• বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ২৯ কার্তিক ১৪২৬
  • ||

যৌথজীবনের ৪৬ বছরে অমিতাভ-জয়া

প্রকাশ:  ০৪ জুন ২০১৯, ১৪:১০
বিনোদন ডেস্ক

দুজনের প্রথম দেখা ‘গুড্ডি' সিনেমার সেটে। পরিচয়টা প্রেমে গড়াতে সময় নেয়নি। এরপর একসঙ্গে সিলসিলা, 'জঞ্জির', 'কভি খুশি কভি গম', 'শোলে', 'অভিমান' সহ বহু ছবিতে একসঙ্গে জুটি বেঁধে অভিনয়। বাস্তবজীবনে তারা জুটি বাঁধেন ১৯৭৩ সালে আজকের এই দিনে । অনেক বাধা অনেক বিপত্তি কাটিয়ে, অনেক ঝড়ের বহু ঝাপটা সামলে আজ ৪৬ তম বিবাহবার্ষিকী পালন করছেন বলিউডের সেরা তারকা দম্পতি অমিতাভ-জয়া ।

সকালে অমিত-জয়াকে প্রথম শুভেচ্ছা জানান ছেলে অভিষেক বচ্চন। ফটোব্লগিং সাইট ইনস্টাগ্রামে মা-বাবার ছবি শেয়ার দিয়ে ছোট বচ্চন লিখেছেন, ‘আমি তোমাদের দুজনকেই ভীষণ ভালোবাসি।’ এরপর ভক্ত আর শুভানুধ্যায়ীদের অভিনন্দন বার্তায় সিক্ত হচ্ছেন তারা

নিজের ব্লগে বিবাহজীবনের গল্প শেয়ার করেছেন অমিতাভ বচ্চন। জানিয়েছেন নানা অজানা। বলেছেন, ৪৬ বছর আগে তাঁর সঙ্গে জয়ার বিয়ে অনেকটা হুট করেই। অমিতের সঙ্গে জয়ার যখন প্রথম আলাপ, ততদিনে তিনি নামী অভিনেত্রী। আস্তে আস্তে অমিতের বিপরীতেও অনেক ছবির নায়িকা হন জয়া। শেষে ১৯৭১ সালে ‘গুড্ডি’, ১৯৭৩-এ মুক্তি পায় ‘জঞ্জির’। ছবি সুপারহিট হওয়ায় তাঁরা ঠিক করেন লন্ডনে যাবেন উদযাপন করতে।

ওই সময় অমিতাভের বাবা প্রয়াত কবি হরিবংশ বচ্চন বলেন, ‘অবিবাহিত অবস্থায় লন্ডনে একসঙ্গে না যাওয়াই ভালো। তার চেয়ে বিয়ে করে একসঙ্গে লন্ডনে যাও।’ বাবার এই আদেশ সেদিন ফেলতে পারেননি বিগ বচ্চন।

৭৬ বছরের তরুণ অমিতাভ বচ্চন আরো লেখেন, ‘দুই বাড়ি মিলে রাতারাতি বিয়ে দিয়ে দিল আমাদের! যে রাতে আমরা ফ্লাইট ধরব সেই রাতেই।’

বিয়ের পরেও অমিতাভ-জয়া বেশ কয়েকটি ছবিতে অভিনয় করেছেন। ‘অভিমান’, ‘চুপকে চুপকে’, ‘মিলি’ ও ‘সিলসিলা’ উল্লেখযোগ্য। শ্বেতা ও অভিষেকের জন্মের পরেও জয়া কিছু ছবিতে অভিনয় করেন।

পিপিবিডি-এনই

অমিতাভ-জয়া
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত