• শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৪ আশ্বিন ১৪২৭
  • ||

সুশান্তকে মারতে ব্যবহার হয় অচেতন করার বন্দুক!

প্রকাশ:  ১৩ আগস্ট ২০২০, ১২:৩৯
বিনোদন ডেস্ক

বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু ঘিরে নানা রকম জল্পনা চলছে নেট দুনিয়া জুড়ে। একদিকে যেমন এ তদন্ত করছে সিবিআই আবার অন্যদিকে এ মৃত্যু নিয়ে নেটদুনিয়ায় নানা রকমের কন্সপিরেসি থিওরি চলছে।

সম্প্রতি এরকমই একটি ভাইরাল হয়েছে নেট দুনিয়ায়। সেই টুইট দাবি করছে যে সুশান্তকে মারার জন্য আগে অচেতন করা হয়েছে এবং অচেতন করতে ব্যবহার করা হয়েছে এক বিশেষ ধরনের বন্দুক।

এই টুইটটি নজরে আসে বিজেপির মন্ত্রী সুব্রহ্মণ্যম স্বামীর। তারপরেই তিনি দাবি করেছেন, সিআইডি ও ইডির পাশাপাশি এনআইএ এই ঘটনার তদন্ত করুক।

যে টুইটটি ভাইরাল হয়েছে তাতে লেখা, অচেতন করতে যে বন্দুক ব্যবহার করা হয় সেই সম্পর্কে আজ পড়াশোনা করলাম।

এই বন্দুক ব্যবহার করলে কীরকম দাগ শরীরে তৈরি হয় সেটাও দেখলাম। সুশান্ত শরীরেও সেরকম দাগ রয়েছে। ওকে রীতিমতো পঙ্গু করে দেওয়ার জন্য এরকম বন্দুক ব্যবহার করা হয়েছে।

এই পোস্টটি রি-টুইট করেন সুব্রহ্মণ্যম স্বামী। তিনি লেখেন, আরব সাগরের তীরে কোন দেশ থেকে এই বন্দুক চোরাপথে আমদানি করা হয়েছে? এই তদন্তে এনআইএ’র সামিল হওয়া উচিত।

১৪ জুন বান্দ্রার ফ্ল্যাটে উদ্ধার হয় সুশান্তের মৃতদেহ। মুম্বাই পুলিশ সঙ্গে সঙ্গে জানায় যে, তিনি আত্মঘাতী হয়েছেন এবং বহুদিন ধরে অবসাদে ভুগছিলেন।

কিছুদিন আগে বিহার পুলিশের কাছে রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে এফআইআরের সময় সুশান্তের বাবা দাবি করেন তার ছেলেকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়া হয়েছে। কিন্তু সিবিআইয়ের তদন্তে সুশান্তের বাবা কে কে সিং দাবি করেন তার ছেলেকে খুন করা হয়েছে।

সিবিআই এর কাছে বয়ানে সুশান্ত সিং রাজপুতের বাবার আইনজীবী বিকাশ সিং বলেন, সুশান্তের গলায় যে দাগটি ছিল সেটি বেল্টের দাগ। বেল্ট দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে হত্যা করা হয়েছে এমন আশঙ্কা করছেন সুশান্তের পরিবার।

তিনি জানিয়েছেন মুম্বাই পুলিশের উপরে তাদের কোনও ভরসা নেই। মুম্বাই পুলিশ রিয়া চক্রবর্তীকেও ঠিকভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করেনি এবং আড়াল করার চেষ্টা করেছে বলে দাবি তাদের।

পূর্বপশ্চিমবিডি/অ-ভি

বলিউড,অভিনেতা,সুশান্ত সিং রাজপুত,মৃত্যু,বন্দুক,অচেতন
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close