Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • রোববার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬
  • ||

কোন ব্যথা অ্যাপেনডিসাইটিসের বুঝবেন যেভাবে

প্রকাশ:  ১৯ আগস্ট ২০১৯, ১৪:৩৬ | আপডেট : ১৯ আগস্ট ২০১৯, ১৪:৫৮
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক
প্রিন্ট icon

আমরা প্রায় সবাই জানি অ্যাপেন্ডিক্স আমাদের শরীরের একটি অপ্রয়োজনীয় অঙ্গ। এটি এমন একটি অঙ্গ যা শরীর থেকে কেটে বাদ দিয়ে দিলেও মানুষ দিব্যি সুস্থভাবে বেঁচে থাকতে পারে। তবে যদি কখনও অ্যাপেনডিক্সে কোনও সংক্রমণ হয় বা কোনও ক্ষত তৈরি হয় তবে মানুষের মৃত্যুর আশঙ্কাও তৈরি হতে পারে।

বিশ্বের প্রায় ৫% মানুষের জন্য এই অঙ্গটি জরুরি চিকিৎসা পরিস্থিতি তৈরি করে। বৃহদান্ত্র এবং ক্ষুদ্রান্ত্রের সংযোগস্থলে ছোট্ট একটি থলির মতো এই অঙ্গটিতে কোনও ভাবে খাদ্য কণা বা ময়লা ঢুকে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তে পারে। সময় মতো সংক্রমণ ঠেকাতে ব্যবস্থা না নিতে পারলে তা প্রাণ সংশয়ের কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে।

এ কথা আমরা অনেকেই জানি যে, অ্যাপেন্ডিক্সের সংক্রমণে যে পেটে ব্যথা হয়। তবে অ্যাপেনডিসাইটিসে ঠিক কোন ধরনের ব্যথা হয় বা এর কী কী উপসর্গ দেখা দেয় তা আমরা অনেকেই জানিনা। কী করে বুঝবেন অ্যাপেনডিসাইটিসের সংক্রমণের কারণেই পেটে ব্যথা হচ্ছে? তবে জেনে নেওয়া যাক এর লক্ষণ গুলো।

শ্লেষ্মা, পরজীবি বা পায়খানা আটকে যদি অ্যাপেন্ডিকিক্সের মুখ বন্ধ হয়ে যায় তখনেই বিপত্তিটা ঘটে। এর ফলে হঠাৎ করেই তীব্র প্রদাহ তৈরি হয় এবং খুব অল্প সময়ের মধ্যেই তা সংক্রমিত হয়। আর তখনই অ্যাপেনডিসাইটিসের প্রথম লক্ষণ দেখা দেয়।

উপসর্গ ও লক্ষণসমূহ:

১) পেটে মূলত নাভির কাছ থেকে শুরু করে পেটের ডান দিকের নিচে পর্যন্ত তীব্র এই ব্যথা ছড়িয়ে পড়ে।

২) পেটে ব্যথার সঙ্গে সঙ্গেই সারাক্ষণ বমি বমি ভাব।

৩) খিদে বোধ অস্বাভাবিক ভাবে কমে যাওয়া।

৪) কিছু খেলেই ব্যথার চোটে বমি হয়ে বেরিয়ে যায়।

৫) পেটের ডান দিকের নিচে মারাত্মক ব্যথা অনুভূত হলে আর পেট ফুলে উঠলে তা অ্যাপেন্ডিক্স ফেটে যাওয়ার কারণেও হতে পারে।

৬) পেটের ব্যথার চোটে জ্বর আসা। যদিও এ ক্ষেত্রে শরীরের তাপমাত্রা খুব বেশি হয় না।

৭) হঠাৎ করে কোষ্ঠকাঠিন্য বা ডায়রিয়ার সমস্যা বেড়ে যাওয়া।

এ সকল উপসর্গ দেখা দিলে দেরি না করে দ্রুত ডাক্তারের শরণাপন্ন হতে হবে।


পূর্বপশ্চিমবিডি/লা-মি-য়া

স্বাস্থ্য
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত