২১ চৈত্র ১৪২৬
  • ||

মোবাইল ফোনে চার দিন বেঁচে থাকতে পারে করোনাভাইরাস

প্রকাশ:  ১৯ মার্চ ২০২০, ০০:৩১ | আপডেট : ১৯ মার্চ ২০২০, ০০:৩৫
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক

করোনভাইরাস আতঙ্কে বর্তমান বিশ্ব কাঁপছে । প্রাণঘাতী এই ভাইরাস থাবা বসিয়েছে চীনসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে। এ ভাইরাসের আক্রমণ থেকে বাঁচতে, সংক্রমণ এড়িয়ে কী করবেন, তা নিয়ে জোর প্রচার চলছে।বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) পাশাপাশি ইউনিসেফ, ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের মতো সংস্থাও নানাভাবে প্রচার করছে। ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম জানিয়েছে, মোবাইল ফোনে চার দিন বেঁচে থাকতে পারে করোনাভাইরাস।

ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম (ডব্লিউইএফ) সম্প্রতি একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে। এতে জানানো হয়েছে, কোনো মোবাইল ফোন যদি করোনাভাইরাসের সংস্পর্শে আসে, তবে তাতে চার দিন পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে। তাই মোবাইল ফোন ঠিকভাবে পরিষ্কার করতে হবে। প্লাস্টিক বা স্টেইনলেস স্টিলে করোনাভাইরাস কয়েক দিন পর্যন্ত টিকে থাকতে পারে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি। তাই ফোন ভালো করে পরিষ্কার করতে হবে নিয়মিত। সেই সঙ্গে ভালো করে পরিস্কার করতে হবে হাত।

ডব্লিউইএফ জানিয়েছে, ২০০৩ সালে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানায়, কাচের মধ্যে সার্স ভাইরাস ৯৬ ঘণ্টা পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে। সার্সও এক ধরনের করোনাভাইরাস। সংবাদ সংস্থা এএফপি একটি টুইট করেছে। সেখানে দেখানো হয়েছে ধাতু, প্লাস্টিক বা অন্য উপাদানে করোনাভাইরাস এক থেকে নয় দিন পর্যন্ত বেঁচে থাকে।

ডব্লিউইএফ আরও দেখিয়েছে, কীভাবে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়তে পারে করোনাভাইরাস। এ ছাড়া করোনাভাইরাস এড়িয়ে চলার পাঁচটি উপায় বাতলেছে ইউনিসেফ। তা হলো- হাঁচি, কাশির সময় টিস্যু পেপার ব্যবহার, সাবান বা অ্যালকোহল যুক্ত হাত ধোয়ার দ্রব্য দিয়ে ভালো করে ঘষে ঘষে হাত ধুতে হবে, চোখ, মুখ, নাকে হাত দেওয়া যাবে না, হাঁচি, কাশি হচ্ছে এমন লোকজন থেকে দূরত্ব বজায় রাখতে হবে এবং সর্দি, কাশি বা শ্বাসকষ্ট হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশ বিদেশিদের ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি ধর্মীয় উপাসনালয়, গণপরিবহনসহ সব ধরনের জমায়েতে দেওয়া হয়েছে বিধিনিষেধ। সূত্র :আনন্দবাজার পত্রিকা।

পূর্বপশ্চিমবিডি/জিএম

করোনভাইরাস,বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা,মোবাইল ফোন
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close