• বুধবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
  • ||

অন্তর্জালেই সালমান ফয়সালের স্বপ্ন

প্রকাশ:  ২০ জুলাই ২০১৯, ০০:৩৮ | আপডেট : ২০ জুলাই ২০১৯, ০২:০০
মহিব আল হাসান
সালমান ফয়সাল। ছবি : সংগৃহীত

পরিচয়টা দীর্ঘ কয়েক বছরের। এই কয়েক বছরের মধ্যেই তার বেশকিছু প্রতিভা চোখে পড়েছে। খেলার মাঠ থেকে শোবিজ অঙ্গনসহ তার রাজত্ব ডিজিটাল প্লাটফর্ম।

শুরুটা একটি প্রাইভেট ব্যাংক থেকে হলেও চরম আত্মবিশ্বাস নিয়ে গতানুগতিক গন্ডি বাধা ব্যাংকের চাকুরিতে সীমাবদ্ধতা না থেকে যোগদেন ডিজিটাল প্লাটফর্ম ইন্টারনেট দুনিয়ায়। এতে যোগ দিয়েই নতুন করে ইন্টারনেট মাধ্যমে তরুণদের সাবলম্বী করে তোলার একরাশ প্রয়াস সৃষ্টি করেছেন। সেই সঙ্গে লক্ষ সাতচল্লিশ হাজার বর্গমাইলের ছোট্ট বাংলাদেশকে বিশ্বব্যাপী তুলে ধরার প্রত্যয় নিয়েছেন তিনি। বলছি কক্সবাজার থেকে ওঠে আসা সাহসী তরুণ সালমান ফয়সালের কথা।

সালমান ফয়সাল। ছবি : সংগৃহীত

বর্তমান সময়ে তরুণদের ইন্টারনেটের মাধ্যমে পৃথিবীতে নিজেকে পরচিত করা সেই সঙ্গে গতানুগতিক গন্ডি বাধা নিয়মে সময় নষ্ট না করে মেধা শ্রমকে কাজে লাগিয়ে কীভাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করা যায় সেসব বিষয়ে কথা বলেছেন সালমান ফয়সাল।

তারই কথোপকথনের চুম্বক অংশ পূর্বপশ্চিমবিডি ডট নিউজের পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো:-

পূ্র্বপশ্চিমবিডি : ডিজিটাল প্লাটফর্ম নিয়ে কাজের শুরুটা জানতে চাই...

সালমান ফয়সাল : আমার, ডিজিটাল প্লাটফর্মে কাজের শুরুর একমাত্র শক্তি ছিল আত্মবিশ্বাস। মূলত আমি দেশের প্রতিভাবান যুবকদের একটি ডিজিটাল প্লাটফর্মে করে দেওয়ার স্বপ্ন দেখেই এতে আমি যাত্রা শুরু করি। কারণ বাংলাদেশে এখন নেট দুনিয়ার ব্যাপক পরিচিত পেয়েছে। সেই সাথে বতর্মান সময়ে এসে প্রত্যেকে ইন্টারনেট ব্যবহার করছেন। শুধু তাদেরকে দিক নির্দেশনা দিলেই তারা বিশ্বব্যাপী নিজেদের পরিচিত করতে পারবেন। এই বিষয়গুলো ভেবে আমি কাজ শুরু করি।

বিশ্বসেরা ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানের সঙ্গে সালমান ফয়সাল। ছবি: সংগৃহীত

পূ্র্বপশ্চিমবিডি : ডিজিটাল প্লাটফর্ম তুরুণদের মধ্যে কীভাবে ছড়ানো যায় ?

সালমান ফয়সাল : ডিজিটাল প্লাটফর্ম তরুণদের আত্মানির্ভশীল হওয়ার সহজ পথ! ইন্টারনেট হাতের মুঠোয় আসায় আমাদের তরুণরা খুব সহজে তাদের ক্যারিয়ার গড়তে পারবেন। তবে জন্য প্রাতিষ্ঠানিক ওয়ার্কশপের গুরত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। সেক্ষেত্রে সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ভূমিকা পালন করলে তরুণদের ইন্টারনেট মাধ্যমে নিয়ে আসা যাবে। যেটা গতানুগতিক এবং একটা গন্ডির বাহিরে থেকে কাজ করে নিজেকে স্বাধীনভাবে পরিচালনা করার সমান।

সালমান ফয়সাল। ছবি : সংগৃহীত

পূ্র্বপশ্চিমবিডি : কোন পথের স্বপ্ন দেখেন?

সালমান ফয়সাল : বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন অনেক দূর এগিয়ে যাবে। এই শতাব্দীর তরুণরা অনেক প্রতিভাবান। তাদের ডিজিটাল প্লাটফর্মে কাজ করার সুযোগ তৈরি করে দেওয়া। ইতোমধ্যে আমি ইন্টারনেট অ্যাপস ভিত্তিক প্লাটফর্ম লিংকাসে কাজ করছি। সেখানে অনেক যুবকের কর্মসংস্থান হয়েছে। এছাড়া মানুষের বিনোদনের একটা জায়গা তৈরি হয়েছে এই অ্যাপে। আমি স্বপ্ন দেখি চাকরি না পাওয়া হাজারো তরুণরা নিজেকে সমাজের বোঝা মনে না করে ডিজিটাল প্লাটফর্মে এসে কাজ শুরু করুক।

পূ্র্বপশ্চিমবিডি : বাস্তবতার সঙ্গে তুলনা করলে কী বলবেন?

সালমান ফয়সাল : বাস্তবতা জানতে চাইলে আমি বলবো, আমাদের ইন্টারনেট সেবা দেওয়া হয়েছে। কিন্তু ইন্টারনেট ভিত্তিক সেবা আমাদের নেই বললেই চলে। যেসকল সেবাগুলো বাংলাদেশে আছে তা সবার জন্য সহজলভ্য নয়। আর যে সেবাগুলো আছে সেগুলো সারাদেশে না তবে দেশের দুই একটা বড় বড় শহরে। যে কারণে সারাদেশের মানুষ ইন্টারনেট প্লাটফর্মের সেবা নিতে পারে না। বিষয়গুলো সরকারকে পদক্ষেপ নিতে হবে। যাতে করে আমাদের সারাদেশে ইন্টারনেট সেবা স্বল্পমূল্যে পৌঁছে যায় সবার কাছে।

সালমান ফয়সাল। ছবি : সংগৃহীত

পূ্র্বপশ্চিমবিডি : পৃথিবীর সঙ্গে ছোট্ট বাংলাদেশ কী পারবে প্রতিযোগিতা করতে?

সালমান ফয়সাল : বরাবরই বাংলাদেশ পিছিয়ে থাকলেও বর্তমান সরকারের নানা উদ্যোগে ইন্টারনেট -কমার্স এখন আগের চেয়ে অনেক দূর এগিয়ে। কারণ পৃথিবীর সঙ্গে মিলিয়ে চলতে বাংলাদেশ সরকার এই খাতে রাজস্ব মওকুফ করেছেন। ফলে নতুন উদ্যোক্তারা সহজে আগ্রহী হচ্ছেন। আমাদের নতুন ভোরে নতুন স্বপ্ন দেখার মাঝেই পৃথিবীতে আমার বাংলাদেশের পরিচয় ঘটবে। প্রতিযোগিতা করবে বিশ্ববাজারে।

সালমান ফয়সাল। ছবি : সংগৃহীত


পূ্র্বপশ্চিমবিডি/ এমএইচ

সালমান ফয়সাল
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত