• বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ৮ বৈশাখ ১৪২৮
  • ||

ভিকারুননিসাকে সতর্কতামূলক ৭ নির্দেশনা প্রতিযোগিতা কমিশনের

প্রকাশ:  ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ২৩:২২
নিজস্ব প্রতিবেদক

শিক্ষার্থীদের পোশাক তৈরি ও সরবরাহে অনিয়ম করে একটি নির্দিষ্ট প্রতিষ্ঠানকে ব্যবসার সুযোগ দেওয়ায় ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজ কর্তৃপক্ষকে সতর্ক করেছে বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশন। একইসঙ্গে প্রতিযোগিতা আইন অনুসরণসহ সাতটি নির্দেশনাও দিয়েছে কমিশন। পাশাপাশি নির্দেশনা অনুযায়ী নেওয়া পদক্ষেপের বাস্তবায়ন সংক্রান্ত প্রতিবেদন আগামী ২৬ এপ্রিলের মধ্যে কমিশনে দাখিলের করতে বলা হয়েছে।

জানতে চাইলে বুধবার (২২ ফেব্রুয়ারি) রাতে ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ কামরুন নাহার বলেন, ‘বিষয়টি জেনেছি। আদেশটি হাতে পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বৈঠক করে দ্রুত সিদ্ধান্ত নেবো।’

অপরদিকে প্রতিযোগিতা আইন লঙ্ঘন করায় মেসার্স চৌধুরী এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারীকে ৮৯ হাজার ৮৯৭ টাকা জরিমানা করেছে বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশন।

কমিশনের জারি করা আদেশে বলা হয়েছে, ‘যোগসাজশের মাধ্যমে ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়ে দীর্ঘ সময়ব্যাপী একইভাবে পোশাক সরবরাহ করে ২০১২ সালের প্রতিযোগিতা কমিশনের আইনের ১৫ ধারার ১ উপধারা লঙ্ঘন করায় আইনের ২০ ধারা অনুযায়ী, মেসার্স চৌধুরী এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধীকারী মো. ইব্রাহিম মোল্লাকে ২০১৮, ২০১৯ ও ২০২০ সালের ইউনিফর্ম বিক্রি বাবদ এক কোটি ১৯ লাখ ৮৪ হাজার ৫৮০ টাকার বার্ষিক গড় টার্নওভারের ২ শতাংশ হিসেবে ৮৯ হাজার ৮৯৭ টাকা জরিমানা আরোপ করা হলো।’

‘এছাড়া,ভিকারুননিসা স্কুল অ্যান্ড কলেজের ব্যবসায়িক উদ্দেশ্য না থাকলেও প্রতিযোগিতা আইন অনুসরণ না করে মেসার্স চৌধুরী এন্টারপ্রাইজকে পোশাক সরবরাহের ব্যবসার সুযোগ করে দেওয়ায় ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজ কর্তৃপক্ষকে ভবিষ্যতে এ ধরনের কর্মকাণ্ড থেকে বিরত থাকার জন্য সতর্ক করা হলো।’

ভিকারুননিসা কর্তৃপক্ষকে কমিশনের সাত নির্দেশনা

১) শিক্ষার্থীদের পোশাকের জন্য প্রয়োজনে একটি ড্রেস কোড এবং ইউনিফর্ম স্পেসিফিকেশন নির্ধারণ করতে পারবে।

২) শিক্ষার্থীদের পোশাকের কাপড়, রঙ, ডিজাইন এবং মনোগ্রাম অভিন্ন রাখার উদ্দেশ্যে অভিভাবকদের অবহিত করে নির্ধারিত পোশাকের একটি নমুনা নির্বাচিত দর্জির দোকান/প্রতিষ্ঠানের কাছে সরবরাহ করবে।

৩) একক উৎস বা একটি নির্দিষ্ট দোকান থেকে কেনার বাধ্যবাধকতা পরিহার করার উদ্দেশ্যে প্রত্যেক ক্যাম্পাসের জন্য ন্যূনতম ৩টি সরবরাহকারী দর্জির দোকান/প্রতিষ্ঠান নির্বাচন করে (এলাকাভিত্তিক) প্রতিযোগিতামূলক বাজার সৃষ্টির লক্ষ্যে যুগপথ পোশাক তৈরি ও সংগ্রহের কাজ সম্পাদন করবে।

৪) পোশাক সরবরাহকারী দর্জির দোকান/প্রতিষ্ঠান নির্বাচনের জন্য বহুল প্রাচারিত দুইটি বাংলা জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের মাধ্যমে নির্দিষ্ট তারিখের মধ্যে বাছাই কার্যক্রম সম্পন্ন করবে।

৫) স্কুল অ্যান্ড কলেজের নোটিশ বোর্ডসহ প্রকাশ্য স্থানে এবং নির্বাচিত দর্জির দোকানে পোশাকের মূল্য তালিকা (অধ্যক্ষ স্বাক্ষরিত) প্রদর্শন করবে এবং নির্ধারিত মূল্যে পোশাক বিক্রি হচ্ছে কিনা তা তদারকি করবে।

৬) প্রতিষ্ঠানের যাবতীয় পণ্য ও সেবা ক্রয়ের ক্ষেত্রে ২০১২ সালের প্রতিযোগিতা আইনের বিধান অক্ষুণ্ণ রাখার এবং দেশে ব্যবসা-বাণিজে প্রতিযোগিতাবিরোধী কর্মকাণ্ড পরিহার করার ক্ষেত্রে শ্রদ্ধাশীল থাকবে। প্রয়োজনে কর্তৃপক্ষ পণ্য বা সেবা ক্রয়ের ক্ষেত্রে যে সকল দুর্বল দিক রয়েছে, সেগুলো দূর করতে প্রশাসনিক ও আর্থিক ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত প্রশিক্ষণ কর্মসূচির ব্যবস্থা করতে পারবে।

৭) ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজ কর্তৃপক্ষ আদেশ ও নির্দশনা অনুসারে গৃহীত ব্যবস্থা সম্পর্কিত একটি বাস্তবায়ন প্রতিবেদন আগামী ২৬ এপ্রিলের মধ্যে বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশনের কাছে দাখিল করবে।

পিপি/জেআর

ভিকারুননিসা
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close