• সোমবার, ২০ জানুয়ারি ২০২০, ৭ মাঘ ১৪২৭
  • ||

একক শিল্পী হিসেবে নয় ব্যান্ড নিয়েই থাকতে চাই : নোবেল

প্রকাশ:  ০২ আগস্ট ২০১৯, ১৪:২৪
বিনোদন ডেস্ক

ভারতীয় চ্যানেল জি বাংলায় ‘সা রে গা মা পা ২০১৮-১৯’ নামক গানের প্রতিযোগিতার অনুষ্ঠান শুরু হয়েছিল গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে। প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ থেকে অংশ নেন মাঈনুল ইসলাম নোবেল। এছাড়াও অংশ নিয়েছিলেন অবন্তি সিঁথি, তানজীম শরীফ, রোমানা ইতি, মেজবা বাপ্পী, আতিয়া আনিসা, মন্টি সিনহা ও মাঈনুল ইসলাম নোবেল। বাকিরা নানা ধাপে ছিটকে গেলেও গোপালগঞ্জের তরুণ নোবেলই জায়গা করে নেয় চূড়ান্ত পর্বে। যেহেতু নোবেল বাংলাদেশের ছেলে ফলে কলকাতার থেকে বাংলাদেশে তার ভক্তের সংখ্যা বেশি।

বাংলাদেশের ছেলে মাইনুল আহসান নোবেল। কলকাতার জনপ্রিয় শো ‘সারেগামাপা’-তে নিজের কণ্ঠ দিয়ে মাতিয়ে চলেছেন তিনি।

এ অনুষ্ঠানের কল্যাণেই দুই বাংলায় এখন জনপ্রিয় নাম বাংলাদেশের মাঈনুল আহসান নোবেল। এই প্রতিযোগিতায় যৌথভাবে তৃতীয় হয়েছেন তিনি। নোবেল সারেগামাপায় বিভিন্ন ধরনের গান গেয়ে শুধু বিচারকদেরই নয়, বরং শ্রোতাদের মুগ্ধ করেছেন তিনি। আগামীতে তিনি শ্রোতাদের আরো হৃদয় ছুঁয়ে যাওয়ার আশা করেন।

সারেগামাপায় নিজের যাত্রা সম্পর্কে নোবেল বলেন, আমার চাচাতো বোন একদিন হঠাৎ করে বলল জি বাংলায় একটা প্রতিযোগিতা হচ্ছে, ‘সারেগামাপা’ নামে। সেখানে আমাকে অডিশন দিতে বললো। চাচাতো বোনের কথা শুনে অডিশন দিতে গেলাম। তার পরের বিষয়টা তো সবাই জানেন।

নোবেল সারেগামাপার তিনজন বিচারক শান্তনু মৈত্র, শ্রীকান্ত আচার্য ও মোনালী ঠাকুর এবং উপস্থাপক যিশু সেনগুপ্ত সম্পর্কে নিজের অনুভূতি ব্যক্ত করতে গিয়ে বলেন, শান্তনু মৈত্র একজন ভালো কম্পোজার। তিনি এখন পর্যন্ত যতোগুলো হিন্দি মুভিতে গান করেছেন, সবগুলো ভিন্ন ধরনের এবং অসাধারণ। এমন একজন গুণি মানুষের সঙ্গে থাকতে পেরেছি, তার মতামত জানতে পেরেছি- এটা অনেক বড় প্রাপ্তি। মোনালী ঠাকুর খুব ভালো শিল্পী। অনেক দারুণ তার কণ্ঠ। তার কাছ থেকে যখন কোনো প্রশংসা পাই তখন অনেক ভালো লাগে। শ্রীকান্ত আচার্য দাদার অনুপ্রেরণা আমার জন্য অনেক বেশি ভালো লাগার। যিশু দা আমার বন্ধুর মতো। খুবই অনুপ্রেরণা দিয়েছেন। ভালো ড্রামস বাজাতে পারেন। ভালো-মন্দ অনেক কিছু বোঝান আমাকে।

নোবেল নিজেকে একক শিল্পী হিসেবে নয় ব্যান্ড নিয়েই থাকতে চান।

নোবেল বলেন, একক শিল্পী হিসেবে কখনোই না, ব্যান্ড নিয়েই থাকতে চাই। সবকিছু আমার ব্যান্ড নিয়েই করতে চাই।

আমি কখনো একক শিল্পী হিসেবে নিজেকে এগিয়ে নিতে চাই না। ব্যান্ডের সবাই মিলে কিছু একটা করতে চাই। যেমন এলআরবি, মাইলস, নগরবাউলের মতো কিছু একটা করতে চাই। আমি আমার মতো এগিয়ে যাবো। আরো চারজনকে সঙ্গে করে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করবো। তাদের কারোরই জনপ্রিয় হওয়ার শখ নেই। আমরা ভালো সংগীত করতে চাই। ভালো গান করতে চাই।

আগামী কিছুদিনের মধ্যে সিঙ্গেল প্রকাশিত হবে নোবেলের।

নোবেল আরো বলেন, সবাই আমার নতুন একটা গানের জন্য অপেক্ষা করছে। আমি চাই আমার শ্রোতারা আমার গানের সমালোচনা করুক। ভালো-মন্দ দেখিয়ে দিক। তাহলে আগামীতে আরো ভালো কিছু করতে পারব।

পূর্বপশ্চিম বিডি/লা-মি-য়া

নোবেল
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত