• মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
  • ||

অটোপাসে অসন্তোষ ১৪ হাজার ৬৯২ শিক্ষার্থী

প্রকাশ:  ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১১:৪৬
নিজস্ব প্রতিবেদক

বৈশ্বিক মহামারী কোভিড-১৯’র কারণে দীর্ঘদিন হতে দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ রয়েছে। ২০২০ সালে এসএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হলেও এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হয়নি। কোভিড-১৯ তথা করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আশঙ্কায় এইচএসসি পরীক্ষা না নিয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় পরীক্ষার্থীদের অটোপাস দিয়েছে। এতে শতভাগ পাস করেছে। জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ লাখ ৬১ হাজারের বেশি। তারপরও ফলে সন্তষ্ট নন ১৪ হাজার ৬৯২ শিক্ষার্থী। তারা ফল পরিবর্তনের জন্য শিক্ষা বোর্ডে ‘রিভিউ’ আবেদন করেছেন।

গত ৩০ জানুয়ারি এইচএসসি ও সমমানের ফল প্রকাশ করা হয়। পরের দিন ৩১ জানুয়ারি থেকে ফল রিভিউ করার সুযোগ দেয় বোর্ডগুলো। শনিবার (৬ ফেব্রয়ারি) রাত ১২টা পর্যন্ত ছিলো আবেদন করার সুযোগ। তবে রিভিউ করা শিক্ষার্থীদের ফল কবে প্রকাশ করা হবে তা এখনো জানানো হয়নি।

এদিকে জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) এবং মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেয়েও এইচএসসিতে জিপিএ-৫ পাননি ৩৯৬ জন শিক্ষার্থী। এ শিক্ষার্থীরা কেন জিপিএ পাননি তার ব্যাখ্যা লিখিতভাবে দেবে শিক্ষা বোর্ডগুলো। যারা বোর্ডে আবেদন করেছে তাদের লিখিতভাবে জানানো হচ্ছে।

৩০ জানুয়ারি প্রকাশিত এইচএসসির ফলে জেএসসি এবং এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পাননি এমন ১৭ হাজার ৪৩ জন শিক্ষার্থী এবার এইচএসসিতে জিপিএ-৫ পেয়েছেন। অন্যদিকে জেএসসি এবং এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ ছিল কিন্তু এইচএসসিতে জিপিএ-৫ পাননি ৩৯৬জন।

এইচএসসি পরীক্ষা ২০২০ ফলাফল প্রণয়নে জেএসসি বা জেডিসি এবং এসএসসি বা সমমান পরীক্ষার বিষয় ম্যাপিং পদ্ধতি সম্পর্কে ফলাফলের পরিসংখ্যানে বলা হয়েছে- সাধারণভাবে জেএসসি বা সমমান পরীক্ষার ২৫ শতাংশ এবং এসএসসি বা সমমান পরীক্ষার ৭৫ শতাংশ বিষয়ভিত্তিক নম্বর বিবেচনায় নিয়ে এইচএসসির ফল নির্ধারণ করা হয়েছে।

গত বছরের ১ এপ্রিল শুরু হওয়ার কথা ছিলো এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। ১১টি শিক্ষা বোর্ডে ১৩ লাখ ৬৭ হাজার ৩৭৭ জন শিক্ষার্থীর অংশ নেওয়ার কথা ছিলো এই পরীক্ষায়। তবে, করোনা মহামারির কারণে এই পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হয়নি।

পূর্বপশ্চিমবিডি/অ-ভি

শিক্ষার্থী,অটোপাস,অসন্তোষ,করোনাভাইরাস,এইচএসসি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close