Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬
  • ||
শিরোনাম

ঝিনুক হাতে নিয়ে বিপদে কোরিয়ান অভিনেত্রী

প্রকাশ:  ০৮ জুলাই ২০১৯, ১৮:৪১
বিনোদন ডেস্ক
প্রিন্ট icon

টেলিভিশনের রিয়্যালিটি শো-তে অংশ নিয়ে প্রতিযোগীদের কত কিছুই না করতে হয়। কখনও গভীর জলে ডুব দিয়ে বাকশের তালা খোলা, কখনও আগুন নিয়ে খেলা, ভয়ঙ্কর পশুদের সঙ্গে খেলা করা ইত্যাদি কী না থাকে প্রতিযোগিতায়। লোমহর্ষক এসব প্রতিযোগিতা দেখে মুগ্ধ হন দর্শকরা। তবে প্রতিযোগিতায় অংশ নিলে যে জেল-জরিমানা হয় এমন ঘটনা ছিল জানার বাইরে।

সম্প্রতি কোরিয়ার রিয়্যালিটি শোতে জেল-জরিমানার মতো অদ্ভুত ঘটনা ঘটেছে। গত এপ্রিলে থাইল্যান্ডের রিয়ালিটি শো-এর ‘ল্য অব দ্য জঙ্গল’ বা জঙ্গলের আইন শীর্ষক এই পর্বের একটি দৃশ্যে দক্ষিণ কোরিয়ার অভিনেত্রী লি ইউল-এম ডুব দেন গভীর সমুদ্রে। পানির তলায় শুটিং চলাকালীন লি ইউল একটি বড় ঝিনুক হাতে তুলে নেন। কিন্তু অভিনেত্রী জানতেনই না তিনি যে ঝিনুক হাতে নিয়েছেন তা ধরা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। অনুষ্ঠানটি প্রচার হবার পর জানা যায় অভিনেত্রী যে ঝিনুক তুলেছেন তা ধরা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। ঝিনুকটি বিপন্ন প্রজাতির তালিকাভুক্ত।

ভিডিও প্রকাশ্যে আসার পর নড়েচড়ে বসে ‘হাত চাও মাই ন্যাশনাল পার্ক’ কর্তৃপক্ষ। থাইল্যান্ডের বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে বিপন্ন প্রজাতির তালিকাভুক্ত এই ঝিনুক নিয়ে তারা আইনি লড়াই শুরু করেন অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে। নড়েচড়ে বসে ‘হাত চাও মাই ন্যাশনাল পার্ক’ কর্তৃপক্ষ। মামলা করা হয় ওই অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে।

সংবাদ সংস্থা এএফপি-কে ‘হাত চাও মাই ন্যাশনাল পার্ক’-এর প্রধান নারং কোংগেইদ বলেন, পার্কের আইন আর বন্যপ্রাণী সুরক্ষা আইন লঙ্ঘনের অপরাধে অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে গেল বুধবার ( ৪ জুলাই) দুটি পৃথক মামলা হয়েছে। পাঁচ বছরের জেল ও ২০ হাজার থাই বাথ জরিমানা হতে পারে। যা ডলারের হিসেবে ৬৫০ ডলার আর বাংলা টাকায় ৫৪ হাজার ৯২২ টাকা।

ইতোমধ্যেই দক্ষিণ কোরিয়ার ওই জনপ্রিয় রিয়ালিটি শো-র কর্তৃপক্ষ ক্ষমা চেয়েছেন। থাইল্যান্ডের বন্যপ্রাণী সুরক্ষা আইন সম্পর্কে তারা অবগত ছিলেন না বলে জানান। অদূর ভবিষ্যতে সতর্ক থাকবেন বলে জানান তারা।


পূর্বপশ্চিমবিডি/এমএইচ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত