Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ৩ কার্তিক ১৪২৬
  • ||

মানসিক-শারীরিক অবস্থা ভালো রাখতে পিছনের দিকে হাঁটুন

প্রকাশ:  ২৯ জুলাই ২০১৯, ১৩:৪৭ | আপডেট : ২৯ জুলাই ২০১৯, ১৪:৪৫
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক
প্রিন্ট icon

আমরা জানি হাঁটা স্বাস্থ্যের জন্য অনেক উপকারি। তবে আমরা সামনের দিকে আগানোর জন্য হেটে থাকি। কিন্তু জানেন কি- পিছনের দিকে হাঁটলে মানসিক ও শারীরিক দিক থেকে ভালো থাকা যায়?

কারণ একই ফিটনেস রুটিনে আমরা যেমন বিরক্ত হয়ে যাই, তেমন আমাদের মন ও শরীরও তাতে অভ্যস্থ হয়ে ওঠে। ফলে একটা সময় পর তারা সঠিক ভাবে কাজ করে না। আর সেইজন্যই মাঝে মাঝে অভ্যাসের বাইরে কিছু করা খুবই প্রয়োজনীয়। গতানুগতিক কাজ করতে করতে আমরা বিরক্ত হয়ে যাই। আর তাই আজ পিছনের দিকে হাঁটার উপকারিতা নিয়ে লিখতে বসে গেলাম।

পিছনের দিক করে হাঁটলে উপকার যেমন আছে তেমন অভ্যাসের বাইরে নতুন কিছু করার মজাও রয়েছে। যা শরীর আর মনকে সহজেই রিল্যাক্স করে। পাশাপাশি এদের কাজ করার ক্ষমতাকে বাড়িয়ে দেয়।

পিছনের দিকে হাঁটার মানসিক যেসব উপকারিতা আছে তা যেনে নেয়া যাক

১। নিদ্রা জনিত সমস্যা দূর করে, ফলে ঘুমের সমস্যা থাকে না।

২। কোন রকমের অবসাদ থাকলে তা দূর করতে সাহায্য করে।

৩। মানসিক দিক দিয়ে শারীরিক সচেতনতার বৃদ্ধি করে।

৪। আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দেয়। ফলে নিজের কম্ফট জোনের বাইরে কিছু করার সাহস পায় মন।

৫। চিন্তাশক্তি প্রখর হয়, ভাবনার পরিসর বেড়ে যায়। নতুন কিছু করার ইচ্ছে আরও বাড়ে।

শারীরিক কি কি উপকারিতা আছে

১। পায়ের ব্যাথা বা পুরনো আঘাত থেকে দ্রুত আরাম পেতে হেল্প করে।

২। পায়ের মাংসপেশীর স্ট্রেনথ বা শক্তি বৃদ্ধি পায়।

৩। হাঁটার ক্ষমতা বাড়ে। যা শরীরকে নানা ভাবে সাহায্য করে। পায়ের ব্যালেন্স নষ্ট হতে দেয় না।

৪।হেলদি ওয়েট বা ওজন বজায় রাখতে হেল্প করে।

৫।মাংসপেশীর পাশাপাশি হাড় মজবুত করতে সাহায্য করে।

৬।হজম শক্তি বা মেটাবোলিজম বাড়ায়।

৭।পিছনের দিকে হাঁটলে ক্যালোরি বার্ন হয়।

পিছনের দিকে যেভাবে হাঁটবেন

আমরা নর্মাল যেমন সামনের দিকে হাঁটি ঠিক সেই ভাবেই পিছনের দিকে হাঁটবেন।

প্রথম প্রথম হাঁটতে একটু অসুবিধা হবে তারপর অভ্যাস হয়ে গেলে আসতে আসতে স্পিড বাড়াবেন।

এটি সকালে বা বিকেলে জগিং করার সময় ৩০ মিনিট করে করবেন। যারা কোন রকমের এক্সাসাইজ করার সময় পান না। তারা অন্তত এই একটি কাজ নিজের জন্য সময় বের করে করুন। দেখবেন হাজার একটা শারীরিক সমস্যা থেকে সমাধানের পথ বেরিয়ে আসছে।


পূর্বপশ্চিম বিডি/লা-মি-য়া

পিছনের দিকে হাঁটুন
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত