Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ৪ কার্তিক ১৪২৬
  • ||

যার সঙ্গে বাগদান হয়েছিল তিনি বিয়েও করে ফেলেছেন: লিজা

প্রকাশ:  ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৫:৫৫ | আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৬:১৩
বিনোদন প্রতিবেদক
প্রিন্ট icon

ক্লোজআপ তারকা সানিয়া সুলতানা লিজা। সম্প্রতি অসুস্থ হয়ে রাজধানীর আনোয়ার খান মডার্ন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। গত রোববার রাতে তার গলব্লাডারের অস্ত্রোপচার করা হয়েছে। বর্তমানে কিছুটা সুস্থ আছেন এই সঙ্গীত শিল্পী।

লিজা বলেন, এখন শরীর কিছুটা ভালো। আমার পিত্তথলিতে পাথর হয়েছিল। সেটা ছয় মাস আগে ধরা পড়েছিল। ডাক্তার তখনই অপারেশনের কথা বলেছিলেন, কিন্তু অপারেশন করে হাসপাতালে থাকার মত কিছুদিন সময় করে উঠতে পারছিলাম না। কারণ অপারেশন আর এর পরে বিশ্রামের জন্য এই সময়টুকু অবশ্যই প্রয়োজন। এদিকে টানা অনুষ্ঠান। সবকিছু গুছিয়ে অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেললাম। এটাই এটাই আমার শরীরে প্রথম অপারেশন যার কারণে একটু নার্ভাস ছিলাম। সবকিছু ভালোমতোই হয়েছে। এখন উঠতে-বসতে একটু সমস্যা হয়। কথা বলতে কোনো সমস্যা হচ্ছে না। আপাতত গান থেকে কয়েকটা দিন দূরে আছি।

শোনা যায়, ২০১২ সালের ২ মার্চ বাগদান হয়েছিল আপনার। এরপর নাকি বিয়েও করে ছিলেন? বিষয়টা কতটুকু সত্য জানতে চাইলে লিজা বলেন, না, আমাদের বিয়ে হয়নি। আমার বাগদান হয়েছিল কিন্তু সেটা ২০১৫ সালে ভেঙে গেছে। শেষ পর্যন্ত আমাদের বিয়েটা হয়নি। যার সঙ্গে বাগদান হয়েছিল, তিনি হয়তো এত দিনে বিয়েও করে ফেলেছেন।

তবে এখনই বিয়ে করা ইচ্ছা নেই আমার। নানান কারণে বিয়ের প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছি আমি। আর আমাদের এখানে একটা বড় সমস্যা হলো, একা থাকলে এ ধরনের রটনা বেশি হয়। কারও সঙ্গে পরপর কয়েকটা গান করলে কিংবা কারও সঙ্গে ঘোরাঘুরি করলে তাঁকে আমার ‘বয়ফ্রেন্ড’ বানিয়ে দেয়। সত্যি বলছি, আমি একদম একা।

লিজা ২০০৮ সালে সঙ্গীত বিষয়ক রিয়েলিটি শো ক্লোজআপ ওয়ান ‌‘তোমাকেই খুঁজছে বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতায় প্রথম হন। গানের ভূবনে যাত্রা শুরু প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়াকালীন সময়ে এক শিক্ষিকার উৎসাহে। লিজা তখন পড়তেন গৌরীপুর পৌর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে।

স্কুলের শিক্ষিকা রাবেয়া খানমের পরামর্শে বাবা তাকে ভর্তি করে দেন ‘গৌরীপুর সঙ্গীত নিকেতন’-এ। এখানে তিনি বছর তিনেক উচ্চাঙ্গ, পল্লী আর আধুনিক গান শিখেছিলেন। তারপর লিজা গান শিখেছেন ময়মনসিংহ শিল্পকলা একাডেমির শিক্ষক আনোয়ার হোসেন আনুর কাছে। এই ওস্তাদজী তাকে শিখিয়েছেন ক্ল্যাসিক্যাল, আধুনিক গান। মিডিয়াতে তিনি যাত্রা শুরু করেন নতুন কুঁড়ি (২০০৪)- এ অংশগ্রহণের মাধ্যমে।

সেই থেকে গানের সাথেই আছেন হালের জনপ্রিয় এই সঙ্গীত শিল্পী। ২০১২ সালে লিজার স্বপ্নে যোগ হয় নতুন প্রাপ্তি। ওই সময়ই প্রকাশিত হয় লিজার প্রথম একক অ্যালবাম। অ্যালবামের নাম ‘তৌসিফ ফিচারিং লিজা পার্ট-১’। লিজার দ্বিতীয় অ্যালবাম ‘পাগলী সুরাইয়া’ বাজারে আসে ২০১৫ সালে।

এছাড়া অগণিত মিক্সড এবং ডুয়েট অ্যালবাম, অসংখ্য প্লে-ব্যাক করার পাশাপাশি নিয়মিত স্টেজ শো করে যাচ্ছেন লিজা। আধুনিক, ক্ল্যাসিক্যাল, ফিল্ম স্কোর, ফিউশন, পপ, হিপহপ, রক- সব ধরনের গানই কণ্ঠে তুলে নিতে দেখা যাচ্ছে লিজাকে। অসংখ্য মিউজিক ভিডিওতেও পারফর্ম করতে দেখা গেছে তাকে।

পূর্বপশ্চিমবিডি/ এএ

লিজা,বিয়ে,বাগদান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত