• শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯
  • ||

এসএসসিতে অটোপাসের দাবিতে কুড়িলে মানববন্ধন

প্রকাশ:  ২২ জানুয়ারি ২০২১, ১৬:৩৪ | আপডেট : ২২ জানুয়ারি ২০২১, ১৬:৪১
নিজস্ব প্রতিবেদক

২০২১ সালের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা না নিয়ে জেএসসি বা নবম শ্রেণির ফলাফল মূল্যায়নের ভিত্তিতে ‘অটোপাস’ দেওয়ার দাবি জানিয়ে রাজধানীর কুড়িল বিশ্বরোডে মানববন্ধনে করেছে একদল শিক্ষার্থী।

শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) সকালে কুড়িল বিশ্বরোডে এক মানববন্ধনে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা এ দাবি করেন। এ সময় অটোপাসের দাবিতে তাদের হাতে বিভিন্ন প্ল্যাকার্ড, ব্যানার হাতে দেখা যায়।

মানববন্ধনে অংশ নেওয়া ফারহান নামে এক জানান, করোনার কারণে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত ২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীরা। কারণ ২০২০ সাল পুরোটাই গেছে করোনার মধ্যে। এ সময়ের কোনো ক্লাস, প্র্যাকটিক্যালে অংশ নেওয়া হয়নি। অনলাইনে যে ক্লাস হয়েছে তাতেও সবাই অংশ নিতে পারেনি। এ কারণে পরীক্ষা নিলে বেশিরভাগ শিক্ষার্থীরা কাঙ্ক্ষিত ফলাফল থেকে বঞ্চিত হবে।

মানববন্ধনে অংশ নেওয়া অন্যান্য শিক্ষার্থীরা দাবি করেন, ২০২০ সালের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের অটোপাস দেওয়া হয়েছে। অথচ এ ব্যাচটি পুরো দুই বছর ক্লাস, টেস্ট পরীক্ষাসহ সব দিক থেকেই প্রস্তুতি ছিল। কিন্তু আমরা পুরো এক বছর ক্লাসের বাইরে ছিলাম। তারপরও পরীক্ষা নেওয়ার ব্যবস্থা করতে চায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এটা আমাদের প্রতি অবিচার করা হবে।

মানববন্ধনে সেশনজটের ঝামেলা এড়াতে এবারের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় অটোপাস ঘোষণার এবং তা আগামী ফেব্রুয়ারির মধ্যে দেওয়ার দাবি জানান তারা। এ বিষয়ে তারা প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীদের ‘বঙ্গবন্ধুর বাংলায় বৈষম্যের স্থান ঠায় নাই, এক দফা এক দাবি অটো পাস কবে দিবে’ স্লোগান দিতে দেখা যায়।

এর আগে মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ‘২০২১ এসএসসি বাতিল চাই অফিসিয়াল’ নামক একটি ফেসবুক গ্রুপের পক্ষ থেকে আয়োজিত এক মানববন্ধন থেকেও এসব দাবি জানানো হয়।

করোনার কারণে গত ১৭ মার্চ থেকে দেশব্যাপী সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে আয়োজন করা হয়নি ২০২০ সালের এইচএসসি পরীক্ষাও। পরে অটোপাস ঘোষণা করা হয়। তাছাড়া বাতিল করা হয়েছিল জেএসসি, পিইসি ও সমমানের পরীক্ষাও। পরীক্ষা ছাড়াই পরের শ্রেণিতে উত্তীর্ণ হয়েছে অন্যান্য শিক্ষার্থীরাও।

এদিকে, ২৯ ডিসেম্বর এক সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী জানান, করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে এবারের এসএসসি এবং এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা পিছিয়ে যাচ্ছে। পাঠ্যসূচি কাটছাঁট করে ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারি থেকে এপ্রিল পর্যন্ত ক্লাস করিয়ে জুন নাগাদ এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার আয়োজন করা হতে পারে। আর কাটছাঁট করা পাঠ্যসূচিতে থেকে আগামী বছরের মে পর্যন্ত এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার্থীদের শ্রেণীকক্ষে ক্লাস করিয়ে জুলাই-আগস্টে এ পরীক্ষা নেওয়া হতে পারে।


পূর্বপশ্চিমবিডি/জিএস

এসএসসি,কুড়িল,মানববন্ধন
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close