• শনিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৯ ফাল্গুন ১৪২৬
  • ||

কথায়-গানে-স্মৃতিচারণে হেমন্ত-মান্নায় ‘মহানায়ক’

প্রকাশ:  ২৫ আগস্ট ২০১৯, ১৪:২১ | আপডেট : ২৫ আগস্ট ২০১৯, ১৪:২২
বিনোদন ডেস্ক

‘এই পথ যদি না শেষ হয়'? নাকি ‘কে প্রথম কাছে এসেছি'! কোনটা শুনে বিরহে বিধুর হবেন? আজ দু'জনার দু'টি পথ ওগো? নাকি, 'শাওন রাতে যদি'? আপনি আগে বলা চারটে গানের একটিও হয়তো ফেলবেন না, উলটে আরও তাদের গান শুনবেন। কারণ, এরা বাংলা গানের সোনাঝরা দিনের দুই কিংবদন্তি শিল্পী হেমন্ত মুখোপাধ্যায় আর মান্না দে। এই সমস্ত গানগুলো মহানায়ক উত্তমকুমারের লিপে গেয়েছেন।

চলতি বছরেই হেমন্ত মুখোপাধ্যায় পূর্ণ করলেন একশো বছর। ৪০ বছর হল মহানায়ক নেই। এবছর একশো বছর মান্না দে’রও। তাই এই উপলক্ষ্যে বাঙালিকে আরও একবার ত্র্যহস্পর্শের মাধ্যমে নস্টালজিক করতে কোমর বেঁধে বাঘাযতীন বিহঙ্গরত হেমন্ত-মান্নায় মহানায়ক সঙ্গীত সন্ধ্যার মাধ্যমে।

সম্পর্কিত খবর

    উত্তমকুমারের বরাবরেরই প্রথম পছন্দ হেমন্ত মুখোপাধ্যায়। দু'জনের গলা এতটাই একরকম যে খুঁটিয়ে না শুনলে বা চোখে না দেখলে ধরাই যেত না আসলে কার কণ্ঠ! এই নিয়ে মজা করে অনেক সময়েই দুই দিকপাল বলেছেন, আগের জন্মে বোধহয় ভাই ছিলাম আমরা।

    জানা গেছে, উত্তমকুমারের স্ত্রী গৌরি দেবীকে নিয়ে নাকি একবার বিরোধ বেঁধেছিল তাদের মধ্যে। তারপর থেকেই উত্তমকুমারের লিপে শোনা যেতে শুরু করে মান্না দে’র গান। অনেকেই ভেবেছিলেন উত্তম-হেমন্তের মতো উত্তম-মান্না জুটি হিট হবে না। নিন্দুকের মুখে ছাই দিয়ে এই জুটিও সমান জনপ্রিয় হয়েছিল। এবং উত্তম সেরা না সৌমিত্র-র পরে বাঙালি খুঁজে পেয়েছিল আরেকটি নতুন বিতর্ক উত্তমের গলায় কে সেরা? হেমন্ত না মান্না?

    এই তর্ককে নতুন করে জাগাতেই ২৪ অগাস্ট যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ত্রিগুণা সেন মঞ্চ বিকেল সাড়ে পাঁচটায় অনুষ্ঠান হয়ে গেল হেমন্ত-মহানায়ক-মান্নার দখলে। দুই শিল্পীর গাওয়া কালজয়ী গান শুনিয়ে জয়ন্ত দে, পল্লব বিশ্বাস, দিশা রায়, বৈষ্ণা বিশ্বাস, উজ্জ্বল নন্দী সহ এক ঝাঁক শিল্পী। গানের পাশাপাশি সম্বর্ধনা জানানো হয় পণ্ডিত মল্লার ঘোষ, পণ্ডিত স্বপন সেন সহ একাধিক বিশিষ্ট গুণীজনদের।


    পূর্বপশ্চিমবিডি/এমএইচ

    মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
    • সর্বশেষ
    • সর্বাধিক পঠিত
    close