• রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
  • ||

এনটিআরসিএর শিক্ষক নিবন্ধনধারীরা মুক্তি চান

প্রকাশ:  ১৭ নভেম্বর ২০২০, ১৭:১৩
সাধন সরকার

লাখ লাখ শিক্ষক নিবন্ধন সনদধারী এনটিআরসিএর (বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ) গণবিজ্ঞপ্তির আশায় দিন পার করছেন। শিক্ষক নিয়োগের গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশের নিমিত্তে সারা দেশের এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর শূন্যপদের তথ্য অনেক আগেই সংগ্রহ করেছে ‘এনটিআরসিএ’। সূত্র মতে, প্রায় ৬০ হাজার শূন্য পদে শিক্ষক নিয়োগের উদ্দেশ্যে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশের কথা ছিল চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি-মার্চে।

করোনা মহামারীতে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা এলোমেলো হয়ে যাওয়ায় তা বন্ধ থাকে। তবে এখন স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রায় সব পর্যায়ে স্বাভাবিক কার্যক্রম চলছে। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ, পরীক্ষা ও সংশ্লিষ্ট অন্যান্য কার্যক্রম চলছে। কিন্তু দুঃখের বিষয়, পিছিয়ে আছে শুধু এনটিআরসিএ! অনেক সময় পেরিয়ে গেলেও এখনো গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করতে পারেনি এনটিআরসিএ। নিবন্ধিত শিক্ষকদের পক্ষ থেকে মানববন্ধন, এনটিআরসিএ ও শিক্ষা মন্ত্রণালয় বরাবর কয়েক দফায় স্মারকলিপি প্রদান করেও কোনো লাভ হয়নি! এনটিআরসিএর গণবিজ্ঞপ্তির অপেক্ষায় আছে লাখ লাখ নিবন্ধনধারী চাকরিপ্রত্যাশী। কেননা গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পরই কেবল চাকরিপ্রত্যাশীদের আবেদন শেষে ‘সোনার হরিণ’ নামক সেই কাঙ্ক্ষিত চাকরি মিললেও মিলতে পারে! প্রশ্ন হলো, নিবন্ধন সনদধারী বেকার চাকরিপ্রত্যাশীদের অপেক্ষার পালা শেষ হবে কবে?

আরো পড়ুন: যে ৬ শর্তে পদোন্নতি পাবেন প্রাথমিকের শিক্ষকরা

‘এমপিও নীতিমালা’ অনুযায়ী বয়স ৩৫ বছর পেরিয়ে গেলে বা ৩৫ এর বেশি বয়সীরা আসন্ন গণবিজ্ঞপ্তিতে আবেদন করতে পারবেন না। দুঃখের সংবাদ, গণবিজ্ঞপ্তি না হওয়ায় এরই মধ্যে শত শত মেধাবী শিক্ষক নিবন্ধনধারী গত কয়েক মাসে বয়স ৩৫ অতিক্রম করেছেন। ফলে আসন্ন গণবিজ্ঞপ্তিতে তারা আর আবেদন করতে পারবেন না। প্রতিটি দিন যাচ্ছে আর এভাবে বহু মেধাবী নিবন্ধনধারীর কপাল পুড়ছে। নিবন্ধিত চাকরিপ্রত্যাশীদের সাথে গণবিজ্ঞপ্তি নিয়ে এমন টালবাহানা কোনোভাবেই কাম্য নয়। গণবিজ্ঞপ্তি নিয়ে কালক্ষেপণ করা হলে তা হবে বেকার চাকরিপ্রত্যাশীদের সাথে প্রতারণার শামিল! মেধাবী শিক্ষক নিবন্ধন সনদধারীরা শিক্ষক হওয়ার সব যোগ্যতা অর্জন করেও আর কতকাল অপেক্ষা করবেন? বেকারত্বের অভিশাপ থেকে মেধাবী শিক্ষক নিবন্ধনধারীরা মুক্তি চান। অতি সম্প্রতি এনটিআরসিএর নতুন চেয়ারম্যান যোগদান করেছেন। অনেক আশা ও স্বপ্ন নিয়ে বসে আছেন শিক্ষক নিবন্ধনধারী চাকরিপ্রত্যাশীরা। তাই সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে দ্রুত গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হোক। করোনাকালে থমকে যাওয়া চাকরির বাজারে সারাদেশের বেকারদের মুখে হাসি ফোটানোর জন্য গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশের এখনই সময়।

লেখক: একজন নিবন্ধনধারী চাকরিপ্রত্যাশী

আরো পড়ুন: এনটিআরসিএ’র ১৭ সনদধারীকে নিয়োগ দিতে নির্দেশ হাইকোর্টের

পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস

এনটিআরসিএ,শিক্ষক
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

ঘটনা পরিক্রমা : শিক্ষক

cdbl
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close