• বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারি ২০২১, ৭ মাঘ ১৪২৭
  • ||

শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীর যৌন হয়রানির অভিযোগ

প্রকাশ:  ১১ জানুয়ারি ২০২১, ১৯:২৬
নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজধানীর উত্তরা হাই স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষকের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছাত্রীদের যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। অভিযুক্ত ওই শিক্ষক প্রতিষ্ঠানটির ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক দিদারুল ইসলাম।

অভিযোগ উঠার পর পরই দিদারুল ইসলামকে কারণ দর্শানো নোটিশ দিয়েছে কলেজ কর্তৃপক্ষ।

কলেজটির একাধিক সূত্র জানায়, দীর্ঘদিন ধরে প্রতিষ্ঠানটির ইংরেজি বিভাগের শিক্ষকের এমন জঘন্য অপরাধ মুখ বুজে সহ্য করলেও সম্প্রতি এ বিষয়ে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা একে একে মুখ খুলতে শুরু করেছে।

সম্প্রতি দুজন ছাত্রী মেসেঞ্জারে পাঠানো প্রভাষক দিদারুল ইসলামের অশালীন চ্যাট ফেসবুকে শেয়ার করার পর তা ভাইরাল হয়।

এ বিষয় জানাজানি হলে অভিযুক্ত ওই শিক্ষক তাৎক্ষণিক নিজের ফেসবুক আইডি হ্যাক হয়েছে মর্মে উত্তরা পশ্চিম থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করে। এরপর তিনি নিজের আইডি থেকেই ফেসবুক হ্যাক হয়েছে বলে একটি স্ট্যাটাস দেন। কিছু সময় পর তার ফেসবুক আইডিটি ডিএক্টিভ করে দেন তিনি।

শিক্ষার্থী ও অভিভাবক সূত্রে জানা গেছে, ওই শিক্ষক উত্তরা হাই স্কুল এন্ড কলেজের ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক। সম্প্রতি ওই শিক্ষক অনামিকা আহমেদ নামের এক ছাত্রীকে ফেসবুকের মেসেঞ্জারে অশ্লীল প্রস্তাব দেন ও অশ্লীল ছবি পাঠাতে বলেন।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা বলেন, অন্য কোনো ছাত্রীর সঙ্গে যাতে এসব করতে না পারে, সে জন্য আমরা ওই লেখার স্ক্রিনশট ফেসবুকে দিই। বিষয়টি মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে যায়। এরপর তিনি ফোন করে ম্যানেজ করার চেষ্টা করেছে। আমি চাই না আমাদের প্রিয় কলেজটিতে ছাত্রীরা অনিরাপদ থাকুক। এই আইডি স্যারের আইডি, আমরা বহু প্রমাণ দিতে পারবো যে স্যার তার আইডি দিয়েই মেসেঞ্জারে ছাত্রীদের বিরক্ত করে আসছিল।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক দিদারুল ইসলাম মুঠোফোনে বলেন, ভুল নম্বরে কল দেয়া হয়েছে। এর একটু পরেই তিনি ফোন কেটে দেন। দ্বিতীয়বার ফোন করা হলে তিনি দিদারুল ইসলাম স্বীকার করেন। তবে ঘটনার বিষয়ে তিনি নির্দোষ কিনা এমন প্রশ্নে নামাজ পড়ছেন বলে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেন।

উত্তরা হাই স্কুল এন্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ তৌহিদুর রহমান বলেন, বিতর্কিত শিক্ষক দিদারুল ইসলামকে এর মধ্যেই শোকজ করেছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। বিষয়টি নিয়ে পরিচালনা কমিটি সাথে কথা বলে অভিযোগের সত্যতা মিললে দ্রুত কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।


পূর্বপশ্চিমবিডি/জিএস

শিক্ষক,ছাত্রী,যৌন হয়রানি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close