• সোমবার, ৩০ জানুয়ারি ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯
  • ||

অপু বিশ্বাস ফোনে আমার সঙ্গে বাজেভাবে কথা বলেছিলেন: বুবলী

প্রকাশ:  ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:১৬ | আপডেট : ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:৩৪
বিনোদন ডেস্ক

শাকিব খানের সঙ্গে বিয়ে ও সন্তানের খবর প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই সম্পর্ক ভালো যাচ্ছে না শাকিব খান ও বুবলীর। কিছুদিন ধরে পাল্টাপাল্টি মন্তব্য করছেন দুজনে। এসব মন্তব্যের ভেতরেই বুবলী এড়িয়ে চলছিলেন গণমাধ্যম। এবার গণমাধ্যম কর্মীদের এড়িয়ে চলার জবাব দিলেন বুবলী। শুধু তাই নয়, ভিডিও বার্তায় বুবলী জানালেন, তার সন্তানকে নিয়ে সংগ্রাম, শাকিব খানের সঙ্গে তার সম্পর্ক ও তার প্রতি অপু বিশ্বাসের অভিযোগের বিষয়েও।

বুবলীকে এক তরফাভাবে দোষী করার বিষয়ে তিনি বলেন, ‘কোনো একটা ঘটনায় কেউ শতভাগ ভুল আবার কেউ শতভাগ নির্ভুল- এটা কি কখনো হয়? শতভাগ নির্ভুল- আসলে কতটা হয় আমি জানি না। ২০১৬ সালে আমি যখন শাকিব খানের সঙ্গে কাজ শুরু করি তখন ওনার আগের কোনো সম্পর্ক ছিল কিনা সেটা আমি জানতাম না। এমনকি পুরো বাংলাদেশের কেউই সেটা জানতো না।’

‘অপু বিশ্বাসের সঙ্গে শাকিব খানের সংসার ভাঙার পেছনে বুবলীর হাত রয়েছে’- অপু বিশ্বাসের এমন অভিযোগের জবাবে বুবলী বলেন, ‘অপু বিশ্বাসের সঙ্গে যখন শাকিব খান সম্পর্কে ছিলেন তখন কিন্তু ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে আমি আসিও নাই। পরে যখন শাকিব খানের সঙ্গে ছবি করেছি তখন কিন্তু শাকিব খানের সঙ্গে অপু বিশ্বাসের দূরত্ব ছিল। শুরুতে শাকিব খানের সঙ্গে আমার সম্পর্ক প্রফেশনাল হলেও পরে শাকিব খান চাচ্ছিলেন সেটেল হতে। তো সেইভাবেই সব হয়ে যায়। কিন্তু তখন আমি বা কেউই আসলে জানতো না শাকিব-অপুর ব্যাপারটা। তাদের বেবি অ্যাবরশনসহ নানা ঘটনা ঘটেছে। এসবের মধ্যে তো আমি ছিলাম না। অপু বিশ্বাস নিজেও বলেছেন, যে তার সঙ্গে শাকিব খানের যোগাযোগ ছিল না দীর্ঘদিন। আর একটা সুখী সংসারে কখনো কেউ বলে না বেবি চাও না সংসার। এমন কন্ডিশন তো সুখী সংসারে থাকার কথা না। তো এসবের মধ্যে আমি না থাকলেও আমাকে জড়িয়ে অভিযোগ করেছেন অপু বিশ্বাস। শুধু তাই নয়, আমাকে ফোন করে বাজে ভাষায় কথাও বলেছিলেন তিনি। কিন্তু এসবের মধ্যে আমি ছিলাম না। আমার কারণে কারও সংসার ভাঙেনি।’

তিনি আরও বলেন, ‘আজ শাকিব খানের সঙ্গে আমার সম্পর্ক দেখে বা সংসারে নানা ঝামেলা দেখে তারা বলতে চেষ্টা করেন ‘ইউ ডিজার্ভ ইট’। কিন্তু না, আমি কারও সংসারের অশান্তির কারণ হইনি। বা তিনি (অপু বিশ্বাস) যখন আত্মগোপনে ছিলেন তখনও কিন্তু আমি ছিলাম না। তারা দুজনেই ম্যাচিউর মানুষ। সেখানে কারও দ্বারা ক্ষতি হতে পারে বলে মনে করি না। এখন কেউ যদি সম্পর্ক ভালো না হওয়ায় আগের সম্পর্ক গোপন রেখে অন্য আরেকটা সম্পর্ক করে বা বিয়ে করে সেক্ষেত্রে যাকে বিয়ে করল- এটা কি তার দোষ হয়ে যায়? কেউ যদি একটা সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আরেকটা সম্পর্ক করতে চায়, তাহলে যার সঙ্গে সম্পর্ক করল এটা কি তার দোষ?’

বুবলীর সঙ্গে সম্পর্ক করার আগে কি বলেছিলেন শাকিব খান, সে বিষয়ে তিনি বলেন, ‘অপু বিশ্বাসের সঙ্গে সম্পর্কটা নিয়ে তিনি হ্যাপী ছিলেন না। শাকিব আমাকে পরবর্তীতে বলেছিলেন, আমি ওই সম্পর্কটা নিয়ে সুখী নই। উনি সে সময় অনেক কিছুই বলেছিলেন। কিন্তু সেসব কথা কারও কারও সম্মান রক্ষার্থে আগেও বলিনি, আজও বলব না। আর বিয়ের আগে আমি বারবার শাকিবকে বলেছি বিষয়টা। তিনি বলেছেন, এতদিন আমার আর অপুর মধ্যে এতকিছু হয়ে গেল তখন তো তুমি ছিলে না। তোমার কেন দোষ হবে? তো এই বিষয়গুলোতে তো আমার ইনভলবমেন্ট ছিল না।’

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ২০ জুলাই গোপনে বিয়ে করেন শাকিব খান ও শবনম বুবলী। ২০২০ সালের ২১ মার্চ তাদের ঘর আলো করে জন্ম নেয় পুত্রসন্তান বীর। কিন্তু সবকিছুই গোপন রেখেছিলেন তারা। এ বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর বুবলী শাকিব খানের সঙ্গে বিয়ে ও সন্তানের খবর প্রকাশ্যে আনেন। আর তারপর থেকেই তাদের সম্পর্ক নিয়ে চলছে কানাঘোষা। শোনা যাচ্ছে ইতোমধ্যে বিচ্ছেদও হয়ে গেছে তাদের।

বুবলী,শাকিব খান,অপু বিশ্বাস
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close