• শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
  • ||

দুবাইয়ের আরেক বিস্ময় 'ক্রিক টাওয়ার'

প্রকাশ:  ১৬ জুন ২০২২, ১৮:৫৬
কে এম জাহেদ, ইউএই প্রতিনিধি

দুবাই হচ্ছে স্বপ্নের শহর। অন্ধকার নেমে আসলেই ভিন্ন রূপে হাজির হয় এ শহর | অত্যাধুনিকতা এবং নান্দনিকতার জন্য দুবাই শহরটার পরিচিতি আজ বিশ্বজুড়ে। এরপরও থেমে নেই। এবার বিশ্বকে তাক লাগিয়ে নতুন আরেক বিস্ময় নিয়ে হাজির হচ্ছে দুবাই। সংযুক্ত আরব আমিরাতের বাণিজ্যিক রাজধানী দুবাইয়ে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু ভবন ‘দুবাই ক্রিক টাওয়ার’ যার উচ্চতা ছাড়িয়ে যাবে বুর্জ খলিফাকে।

জানা যায়, ২০১৬ সালের অক্টোবরে আমিরাতের ভাইস-প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রী এবং দুবাইয়ের শাসক শেখ মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাকতুম টাওয়ারটির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। এর মাধ্যমে নির্মাণ কাজ শুরু হয়। এটি আমিরাতের সবচেয়ে বড় প্রকল্প। ২০২১ সালে নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার কথা থাকলেও মহামারি করোনাভাইরাসের জন্য পিছিয়ে চলতি বছরে শেষ হওয়ার কথা বলছে বাস্তবায়নকারী প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তারা।

বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু ভবনটি রয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে। ‘বুর্জ খলিফা’ নামের ভবনটির উচ্চতা ২ হাজার ৭১৭ ফুট। তবে এ রেকর্ড ভেঙে দিতে দুবাইতেই তৈরি হচ্ছে আরও বেশি উচ্চতার ভবন। এর উচ্চতা হবে ৩ হাজার ৪৫ ফুট বা ২১০ তলা। টাওয়ারটির প্রারম্ভিক খরচ ৩.৬৭ বিলিয়ন বা ইউএস ১ বিলিয়ন এবং ধারণা করা হচ্ছে। নির্মাণ শেষ হলে এটিই হবে বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু আকাশচুম্বী ভবন।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ক্রিক হারবার টাওয়ার নিয়ে দুবাইয়ের উচ্চাভিলাষ বুর্জ খলিফার চেয়েও বেশি। এটিকে ঘিরে গড়ে তোলা হবে ‘ক্রিক হারবার সিটি’। এই শহরে আবাসন হবে প্রায় ৪ লাখ ৭০ হাজার মানুষের। ক্রিক হারবার সিটির সব ভবনই হবে অনেক উচ্চতার যার মধ্যমণি হয়ে দাঁড়িয়ে থাকবে টাওয়ারটি। আবাসন খাতের প্রতিষ্ঠান এমার এই প্রকল্পের কাজ পেয়েছে।

এ ছাড়া আফ্রিকা ও ভারতের প্রায় ৩০ কোটি গ্রাহক আছে তাদের। তাই বলা যেতে পারে, প্রায় ৫০ কোটি মানুষের চাহিদা আছে এখানে। দুবাইয়ের শাসকদের নীতি হলো তৈরি করো, গ্রাহক আসবেই। বর্তমানে সারা বিশ্বের প্রায় ২০ লাখ মানুষের আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু দুবাই। এই শহরের সবচেয়ে উচ্চাকাঙ্ক্ষী প্রকল্প হলো ক্রিক হারবার।

পূর্বপশ্চিম/কেএম/ এনই

দুবাই
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close