• মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১২ কার্তিক ১৪২৭
  • ||

আমি কখনো মাদক গ্রহণ করিনি: করণ

প্রকাশ:  ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:৩৯
বিনোদন ডেস্ক

বলিউডে মাদক কেলেঙ্কারি মারাত্মক আকার ধারণ করছে প্রতিনিয়ত। সম্প্রতি প্রয়াত অভিনেতা-প্রেমিক সুশান্ত সিং রাজপুতের জন্য গাঁজা কেনার অভিযোগে অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীকে গ্রেপ্তারের পর, অভিনেত্রী থেকে শুরু করে চলচ্চিত্র নির্মাতা, ডিজাইনারসহ বলিউডের কমপক্ষে শীর্ষ ২০ জন সেলিব্রেটির নাম মাদক মামলায় উঠে আসে। এরপর সাম্প্রতিক মাসগুলোতে এ নিয়ে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে ভারতে।

গত বছরেই করণ জোহরের আলোচিত একটি তারকা পার্টির ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল ইন্টারনেটে। সুশান্তের মৃত্যুর সঙ্গে বলিউডে মাদকের সংশ্লিষ্টতা তদন্তে একে একে কেঁচো খুড়তে সাপ বের হচ্ছে। এই সূত্রে ক’দিন ধরেই আবারও করণ জোহরের সেই পর্টির ভিডিও ঘুরপাক খাচ্ছে অন্তর্জালে।

সংক্ষিপ্ত সেই ভিডিও ক্লিপে দেখা যায়, পার্টিতে বুদ হয়ে আছেন রণবীর কাপুর, ভিকি কৌশল, অর্জুন কাপুর, শহীদ কাপুর, দীপিকা পাড়ুকোন, বরুণ ধাওয়ান, মালাইকা অরোরাসহ কয়েকজন। অভিযোগ রয়েছে, বলিউডের প্রথম সারির অনেক তারকাই সেদিন মাদক নিয়েছিলেন।

মাদক নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো (এনসিবি)’র জালে আটকা পরা একজন মাদক কারবারি স্বীকারোক্তিতে জানায়, তার কাছ থেকে মাদক কিনতেন করণ জোহরের ধর্ম প্রোডাকশনের নির্বাহী প্রযোজক ক্ষিতিজ রবি প্রসাদের। তবে সেটা ক্ষিতিজ নিজে গ্রহণ করতেন, নাকি করণ জোহরের জন্য তিনি সংগ্রহ করতেন, নাকি অন্যকিছু তা জানার জন্য সমন জারি করা হয় তাকে। ক্ষিতিজের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে গাঁজা ও মারিজুয়ানা উদ্ধারও করেছে এনসিবি। এরপর শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) বিকেলে মাদক নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো (এনসিবি)’র দপ্তরে ডেকে নিয়ে জেরা করা হয়েছে তাকে। একইদিনে ক্ষিতিজের সহকর্মী অনুভব চোপড়াকেও জেরা করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের পর অনুভবকে ছেড়ে দেওয়া হলেও, আটকে রাখা হয়েছে ক্ষিতিজকে। সঙ্গত কারণেই, সবার নজর এবার করণ জোহরের দিকে।

তবে মাদক-সংশ্লিষ্ট সব অভিযোগ অস্বীকার করেন করণ জোহর। এমনকি এ নিয়ে সংবাদমাধ্যমগুলোর ওপর যারপরনাই ক্ষুব্ধ তিনি। শুক্রবার রাতেই তিনি টুইটার অ্যাকাউন্টে একটি বিবৃতি প্রকাশ করে দাবি করেন, তার নামে ওঠা সব অভিযোগ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। তিনি কখনো মাদক গ্রহণ করেননি এবং কাউকে মাদক নিতে উৎসাহিতও করেননি।

বিবৃতিতে করণ জোহর বলেন, আমি, করণ জোহর, ২০১৯ সালের ২৮ জুলাই আমার বাড়িতে যে পার্টি আয়োজন করেছিলাম সেখানে কোনো মাদক ছিল না। মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর সংবাদ পরিবেশন করছে মাধ্যমগুলো। গত বছরেই আমি একথা পরিষ্কার করে জানিয়েছিলাম। এখন যেসব দূষিত প্রচারণা চলছে তার প্রেক্ষিতে আমি আবারো বলছি, সব অভিযোগ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন।

এছাড়াও করণ দাবি করেন, ব্যক্তিগতভাবে তিনি ক্ষিতিজ ও অনুভবকে চেনেনই না।

টুইটারে বিবৃতি প্রকাশ করার পর নিমিষেই তা সাড়া ফেলে। সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর সমালোচনার ঝড় উঠলে তখন থেকেই করণ জোহরের টুইটারে কমেন্ট অপশন বন্ধ। তবে সুশান্ত-অনুরাগীরা রিটুইট করে মন্তব্য করেন, এবার সুশান্তের মৃত্যুর মূল হোতা ধরা পড়বে।

অনেকে আবার ব্যঙ্গ করে লেখেন, ‘কফি উইফ এনসিবি’র জন্য প্রস্তুত হোন করণ।

পূর্বপশ্চিমবিডি/অ-ভি

করণ জোহর,মাদক,বলিউড,কেলেঙ্কারি,সুশান্ত সিং রাজপুত
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close