• বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
  • ||

শালীন-অশালীনের পার্থক্য আমি বুঝি: মধুমিতা

প্রকাশ:  ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:২৩
বিনোদন ডেস্ক

টালিউডের এ প্রজন্মের অভিনেত্রী মধুমিতা সরকার। বাংলাদেশের দর্শকদের কাছে অবশ্য তিনি ‘পাখি’ নামেই বেশি পরিচিত। কেননা স্টার জলসার ‘বোঝেনা সে বোঝেনা’ ধারাবাহিকে এই চরিত্রে অভিনয় করেই তিনি পশ্চিমবঙ্গের পাশাপাশি বাংলাদেশে পরিচিতি পান। কয়েক বছর পার হয়ে গেলেও এখনো তাকে ওই নামেই ডাকেন অনেক ভক্ত।

যদিও সেই পাখি আর এখনকার পাখির মধ্যে বিরাট পার্থক্য। মধুমিতা এখন বেশ খোলামেলা আর সাহসী। সেটা পর্দায় হোক কিংবা সোশ্যাল মিডিয়ায়। নিয়মিত সাহসী ছবি শেয়ার করে অনুসারীদের মাতিয়ে রাখেন তিনি। তবে এর জন্য শুনতে হয় নানা কটাক্ষও।

সম্পর্কিত খবর

    নিন্দুকদের এসব আক্রমণের বিপরীতে মধুমিতা কোনো জবাব দেন না। তবে এবার তিনি সংবাদমাধ্যমে বিষয়টি নিয়ে মন্তব্য করলেন। মধুমিতার ভাষ্য, ‘আমি জানি, কী ধরনের পোশাক পরি। শালীন-অশালীনের পার্থক্যও বুঝি। যারা আমাকে খারাপ কথা বলেন, তারা নিজেরা কতটা ঠিক বা ভুল সেই দিকটিও তাদের ভেবে দেখা উচিৎ।’

    সম্প্রতি জয়দীপ মুখোপাধ্যায়ের পরিচালনায় ‘উত্তরণ’ নামের একটি সিনেমায় অভিনয় করেছেন মধুমিতা। এটি নির্মিত হচ্ছে সুকান্ত গঙ্গোপাধ্যায়ের ‘বটতলা’ উপন্যাস অবলম্বনে। এতে একজন গৃহবধূর ভূমিকায় দেখা যাবে মধুমিতাকে। সিনেমাটির পোস্টার শেয়ার করে মধুমিতা ইনস্টাগ্রামে লিখেছেন, একটি এমএমএস কীভাবে একটি মেয়ের জীবন তছনছ করে দেয়, সেই গল্পই বলবে ‘উত্তরণ’।

    সিনেমাটির প্রসঙ্গ টেনে বাস্তবতা নিয়ে মধুমিতা বলেন, ‘একটি ছেলে এবং একটি মেয়ের যদি কোনও ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে, সে ক্ষেত্রে মেয়েটির দোষ থাকুক বা না থাকুক, সমাজ তাকেই দোষারোপ করবে। মেয়েরাও বোধ হয় সেটা বুঝে গিয়েছে। চিরাচরিত ধারণাকে ভেঙে অন্যায়ের প্রতিবাদ করার বার্তা দেবে এই সিনেমা।’

    প্রসঙ্গত, ‘লাভ আজ কাল পরশু’ সিনেমার মাধ্যমে ২০২০ সালে বড় পর্দায় আত্মপ্রকাশ করেন মধুমিতা। এরপর তাকে দেখা গিয়েছে ‘চিনি’ নামের একটি সিনেমায়।

    পিপি/জেআর

    মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
    • সর্বশেষ
    • সর্বাধিক পঠিত
    close