Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯, ৭ ভাদ্র ১৪২৬
  • ||

ফোনের চেয়েও পাতলা এসার ল্যাপটপ এখন বাজারে

প্রকাশ:  ২২ জুলাই ২০১৯, ১৭:২২
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক
প্রিন্ট icon
ফোনের চেয়েও পাতলা এসার ল্যাপটপ এখন বাজারে

বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি ব্র্যান্ড এসার। তাইওয়ানের এই কোম্পানিটি বাংলাদেশের বাজারে নতুন সিরিজের ল্যাপটপ নিয়ে এসেছে। নতুন বাজারে আসা ল্যাপটপটি স্মার্টফোনের চেয়েও পাতলা। মডেল সুইফট সেভেন। এছাড়াও নতুন অবমুক্ত হওয়া ল্যাপটপগুলো হলো-কনসেপ্ট ডি, ট্রাভেলম্যাট এক্স ফাইভ এবং নাইট্রো সেভেন।

বুধবার (১৭ জুলাই) রাজধানীর একটি হোটেলে ল্যাপটপগুলো উন্মোচন করা হয়। এসারের নতুন এসব পণ্য ক্রিয়েটিভ কাজে ব্যবহারকারীদের পূর্ণ সুবিধা এবং কম্পিউটার ডিভাইস ব্যবহারে সম্পূর্ণ নতুন অভিজ্ঞতা দেবে।

অনুষ্ঠানে এসার ইন্ডিয়ার প্রেসিডেন্ট এবং ম্যানেজিং ডিরেক্টর হরিশ কোহলি বলেন,বাংলাদেশের বাজারে আমাদের সর্বশেষ প্রযুক্তির ল্যাপটপ নিয়ে আসতে পেরে আমরা খুবই আনন্দিত। এসারের বাজার বাংলাদেশে ক্রমবর্ধমান ভাবে বেড়ে চলেছে, ভালো চাহিদা আমরা লক্ষ্য করেছি। তাই আমরা আত্মবিশ্বাসী যে আমাদের অত্যাধুনিক ফিচারের নতুন পণ্যগুলো এখানে ভালো সাড়া ফেলবে। পেশাজীবি ও গেমার চাহিদা বিবেচনা করে সর্বাধুনিক সব প্রযুক্তির সঙ্গে দ্রতগতির কার্যক্ষমতার বিষয়টিকে প্রাধান্য নিয়ে নতুন রেঞ্জের এই ডিভাইসগুলো নিয়ে আসা হয়েছে।

সুইফট সেভেন

এসারের নতুন আল্ট্রা-স্লিম ল্যাপটপ সুইফট সেভেন। এটি অবিশ্বাস্য রকমের পাতলা ও হালকা ওজনের ল্যাপটপ এবং পাশাপাশি মজবুত। ল্যাপটপটির স্ক্রিনের চারপাশ জিরো-ফ্রেম ডিসপ্লে সুবিধার হওয়ার ফুল-স্ক্রিন ডিসপ্লে উপভোগ করা যাবে। ডিসপ্লেতে মাত্র ২.৫৭ মিলিমিটার পাতলা ব্যাজেল থাকায় এর স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৯২ শতাংশ। ল্যাপটপটির ওজন মাত্রা ৮৯০ গ্রাম। হাতে নিলে মনেই হবে না যে, ল্যাপটপ বহন করা লাগছে। উচ্চতর পোর্টেবিলিটি নিশ্চিতে এটি ম্যাগনেসিয়াম-লিথিয়াম এবং ম্যাগনিসিয়াম-অ্যালুমিনিয়াম অ্যালোয়ে তৈরি করা হয়েছে। এই উপাদানে তৈরি হওয়ায় সুইফট ৭ ল্যাপটপ সাধারণ অ্যালুমিনিয়ামের একই পুরুত্বের ল্যাপটপের তুলনায় ২ থেকে ৪ গুণ বেশি শক্তিশালী।

এমনকি তুলনামূলক ২০ থেকে ৩৫ শতাংশ পাতলা হওয়ায় ওজন ১ কেজির কম। উপরন্তু, ল্যাপটপের পৃষ্ঠ সিরামিকের মতো দেখাতে এসার এতে মাইক্রো-এআরসি অক্সিডেশন ফিনিশ দিয়েছে।

কনসেপ্ট-ডি

এসারের কনসেপ্ট-ডি সিরিজ হচ্ছে হাই-এন্ড নোটবুক এবং ল্যাপটপের এক অপূর্ব সমন্বয়। যা রঙিন ও নতুন ডিজাইনের, সঙ্গে প্রিমিয়াম বিল্ড কোয়ালিটির। অত্যাধুনিক এই নোটবুক কম্পিউটার ক্রিয়েটিভ কাজের জন্য উপযোগী। এর কিবোর্ডে অ্যাম্বার রঙের ব্যাকলাইট দেয়া হয়েছে। কনসেপ্ট-ডি৯০০ মডেলের উচ্চ পারফরম্যান্সের নোটবুকে রয়েছে ইন্টেলের ৪০ কোর ও ৮০ থ্রেডের ডুয়াল জিওন গোল্ড ৬১৪৮ প্রসেসর এবং এনভিডিয়ার কোয়াড্র আরটিএক্স ৬০০০ গ্রাফিক্স। কনসেপ্ট-ডি৫০০ মডেলের হাই-এন্ড নোটবুকে রয়েছে ৮ কোর ও ১৬ থ্রেডের ইন্টেলের নবম প্রজন্মের কোর আই-৯ ৯৯০০কে প্রসেসর, যার গতি সর্বোচ্চ ৫ গিগাহার্জ। গ্রাফিক্স হিসেবে এতে ব্যবহৃত হয়েছে এনভিডিয়ার কোয়াড্র আরটিএক্স ৪০০০ জিপিইউ।

নাইট্রো সেভেন

গেমার জন্য এসার নিয়ে এসেছে গেমিং ল্যাপটপের নতুন সিরিজ নাইট্রো সেভেন। ভারী গেম খেলার উপযোগী এই ল্যাপটপ ৭ ঘণ্টা পর্যন্ত ব্যাটারি ব্যাকআপ সুবিধা দেবে। গেমিংয়ে সর্বোচ্চ পারফরম্যান্স নিশ্চিতে এই ল্যাপটপে রয়েছে নবম প্রজন্মের ইন্টেল কোর আই-৭ প্রসেসর এবং এনভিডিয়ার অত্যাধুনিক গ্রাফিক্স,।উচ্চ রেজ্যুলেশনের ডিসপ্লে সম্পন্ন এই ল্যাপটপের স্ক্রিন ১৫.৬ ইঞ্চি। স্মুথ ও ব্লার ফ্রি গেমিং উপভোগে ডিসপ্লের রিফ্রেশ রেট ১৪৪ হার্জ ও রেসপন্স টাইম ৩ মিলি সেকেন্ড। ডিসপ্লেতে মাত্র ৭.৪৮ মিলিমিটার পাতলা ব্যাজেল থাকায় এর স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৭৮ শতাংশ। স্লিক ও মেটাল ডিজাইনে তৈরি নাইট্রো সেভেন গেমিং ল্যাপটপ খুবই স্লিম, পুরুত্ব মাত্র ১৯.৯ মিলিমিটার। এই ল্যাপটপগুলো ৩২ জিবি পর্যন্ত ডিডিআর৪ র‌্যাম এবং ২ টিবি পর্যন্ত এইচডিডি স্টোরেজে পাওয়া যাবে।

ট্রাভেলমেট এক্স ফাইভ

ট্রাভেল ল্যাপটপ হিসেবে এসারের নতুন আকর্ষণ ট্রাভেলমেট এক্স৫১৪-৫১ ল্যাপটপ। এটি এখন পর্যন্ত এসারের তৈরি সবচেয়ে হালকা ওজনের ট্রাভেল ল্যাপটপ। এটির ডিজাইন এমন ভাবে করা হয়েছে যেন ভ্রমণের সঙ্গী হিসেবে স্বাচ্ছন্দ্য পাওয়া যায়। ম্যাগনেসিয়াম অ্যালোয় দিয়ে তৈরি হওয়ায় ল্যাপটপটি যেমন প্রিমিয়াম বিল্ড কোয়ালিটির যেমন ওজনেও হালকা এবং এর আকর্ষণীয় কাঠামো একই পুরুত্বের অ্যালুমিনিয়ামের তুলনায় শক্তিশালী। ওজন মাত্রা ৮৯০ গ্রাম এবং ০.৫৮ ইঞ্চি পুরুত্বের হওয়ায় ল্যাপটপটি ভ্রমণে স্বাচ্ছন্দ্যে বহন উপযোগী। ১০ ঘন্টা পর্যন্ত ব্যাটারি ব্যাকআপ থাকায়, প্রফেশলানরা দীর্ঘ যাত্রায় নিশ্চিতে কাজ করতে পারবেন। টানা দুইদিন চার্জ দেওয়া ছাড়াই ল্যাপটপটি ব্যবহার করা যাবে।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, বাংলাদেশের বাজারে স্টুডেন্ট, হোম ইউজার, ক্রিয়েটর, প্রফেশনাল এবং গেমারদের জন্য নানা মডেলের মিডরেঞ্জ এবং প্রিমিয়াম কোয়ালিটির ল্যাপটপ, ট্যাবলেট কম্পিউটার, ডেস্কটপ কম্পিউটার, মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টর, কম্পিউটার মনিটর, সুপার কম্পিউটার, আইওটি ডিভাইস, সুপার সিটি সলিউশ্যন নিয়ে আসার পরিকল্পনা রয়েছে এসারের।

বাংলাদেশে এসারের পাঁচটি সার্ভিস সেন্টার রয়েছে। এগুলো ঢাকা, খুলনা, সিলেট, রংপুর এবং সৈয়দপুরে অবস্থিত।

ভিডিওতে দেখুন বিস্তারিত:


পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএম

ল্যাপটপ
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত