• বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১৩ কার্তিক ১৪২৮
  • ||

স্কুল বন্ধের সিদ্ধান্তের সময় এখনো আসেনি: শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশ:  ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২০:৪৯
নিজস্ব প্রতিবেদক

শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেছেন, মানিকগঞ্জ ও মাদারীপুরে শিক্ষার্থী অসুস্থ হওয়ার ঘটনায় স্কুলগুলোতে মনিটরিং করা হচ্ছে। তবে স্কুল বন্ধের সময় এখনো আসেনি।

বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) করোনা উপসর্গে শিক্ষার্থী মৃত্যু ও কয়েকটি স্কুলে অসুস্থ হওয়ার ঘটনায় এ কথা বলেন তিনি।

এর আগে মানিকগঞ্জে করোনা উপসর্গে এক স্কুল শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী ও শিক্ষক করোনায় আক্রান্তের খবর পাওয়া গেছে। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে একটি স্কুল।

মানিকগঞ্জে মারা যাওয়া ওই ছাত্রীর নাম রোদেলা। সে এসকে সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্রী। বুধবার হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

এদিকে, গোপালগঞ্জে কোটালীপাড়ায় ৪নং ফেরধারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রী কারোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ ঘটনায় মঙ্গলবার থেকে তৃতীয় শ্রেণির পাঠদান ১৪ দিনের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

গোপলগঞ্জের বীণাপানি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর করোনা আক্রান্তের খবর পাওয়া গেছে। সে ঘরে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছে।

বাগেরহাটের মোংলায় পুলিন কুমার মণ্ডল নামে মাধ্যমিকের এক শিক্ষকের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। তাই ওই বিদ্যালয়ের বাকি শিক্ষকদেরও নমুনা পরীক্ষার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। চাঁদপুর, মাদারিপুরেও কয়েকজন শিক্ষার্থী অসুস্থ হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

করোনার বিন্দুমাত্র লক্ষণ থাকলে সন্তানদের স্কুলে পাঠাতে না করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি বলেছেন, সন্তানের করোনার লক্ষণ থাকলে অভিভাবকরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে যোগাযোগ করবেন।

করোনা আক্রান্ত হয়ে মানিকগঞ্জের এক শিক্ষার্থীর মারা যাওয়ার বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রীকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ওই শিক্ষার্থীর বিষয়ে আমরা খোঁজ নিয়েছি এবং তার সহপাঠীদেরও করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। সবারই রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। বিষয়টি আমাদের সবসময় তদারকিতে আছে।

তিনি বলেন, করোনা এমন একটি ভাইরাস যে কেউ যেকোনো সময় যেকোনো স্থানে আক্রান্ত হতে পারে। এ ব্যাপারে আমাদের মনিটরিং কার্যক্রম অব্যাহত আছে। অভিভাবক, শিক্ষক ও সংশ্নিষ্টদের প্রতি আমার আহবান সবাই যেন নিয়ম মেনে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আসেন এবং ক্লাস নেন।

তিনি আরো বলেন, কোনো শিক্ষার্থীর মাঝে যদি বিন্দুমাত্র করোনার উপসর্গ দেখা দেয় অভিভাবকরা যেন সঙ্গে সঙ্গে সংশ্নিষ্ট প্রতিষ্ঠানকে বিষয়টি অবগত করেন। শিক্ষক এবং সংশ্নিষ্ট দায়িত্বরতদের সাথে সাথে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশনা দেয়া আছে। কোথাও যাতে কোনভাবে স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘন না হয় সেটিও তদারকি করা হবে।

পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস

শিক্ষামন্ত্রী,শিক্ষক
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

ঘটনা পরিক্রমা : শিক্ষক

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close