• রোববার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
  • ||

এ যেন নতুন বান্দেরাস

প্রকাশ:  ২০ মে ২০১৯, ১৩:৪৩
বিনোদন ডেস্ক

বছর দুয়েক আগে হার্ট অ্যাটাক হয়েছিল অভিনেতা আন্তোনিও বান্দেরাসের। তবে এ হার্ট অ্যাটাক তার জন্য শাপে বর হয়েছে। বান্দেরাস বলেছেন হার্ট অ্যাটাকের পর তিনি স্বাস্থ্য নিয়ে সচেতন হয়েছেন এবং সবচেয়ে বড় ব্যাপার অভিনেতা হিসেবে নিজেকে পুনরায় আবিষ্কার করেছেন। পেদ্রো আলমোদোভারের আত্মজীবনীমূলক নতুন ছবির মুখ্য চরিত্র করার প্রস্তুতিতে নিজেকে পুনরায় আবিষ্কারের বিষয়টি তার কাজে এসেছে।

কান উৎসবে রয়টার্সকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বান্দেরাস বলেছেন, ‘হার্ট অ্যাটাকটি ছিল আমার জীবনের জন্য এক অসাধারণ উপদেশ। পেদ্রো আলমোদোভারের পেইন অ্যান্ড গ্লোরি এবার কানে পালমে দ’র পাওয়ার অন্যতম দাবিদার। ছবিতে বান্দেরাসের সঙ্গে অভিনয় করেছেন পেনেলোপে ক্রুজ।

“আমি এখন আর ধূমপান করি না। আগের চেয়ে অনেক বেশি ব্যায়াম করি। মাথাটা এখন অনেক পরিষ্কার থাকে। আমি নিজেকে এক রকম পুনরায় আবিষ্কার করেছি।” ৫৮ বছর বয়সী স্প্যানিয়ার্ডকে দুনিয়াজুড়ে মানুষ চেনে দ্য মাস্ক অব জরো ও এভিটার জন্য। সম্প্রতি তিনি টেলিভিশন ড্রামা সিরিজ ‘জিনিয়াস’ এ চিত্রকর পাবলো পিকাসোর চরিত্রে অভিনয় করেছেন। ‘নিজের অভিনয় জীবন নিয়ে আমি অনেক ভাবনাচিন্তা করছি। আমি এখন অনেক সতেজ, নতুন অনুভব করি।’

আলমোদোভারের সিনেমা দিয়ে অনেক বছর পর বান্দেরাস ও পেনেলোপে একসঙ্গে কাজ করলেন। কানে পেইন অ্যান্ড গ্লোরির প্রদর্শনীর পর দুজনকেই বেশ আবেগাক্রান্ত দেখাচ্ছিল।

বান্দেরাস বলেছেন সেই হার্ট অ্যাটাক তার জীবনকে পরিষ্কার করে দিয়েছে। এটা তাকে পেইন অ্যান্ড গ্লোরির মুখ্য চরিত্রে অভিনয়ে সহায়তা করেছে। আলমোদোভার কাজটি নিয়ে খুব খুঁতখুঁতে ছিলেন। কারণ কাহিনীটি আলমোদোভার নিজের জীবনেরই। স্মৃতিচারণ করে বান্দেরাস বলেন, ‘একদিন আলমোদোভার আমাকে ফোন করে বলেছিলেন, তোমাকে একটা চিত্রনাট্য পাঠাচ্ছি। এতে তুমি পরিচিত অনেকের রেফারেন্স পাবে। আমাকে চিত্রনাট্যটি পাঠালেন। পড়ে দেখি, হা ঈশ্বর, আরে এটা তো আলমোদোভার নিজেই! ’

সূত্র : রয়টার্স

পিপিবিডি/রবিউল

আন্তোনিও বান্দেরাস
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত