Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • শুক্রবার, ২১ জুন ২০১৯, ৭ আষাঢ় ১৪২৬
  • ||

ঈদ স্পেশাল ছয় রেসিপি

প্রকাশ:  ০৫ জুন ২০১৯, ১২:৩০ | আপডেট : ০৫ জুন ২০১৯, ১২:৫৬
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক
প্রিন্ট icon

ঈদ মানেই একটু অবসর, পরিবারের সঙ্গে আনন্দময় সময় কাটানো। এ সময় বিশেষ খানাপিনা না থাকলে কি চলে? বছরের অন্য সময় তো ব্যস্ততায় দিন কেটে যায়, ঈদের অবসরে নিজের হাতে বিশেষ বিশেষ আইটেম রান্না করে চমকে দিতে পারেন প্রিয়জনকে।

এই ঈদে ঘর বসে রান্নার জন্য দশ রকম মজাদার খাবারের রেসিপি নিচে দেওয়া হলো।

মাটন কোপ্তা বিরিয়ানি

মাটন কোপ্তা বিরিয়ানি

উপকরণ

পোলাওয়ের জন্য ; বাসমতি চাল চার কাপ, লবঙ্গ সাতটি, সবুজ এলাচ পাঁচটি, শাহি জিরা এক চা চামচ, দারুচিনি দুই টুকরা, দুধে ভেজানো জাফরান সামান্য, লবণ স্বাদমতো।

কোপ্তার জন্য: খাসির মাংসের কিমা ৫০০ গ্রাম, পেঁয়াজ বাটা এক টেবিল চামচ, গরম মসলার গুঁড়া এক চা চামচ, আদা বাটা এক টেবিল চামচ, রসুন বাটা এক টেবিল চামচ, ক্রিম এক টেবিল চামচ, মরিচের গুঁড়া এক চা চামচ, নারিকেল কুচি এক চা চামচ, ধনিয়াপাতা কুচি এক কাপ, বেসন এক টেবিল চামচ, দুধে ভেজানো পাউরুটি এক টুকরা, তেল পরিমাণমতো, লবণ স্বাদমতো।

গ্রেভির জন্য: তেল আধা কাপ, কাঁচামরিচ কুচি দুটি, পেঁয়াজ কুচি একটি, টমেটো কুচি দুটি, আদা বাটা এক টেবিল চামচ, রসুন বাটা এক টেবিল চামচ, জিরা আধা চা চামচ, হলুদ গুঁড়া সামান্য টকদই তিন টেবিল চামচ, গরম মসলা গুঁড়া আধা চা চামচ, মরিচের গুঁড়া দুই চা চামচ, ধনিয়াপাতা কুচি এক কাপ, লবণ স্বাদমতো।

প্রণালি

পোলাও : প্রথমে চাল ভালোভাবে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। একটি প্যানে পানি দিয়ে এর মধ্যে লবঙ্গ, সবুজ এলাচ, শাহি জিরা, দারুচিনি ও লবণ দিয়ে নেড়ে দিন। পানি ফুটতে শুরু করলে এর মধ্যে চাল দিয়ে নেড়ে ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিন। চাল সেদ্ধ হয়ে গেলে কিছুক্ষণ দমে রাখুন। এতে পোলাও ভালোভাবে সেদ্ধ হবে।

কোপ্তা : প্রথমে একটি ব্লেন্ডারে খাসির মাংসের কিমা, পেঁয়াজ বাটা, গরম মসলার গুঁড়ো, আদা বাটা, রসুন বাটা, ক্রিম, মরিচের গুঁড়ো, নারকেল কুচি, ধনেপাতা কুচি, বেসন, দুধে ভেজানো পাউরুটি ও লবণ দিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করুন। এই মিশ্রণ ৩০ থেকে ৪০ মিনিট ফ্রিজে মেরিনেটের জন্য রেখে দিন। এবার হাতে তেল লাগিয়ে এই মিশ্রণ দিয়ে গোল গোল কোপ্তা তৈরি করে নিন। আবারও ফ্রিজে রাখুন।

গ্রেভি : প্রথমে একটি প্যানে তেল দিয়ে তাতে জিরা, পেঁয়াজ কুচি, আদা বাটা ও রসুন বাটা দিয়ে কষাতে থাকুন। এখন এতে টমেটো কুচি, কাঁচামরিচ কুচি, হলুদ গুঁড়ো, গরম মসলা গুঁড়ো, মরিচ গুঁড়ো ও লবণ দিয়ে নাড়তে থাকুন। সামান্য পানি দিন। এখন এতে কোপ্তাগুলো দিয়ে দিন। টক দই দিয়ে নেড়ে ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিন। ২০ মিনিট রান্না করুন। সবশেষে ধনেপাতা কুচি দিয়ে নেড়ে চুলা থেকে নামিয়ে ফেলুন।

বিরিয়ানি :একটি বড় প্যানে প্রথমে ঘি দিন। এবার অল্প পোলাও দিন। এর ওপর অল্প কোপ্তার গ্রেভি দিন। আবারও পোলাও ও কোপ্তা লেয়ার করে দিন। এভাবে কয়েক লেয়ার হওয়ার পর ওপরে দুধে ভেজানো জাফরান ছড়িয়ে দিন। সাত থেকে আট মিনিট মাঝারি আঁচে রান্না করুন। এরপর ১০ মিনিট দমে রাখুন। ব্যস, তৈরি হয়ে গেল সুস্বাদু মাটন কোপ্তা বিরিয়ানি।

বিফ স্টেক

বিফ স্টেক

উপকরণ

হাড় ছাড়া গরুর মাংস ৫০০ গ্রাম, আদা পেস্ট আধা চা চামচ, হট টমেটো সস ১/২ কাপ, গোল মরিচ গুঁড়া সামান্য, রসুন পেস্ট আধা চা চামচ, জিরার গুঁড়া সামান্য স্টেক স্পাইস পরিমাণ মতো, ওলিভ অয়েল ২ টেবিল চামচ, লবণ ও মরিচ-স্বাদ মতো।

প্রণালি

মাংস পছন্দ মতো কেটে ধুয়ে নিন। একটি পাত্রে সব উপকরণ নিয়ে ভালোভাবে পেস্ট বানিয়ে নিন। এবার স্টেকগুলো মসলা মেখে মেরিনেট করে ৩ থেকে ৪ ঘণ্টার জন্য ফ্রিজে রেখে দিন। গ্রিলে স্টেক দিয়ে মাঝারি তাপমাত্রায় গ্রিল করুন। ওভেনেও গ্রিল করে নিতে পারেন। লক্ষ্য রাখবেন স্টেক যেন খুব শক্ত না হয়ে যায়। এরপর স্টেকের ওপর গ্রেভি দিয়ে আপনার পছন্দ মতো সাজিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার স্টেক।

বাটার চিকেন

বাটার চিকেন

উপকরণ

মুরগির মাংস দেড় কেজি, টক দই সিকি কাপ, টমোটো পিউরি দেড় কাপ, আদা বাটা ১ টেবিল-চামচ, শুকনা মরিচ কুচি ১ টেবিল-চামচ, ধনে-জিরা ও কালো গোলমরিচ একসঙ্গে ভেজে গুঁড়া করা ১ চা-চামচ, মাখন ৫০ গ্রাম, ক্রিম ১ টিন (দুধের সর দিলেও চলবে), লবণ প্রয়োজনমতো, সয়াবিন তেল সিকি কাপ।

প্রণালি

মুরগি সিকি কাপ তেলে আদা বাটা, শুকনা মরিচ কুচি ও লবণ দিয়ে হালকা করে ভাজতে হবে। এবার টক দই, টমোটো পিউরি ও ভাজা মসলা দিয়ে রান্না করতে হবে। মসলা ঘন হয়ে এলে দুধের সর বা ক্রিম দিয়ে দমে বসাতে হবে। এবার মাখন অন্য পাত্রে গুলে মুরগির পাত্রে ঢেলে দিতে হবে। দুই মিনিট পর নামিয়ে পরিবেশন করুন।

থাই চিকেন ক্যাশু

থাই চিকেন ক্যাশু

উপকরণ

মুরগির মাংস আধা কেজি, তিন টেবিল চামচ অলিভ অয়েল, লবণ ও গোল মরিচ গুঁড়া স্বাদমতো, আড়াই চা চামচ মরিচ বাটা, আধা কাপ চিকেন স্টক, ক্যাপসিকাম অর্ধেকটা, ২ থেকে ৩টা পেঁয়াজ, ১/৪কাপ ওয়েস্টার সস, ১ টেবিল চামচ চিনি, ৪টা শুকনো মরিচ, কাজু বাদাম আধা কাপ। প্রণালি

মুরগির মাংস পাতলা টুকরো করে কেটে নিন। ক্যাপসিকাম চিকন চিকন ফালি করে কেটে নিন। মাঝারি তাপে কড়াইতে ১টেবিল চামচ তেল গরম করে অর্ধেকটা মুরগির মাংস, লবণ ও মরিচ দিয়ে নাড়ুন। ভাজা হয়ে গেলে মুরগির মাংস একটা বাটিতে তুলে রেখে আবারো ১টেবিল চামচ তেল নিয়ে একইভাবে বাকি মুরগির মাংস ভাজুন। এবার ১টেবিল চামচ তেল আলাদা একটা কড়াইতে গরম করুন। মরিচ বাটা,চিকেন স্টক,ক্যাপসিকাম,ওয়েস্টার সস,চিনি, পেঁয়াজ দিয়ে ৩ মিনিট কড়া তাপে নাড়ুন। তাপ কমিয়ে ভাজা মুরগির মাংসগুলো দিয়ে ৪ থেকে ৫ মিনিট তাপ দিন। সবজিগুলো সেদ্ধ হলে নামিয়ে গরম গরম খিচুরি,পোলাওয়ের সঙ্গে পরিবেশন করুন মজাদার থাই ক্যাশু চিকেন।

কাটা মসলার বিফ কারি

কাটা মসলার বিফ কারি

উপকরণ

গরুর মাংস ১ কেজি, টক দই আধা কাপ, মরিচ বাটা ১ চা-চামচ, আদা-রসুন-পেঁয়াজ বাটা ২ টেবিল চামচ, লবণ দেড় চা-চামচ, সয়াবিন তেল আধা কাপ, পেঁয়াজ কাটা ১ কাপ, আদা কাটা ২ টেবিল চামচ, রসুন কাটা ১ টেবিল চামচ, শুকনা মরিচ কাটা ১০টা, তেজপাতা ৩টা, গরম মসলা ৬ টুকরো, আস্ত গোলমরিচ ১০টি।

প্রণালি

প্রথমে একটি কড়াইয়ে গরুর মাংস, টক দই, মরিচ বাটা, আদা-রসুন-পেঁয়াজ বাটা ও লবণ দিয়ে ভালো করে মেখে ৩০ মিনিট রেখে দিন। এবার চুলায় একটি কড়াইয় তেল দিন, তেল গরম হলে পেঁয়াজ কাটা, রসুন কাটা, আদা কাটা, শুকনা মরিচ কাটা, তেজপাতা, গরম মসলা, আস্ত গোলমরিচ দিয়ে মসলা কষিয়ে মাখানো গরুর মাংস ও পানি দিয়ে নাড়াচাড়া করে ঢাকনা দিয়ে ঢেকে ২০ মিনিট রান্না করুন। এবার ঢাকনা তুলে নাড়াচাড়া ঢেকে আরো ১৫ মিনিট রান্না করুন। ১৫ মিনিট পর ঢাকনা তুলে মাখামাখা করে নামিয়ে নিন। তৈরি হয়ে যাবে কাটা মসলা দিয়ে গরুর মাংস। সুন্দর করে বেরেস্তা দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

মাটন কোরমা

মাটন কোরমা

উপকরণ

খাসির মাংস দুই কেজি, পেঁয়াজবাটা আধা কাপ, রসুনবাটা দুই চা-চামচ, আদাবাটা এক টেবিল-চামচ, দারুচিনি বড় চার টুকরা, তেজপাতা দুটি, লবণ দুই চা-চামচ, ঘি আধা কাপ, কাঁচা মরিচ আটটি, কেওড়া দুই টেবিল-চামচ, তরল দুধ দুই টেবিল-চামচ, এলাচি চারটি, টক দই আধা কাপ, চিনি চার চা-চামচ, দেশি পেঁয়াজকুচি আধ কাপ, লেবুর রস এক টেবিল-চামচ, জাফরান আধা চা-চামচ, (দুই টেবিল-চামচ তরল দুধে ভিজিয়ে ঢেকে রাখুন)।

প্রণালি

মাংস টুকরো করে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। সব বাটা মসলা, গরম মসলা, টক দই, সিকি কাপ ঘি ও লবণ দিয়ে মেখে হাত ধোয়া পানি দিয়ে ঢেকে মাঝারি আঁচে চুলায় বসিয়ে দিন। মাংস সেদ্ধ না হলে আরও পানি দিন। পানি অর্ধেক টেনে গেলে কেওড়া ও কাঁচা মরিচ দিয়ে আবার হালকা নেড়ে ঢেকে দিন। ১৫ থেকে ২০ মিনিট পর পাশের চুলায় বাকি ঘি গরম করে পেঁয়াজকুচি সোনালি রং করে ভেজে মাংসের হাঁড়িতে দিয়ে বাগার দিন। তারপর চিনি দিয়ে নেড়ে ঢেকে দিন। পাঁচ মিনিট পর ঢাকনা খুলে দুধে ভেজানো জাফরান ওপর থেকে ছিটিয়ে দিয়ে আরও পাঁচ মিনিট ঢেকে রাখুন। তারপর ঢাকনা খুলে লেবুর রস দিয়ে হালকা নেড়ে আঁচ একেবারে কমিয়ে তাওয়ার ওপর ঢেকে প্রায় ২০ মিনিট থেকে আধা ঘণ্টার মতো দমে রাখুন। যখন কোরমা মাখা মাখা হয়ে বাদামি রং হবে এবং মসলা থেকে তেল ছাড়া শুরু করবে, তখন নামিয়ে পরিবেশন করুন।

নবাবি মগজ ভুনা

নবাবি মগজ ভুনা

উপকরণ

গরুর মগজ ১টি, হলুদ আধা চা-চামচ , আদা বাটা ১ টেবিল চামচ ও ১ চা-চামচ, রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ ও আধা চা চামচ, গরম মসলা গুঁড়া আধা চা-চামচ, পানি পরিমাণ মতো, পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ, শাহী জিরা আধা চা-চামচ, মরিচ গুঁড়া ১ চা-চামচ, দই সিকি কাপ, ধনে পাতা কুচি ২ টেবিল চামচ, ঘি সিকি কাপ।

প্রণালি

প্রথমে গরুর মগজে হলুদ, আদা ও রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ এবং গরম মসলা গুঁড়া মাখিয়ে পরিমাণ মতো পানি দিয়ে সেদ্ধ করে নিন। সেদ্ধ হবার পড়ে মগজগুলো ছোট ছোট টুকরো করুন। এবার একটি কড়াইয়ে ঘি গরম করে তাতে শাহী জিরার ফোরন দিন। এরপর এর মধ্যে পেঁয়াজ দিয়ে ভাজুন। আদা বাটা ১ চা-চামচ ও রসুন বাটা আধা চা-চামচ, মরিচ গুঁড়া, দই দিয়ে নাড়াচাড়া করে তাতে সেদ্ধ করা মগজ ঢেলে কষিয়ে পরিমাণ মতো পানি দিন। এবং নাড়াচাড়া করুন। মাখা মাখা হলে ধনে পাতা কুচি দিয়ে নামিয়ে ফেলুন। হয়ে গেল নবাবি মগজ ভুনা।

রেসিপি
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত