• বৃহস্পতিবার, ০৯ জুলাই ২০২০, ২৫ আষাঢ় ১৪২৭
  • ||

লকডাউনে পুরনো প্রেম খুঁজে পেল নতুন ভাষা

প্রকাশ:  ২৫ মে ২০২০, ০৩:০৫
বিনোদন ডেস্ক

ঘূর্ণিঝড় আমপানের দুর্যোগে সঙ্গীহীন অবস্থা তারকা জুটি বনি সেনগুপ্ত ও কৌশানী মুখোপাধ্যায়ের। দু’জনের বাড়ির সামনেই বড় গাছ পড়ে ট্রান্সফর্মারে আগুন লেগে গিয়েছিল। গত তিন দিন ধরে বিদ্যুৎ সংযোগ নেই। বনি বলছিলেন, ‘‘কসবা থানার কাছে থাকি। দু’দিন ধরে কোনও পরিষেবা না থাকায়, পাড়ার বাসিন্দাদের সঙ্গে আমিও পথ অবরোধে শামিল হতে বাধ্য হয়েছি। সকলে মিলে চিঠি লিখে কাউন্সিলারকে জানিয়ে কাজ হতে অনেক সময় লেগেছে। যদি শহরেই এই অবস্থা হয়, তা হলে গ্রামের মানুষদের কী হাল, সেটাই ভাবছি।’’

এমনিতে বাড়িতে থাকতে ভালবাসলেও এত দিন ঘরবন্দি থেকে হাঁসফাঁস করছেন নায়ক। নিয়মকানুন মেনে বাড়িতেই থাকছেন কৌশানী। লকডাউনে অনেক তারকা লিভ-ইনের অপশন বেছে নিলেও বনি-কৌশানীর আলাদা থাকার সিদ্ধান্তের কারণ কী? ‘‘আমাদের কাছে পরিবার অনেক বেশি জরুরি। এই অবস্থায় তাদের ছেড়ে গেলে ভেঙে পড়তেন,’’ বললেন বনি। একই মনোভাব কৌশানীর। সঙ্গে জুড়লেন, ‘‘দূরে থেকে নিজেদের বন্ডিং স্ট্রং হয় কি না, সেটাও দেখার ছিল।’’ তা কী দেখলেন? ‘‘ভালবাসার বন্ধন আরও পোক্ত হয়েছে লকডাউনের দূরত্বে,’’ স্পষ্টবক্তা কৌশানী।

এখন মিস করলে ভিডিও কলই ভরসা তাদের। ‘‘সারাক্ষণ ভিডিও কলেই যোগাযোগ রয়েছে। তবে বার কয়েক দেখাও হয়েছে,’’ মন্তব্য বনির। এর মধ্যে নায়কের বাবা পরিচালক অনুপ সেনগুপ্ত কোমরে আঘাত পান। তাকে দেখতেই নায়িকা আসেন কসবায়। কিছুটা সময় কাটিয়ে কাছের একটি ডিপার্টমেন্টাল স্টোর থেকে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কিনেই ফিরে যান কৌশানী। পরের বার বাবা-মাকে সঙ্গে নিয়ে, নিজের জন্মদিনের নিমন্ত্রণ করতে এসেছিলেন বনিদের বাড়িতে।

লকডাউনে অন্য রকম জন্মদিন পালনের অভিজ্ঞতা হয়েছে এ বার কৌশানীর। জন্মদিনের সকালে একটি ক্লাবের সঙ্গে মিলে কেক কাটেন, তার পর কিছু দুঃস্থ পরিবারের হাতে তুলে দেন নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী। প্রেমিকার জন্মদিনে তাঁর বেলেঘাটার ফ্ল্যাটে গিয়েছিলেন বনি। সঙ্গে ছিলেন মা পিয়া সেনগুপ্ত। জন্মদিনে কৌশানী নিজেই রান্না করেছিলেন। সেই রান্নার প্রশংসা বনির গলায়, ‘‘চিকেন লবাবদার, প্যানকেক অনেক কিছুই বানিয়েছিল।’’

তাদের দু’জনের ঝগড়া বেশ বিখ্যাত। লকডাউনে ঝগড়া হচ্ছে? ‘‘বনি বেশি জ্ঞান দিলেই ঝগড়া হয়ে যাচ্ছে। আমাদের মান-অভিমান একটু বেশিই হয় কারণ আমি বনিকে মিস করছি,’’ অকপট কৌশানী। নায়িকার রাগ ভাঙাতে মজার কথা বলে পরিস্থিতি হালকা করে দেওয়ার চেষ্টা করেন বনি। সব কিছুর মাঝে কাজ নিয়েও চিন্তায় রয়েছেন দু’জনে। সুদেষ্ণা রায় ও অভিজিৎ গুহ পরিচালিত বনি-কৌশানী জুটির ‘বিয়ে ডট কম’-এর মুক্তি আটকে রয়েছে।

মন ভাল রাখার জন্য এক্সারসাইজ়ে জোর দিচ্ছেন নায়ক-নায়িকা। অবসরের সঙ্গী হিসেবে বেছে নিয়েছেন সিনেমা-সিরিজ়, বন্ধুদের সঙ্গে ভিডিও কল। তবে লকডাউনে নায়িকা শিখেছেন ঘর পরিষ্কার, গোছানোর যাবতীয় কাজও। বনি আবার রান্নাঘরে নিজের আগ্রহ খুঁজে পেয়েছেন। গত শুক্রবার মা-বাবার বিবাহবার্ষিকীতে গার্লিক চিজ় টোস্ট, প্যানকেক বানিয়েছিলেন বনি। নায়কের রান্নার টিচার কিন্তু কৌশানী। আর এই ক’দিন ছাত্র রান্নায় এতটাই পারদর্শী হয়ে উঠেছেন যে, কৌশানী তাকে শেফের তকমা দিয়েই দিলেন। নায়িকা নিজে বরাবরই রান্না করতে ভালবাসেন। লকডাউন সেই শখ আরও মজবুত করেছে। ‘‘ইটালিয়ান থেকে ইন্ডিয়ান, সব রান্নাই শিখে ফেলেছি। নানা রকমের পাস্তা, বিরিয়ানি, ফিরনি, মুজ়...’ তালিকা দিলেন কৌশানী। তিনি নিত্যনতুন পদ তৈরি করছেন আর ভিডিও কলে সেই রান্না কৌশানীর কাছ থেকে শিখছেন বনি। ‘‘কৌশানী রান্না করতে করতে ভিডিও কলে আমাকে রান্না শেখায়। ও হল মেন শেফ আর আমি তার সহকারী, এ ভাবেই রান্না হয় একসঙ্গে, আলাদা আলাদা দু’টি বাড়িতে,’’ বলছিলেন বনি।

লকডাউনে পুরনো প্রেম খুঁজে পেয়েছে নতুন ভাষা। পরিস্থিতি শিখিয়ে দিয়েছে, একে অপরের সঙ্গে না থেকেও ভালবাসা উদ্‌যাপন করা যায়, এ ভাবেও।

পূর্বপশ্চিমবিডি/জিএম

ঘূর্ণিঝড় আমপান,তারকা জুটি,টালিউড,অভিনেতা,বনি সেনগুপ্ত
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close