• বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
  • ||

ইতালির জাতীয় নির্বাচন নিয়ে উদ্বিগ্ন অভিবাসীরা

প্রকাশ:  ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২১:৪১
প্রবাস ডেস্ক

২৫ সেপ্টেম্বর ইতালিতে বহুল আলোচিত ১৯তম জাতীয় সংসদ নির্বাচন। কে পাবেন ইতালির রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব। জনগণ কাকে দায়িত্ব দেবেন। নির্বাচনের পর ফলাফল ঘোষণা। সবার মাঝে একই প্রশ্ন।

স্থানীয় নাগরিক ও অভিবাসীদের অনেক প্রত্যাশা নিয়ে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে এ নির্বাচন। দেশজুড়ে নির্বাচনী প্রচারণা শেষ। প্রায় ৪ কোটি ৬১ লাখ ২৭ হাজার ৫১৪ জন ভোটাররা তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোটের মাধ্যমে নির্বাচন করতে সুযোগ পাচ্ছেন। এর মধ্যে রয়েছে ইতালীয় নাগরিক নিজ দেশের বাইরে যারা বসবাস করছেন।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম বলছে, ইতালির বাইরে অবস্থান করছেন ৪৭ লাখ ৪১ হাজার ৭৯০ জন ইতালীয় নাগরিক। সেই হিসাব অনুযায়ী মোট ভোটার সংখ্যা দাঁড়ায় ৫ কোটি ৮ লাখ ৭৯ হাজার ৩০৪ জন।

রোববার সকাল ৭টা থেকে স্থানীয় রাত ১১টা পর্যন্ত ভোট হবে। একজন প্রার্থী দুটি করে ভোট দিতে পারবেন তার পছন্দের প্রার্থীকে। একটি উচ্চকক্ষের (সেনাতো), অন্যটি নিম্নকক্ষের (ক্যামেরা)। এই নির্বাচনে ডানপন্থিরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে মাঠে নেমেছেন। দেশটির তিনটি আলোচিত দল একত্রে হয়েছে। এর মধ্যে জর্জা মেলোনি, প্রেসিডেন্ট ফ্রাতেল্লি দি ইতালিয়া, ফরজা ইতালিয়া প্রেসিডেন্ট সাবেক প্রধানমন্ত্রী বের্লুসকুনি এবং লেগা সাধারণ সম্পাদক সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মাত্তেও সালভিনি। এর ফলে নির্বাচনে জটিল সমীকরণ দেখা যাচ্ছে।

ডানপন্থি দলগুলো একজোট হয়েছে। আর বামপন্থি ও ফাইভ স্টার মুভমেন্ট কেউ কারো সাথে ঐক্যজেট করতে চাচ্ছে না বলে এ নিয়ে জনগণের মাঝে দেখা দিয়েছে চরম উৎকন্ঠা। কী হচ্ছে এবারের নির্বাচনে। কে হবেন ইতালির পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী। ডানপন্থিদের ঐক্যের কারণে বিভিন্ন মহল ধারণা করছেন ডানপন্থিরা সরকার গঠন করবে।

যার ফলে এই ভোট নিয়ে বাংলাদেশিসহ অন্য দেশের অভিবাসীরা উদ্বিগ্ন। তারা মনে করছেন ডানপন্থিরা এভাবেই বিদেশিদের পছন্দ করে না তারা ক্ষমতায় আসলে বিভিন্ন সমস্যায় পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। বর্ণবাদীরা গর্জে উঠবে। পাশাপাশি আইন আরও কঠোর করবে। ডানপন্থিরা নির্বাচনী প্রচারণায় বিদেশিদের নিয়ে কটাক্ষ করে যাচ্ছেন। তারা বিদেশিদের জন্য আরও কঠোর হওয়ার ইঙ্গিত দেন নির্বাচনী প্রচারণায়।

অন্যদিকে বামপন্থি দল ডেমোক্রেটিক (পিডি) থেকে নির্বাচন করছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক এনরিকো লেত্তা, ফাইভ স্টার মুভমেন্ট জুসেপ্পে কোন্তি, আছিওনে ইতালিয়া ভিভা কারলো কালেনদা এবং ডান ও বাম দলের সমর্থনসহ আরও অন্যান্য দলের প্রার্থী রয়েছে।

এবারের নির্বাচনে পুরুষ ভোটের চেয়ে নারী ভোটার সংখ্যা বেশি। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটের জরিপের তথ্য অনুযায়ী নারী ভোটার শতকরা ৫১.৭৪ ভাগ এবং পুরুষ ভোটার ৪৮.২৬ ভাগ। এর মধ্যে সবচেয়ে জনবহুল রোম শহর। রাজধানী রোমে ২০ লাখ ৫৫ হাজার ৩৮২ জন পুরুষ ভোটার। শতকরা ৪৬.৬৫ ভাগ পুরুষ এবং নারী ভোটার ২৬ লাখ ৮২ হাজার ৯৪ জন। শতকরা ৫৩.৩৫ ভাগ।

এদিকে প্রথমবারের মতো আছিওনে ভিভা ইতালিয়া দলের পক্ষে ইতালির বাইরে উচ্চকক্ষের (সেনাতো) প্রার্থী হয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ইতালিয়ান নাগরিক গোলাম মাওলা টিপু। তিনি লন্ডনে বসবাস করছেন। সেখান থেকে এ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছেন।

এ ব্যাপারে তিনি বলেন, আমি খুব আশাবাদী প্রবাসী বাংলাদেশিসহ অন্যান্য অভিবাসীরা আমাকে ভোট দিলে এ নির্বাচনে জয়লাভ করার প্রবল প্রত্যাশা করছি। এবারের নির্বাচনে একমাত্র বাংলাদেশি প্রার্থী তিনি তাই সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।

ইতালি,জাতীয় নির্বাচন,উদ্বিগ্ন,অভিবাসী
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close