• শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
  • ||

১৮ বছর বয়সে ঘরে ডেকে ধর্ষণ করেন পরিচালক, অভিযোগ মডেলের

প্রকাশ:  ০৯ নভেম্বর ২০১৯, ২১:১০
বিনোদন ডেস্ক

ফের বিপাকে অস্কার জয়ী পরিচালক রোমান পোলানস্কি। এ বার তাঁর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করলেন এক ষাটোর্ধ্ব মহিলা। তাঁর দাবি, ১৮ বছর বয়সে তাঁকে ধর্ষণ করেন পোলানস্কি। এ বিষয়ে পোলানস্কি কোনও মন্তব্য না করলেও তাঁর আইনজীবী জানিয়েছেন, ওই মহিলার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন পরিচালক।

প্রাক্তন মডেল ও অভিনেত্রী ওই মহিলা নিজের নাম-পরিচয় প্রকাশ করে ঘটনার কথা জানিয়েছেন প্যারিসের এক সংবাদপত্রে। শুক্রবার ‘লা পারিসিয়েন’ নামে ওই সংবাদপত্রের প্রতিবেদনে রিপোর্ট অনুযায়ী, ভ্যালনতিন মুনিয়ে নামের ওই মহিলা জানিয়েছেন, ১৯৭৫ সালে সুইৎজারল্যান্ডের বাড়িতে ডেকে তাঁকে ধর্ষণ করেন পোলানস্কি।

৬২ বছরের মুনিয়ের দাবি, ‘পোলানস্কিকে ব্যক্তিগত বা পেশাগত, কোনও ভাবেই আগে থেকে চিনতাম না আমি। তবে সুইস আল্পসে স্কি করতে গিয়ে এক বন্ধু তাঁকে পোলানস্কির বাড়িতে থাকার আমন্ত্রণ জানান। বন্ধুর কথায় রাজি হয়ে তাঁর বাড়িতে গিয়েছিলেন। স্কি করার পর রাতে পোলানস্কি তাঁকে নিজের ঘরে ডাকেন। তাঁর ঘরে গিয়ে দেখেন, সম্পূর্ণ নগ্ন অবস্থায় রয়েছেন পোলানস্কি। ঘরে ঢোকার পর মুনিয়েকে আঘাতও করেন পোলানস্কি। এর পর জোর করে তাঁকে নগ্ন করে একটি ট্যাবলেট খেতে দেন। তার পর ভ্যালেনতিনকে ধর্ষণ করেন পোলানস্কি। মুনিয়ে জানিয়েছেন, ঘটনার পর কাঁদতে থাকেন পরিচালক। এমনকি, তাঁর কাছে ক্ষমাও চেয়ে নেন।

তবে এই ঘটনার কথা দীর্ঘ দিন প্রকাশ্যে আনেননি মুনিয়ে। তাঁর দাবি, ঘটনার পর প্রাণভয়ে এ কথা প্রকাশ করেননি তিনি। তবে গত মাসে প্রথম বার এ কথা এক পরিচিতকে জানান মুনিয়ে। নাম-পরিচয় জানাতে অনিচ্ছুক ওই ব্যক্তির সঙ্গে দেখা করে ‘লা পারিসিয়েন’। তিনি বলেন, ‘‘আমি মুনিয়ের কাছে জানতে চেয়েছিলাম, সে পুলিশে যেতে চায় কি না। তবে এতটাই শক্‌ড ছিল সে যে বুঝতেই পারছিল না, কী করবে!

মুনিয়ে জানিয়েছেন, গোটা ঘটনাটাই লস অ্যাঞ্জেলস পুলিশকে চিঠিতে জানিয়েছেন। এমনকি, এ নিয়ে ফ্রান্সের ফার্স্ট লেডি ব্রিজিট মাকরঁ-সহ দেশের এক মন্ত্রীকেও জানান। তবে ওই মন্ত্রী নাকি জানিয়েছিলেন, আইনগত প্রক্রিয়া শুরু করার পক্ষে ঘটনাটি খুবই পুরনো।

পরের সপ্তাহেই ফ্রান্সে পোলানস্কির একটি ফিল্ম রিলিজ হওয়ার কথা। ‘অ্যান অফিসার অ্যান্ড আ স্পাই’ নামের ওই ফিল্মে অ্যালফ্রেড ড্রাইফাস নামের এক ফরাসি অফিসারের কাহিনি তুলে ধরা হয়েছে। ভুল বিচারব্যবস্থার শিকার ওই অফিসারের কাহিনিই তাঁকে ধর্ষণের কথা প্রকাশ্যে বলার শক্তি দিয়েছে বলে জানিয়েছেন মুনিয়ে। তবে এই অভিযোগ নিয়ে পোলানস্কির আইনজীবী হার্ভে টেমিম বলেন, ধর্ষণের সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন পরিচালক।’’ এ নিয়ে হার্ভের মন্তব্য, ‘‘৪৫ বছর আগের পুরনো অভিযোগটি নিয়ে কারও কাছে কোনও নালিশ করা হয়নি।

এই প্রথম নয়, এর আগেও বহু বার পোলানস্কির বিরুদ্ধে যৌন নিগ্রহ ও ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ৮৬ বছরের পরিচালকের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যেই ১৩ বছরের এক কিশোরীর সঙ্গে যৌনতার অভিযোগ রয়েছে। ১৯৭৮ সালে সে ঘটনার কথা স্বীকার করার পর তাঁর ৪৮ দিন জেলেও থাকতে হয়েছিল তাঁকে। সেই মামলার রায় ঘোষণার আগেই আমেরিকা ছেড়ে ফ্রান্সে আশ্রয় নেন পোলানস্কি। ২০১০-এ এক অভিনেত্রী দাবি করেন, ১৬ বছর বয়সে তাঁকে যৌন নিগ্রহ করেন পরিচালক। বছর দুয়েক আগে আরও এক অভিনেত্রীর অভিযোগ ছিল, ১৫ বছর বয়সে তাঁকে ধর্ষণ করেন পোলানস্কি।

পূর্বপশ্চিমবিডি/জিএম

অস্কার জয়ী,পরিচালক,রোমান পোলানস্কি,যৌন নিগ্রহ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত