Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০১৯, ১১ আষাঢ় ১৪২৬
  • ||

প্রয়াণে নাট্যকার গিরিশ কারনাড

প্রকাশ:  ১০ জুন ২০১৯, ১৫:৩৬
বিনোদন প্রতিবেদক
প্রিন্ট icon

ভারতের প্রখ্যাত নাট্যকার ও সাহিত্যিক গিরিশ কারনাড পরলোক গমন করেছেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৮১ বছর।

সোমবার (১০ জুন) বেঙ্গালুরুতে লাভেলি রোডে নিজ বাসভবনে তিনি শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন। বার্ধক্যজনিত কারণে তার মৃত্যু হয়েছে।

শুধু নাটক-সিনেমায় নয়, সাহিত্যেও ছিলো তার অবাধ বিচরণ। মারাঠি নাটকের অন্যতম কাণ্ডারি ছিলেন কারনাড। নাটক-সিনেমা পরিচালনার পাশাপাশি চিত্রনাট্য লেখার কাজটিও করেছেন সমানতালে। কাজের স্বীকৃতি হিসেবে পেয়েছেন পদ্মশ্রী (১৯৭৪), পদ্মভূষণ (১৯৯২) ও জ্ঞানপীঠ (১৯৯৮) সম্মাননা।

১৯৭১ সালে কন্নড় ছবি ‘বংশবৃক্ষ’র হাত ধরে পরিচালক হিসেবে যাত্রা করেন কারনাড। এ সিনেমার মাধ্যমেই সেরা পরিচালক হিসেবে জাতীয় পুরস্কার৯৩৮ সালের ১৯ মে বর্তমান মহারাষ্ট্রের মাথেরানে জন্মগ্রহণ করেন গিরিশ কারনাড। চার ভাইবোনের মধ্যে তিনি ছিলেন তৃতীয়। তাঁর পড়াশোনার শুরুটা হয়েছিল কর্ণাটকে। অঙ্ক ও সংখ্যাতত্ত্বে স্নাতক করেছেন। এরপর অক্সফোর্ডে রাজনীতি ও অর্থনীতি নিয়ে পড়াশোনা করেন। গিরিশ কারনাডের স্ত্রী সরস্বতী গণপতি। তাঁদের দুই সন্তান।

১৯৭০ সালে ‘সংস্কার’ ছবি দিয়ে বড় পর্দায় গিরিশ কারনাডের যাত্রা শুরু। অভিনয় করেছেন ‘নিশান্ত’, ‘মন্থন’, ‘স্বামী’, ‘পুকার’-এর মতো হিট ছবিতে। ২০০৫ সালে মুক্তি পায় ‘ইকবাল’। এই ছবিতে তাঁর অভিনয় পছন্দ করেন দর্শক। সালমান খানের দুটি আলোচিত ছবিতে তিনি অভিনয় করেছেন। ২০১২ সালে ‘এক থা টাইগার’ এবং ২০১৭ সালে ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’ ছবিতে গিরিশ কারনাডের অভিনয় দেখে মুগ্ধ হন দর্শক। অন্যদিকে, ছোট পর্দায়েও গিরিশ কারনাড সমান জনপ্রিয় ছিলেন। ১৯৮৬-৮৭ সালে জনপ্রিয় টিভি ধারাবাহিক ‘মালগুড়ি ডেজ’-এ তিনি অভিনয় করেন।

চার দশকের বেশি সময় ধরে নাট্যচর্চার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন গিরিশ কারনাড। বহু নাটক লিখেছেন। হিন্দি ছাড়া আরও কয়েকটি ভাষায় অভিনয় করেছেন। পরিচালক হিসেবেও কাজ করেছেন। ১৯৭১ সালে কন্নড় ছবি ‘বংশবৃক্ষ’র হাত ধরে পরিচালক হিসেবে যাত্রা করেন গিরিশ কারনাড। এ ছবির জন্য তিনি সেরা পরিচালক হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান।

শুধু নিজের কাজ নয়, বিভিন্ন সময়ে রাজনৈতিক, সামাজিক নানা ঘটনায় বারবার সাহসী ভূমিকা রেখেছেন গিরিশ কারনাড। সমাজের অনেক সমস্যা তুলে ধরেছেন তাঁর লেখায়। তাঁর নাটকে বারবার বিতর্ক মাথাচাড়া দিয়েছে। মৃত্যুর হুমকি দেওয়া হয় তাঁকে। সাংবাদিক গৌরী লঙ্কেশ হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদ করেন। ওই সময় নিজেকে ‘আরবান নকশাল’ বলে ঘোষণা দেন। নকশালদের উৎসাহ দিচ্ছেন, এই অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। বাংলাদেশেও তাঁর কয়েকটি নাটক মঞ্চস্থ হয়েছে।

পিপিবিডি- এনই/

গিরিশ কারনাড
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত