• মঙ্গলবার, ০২ জুন ২০২০, ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
  • ||

প্রাথমিকের শিক্ষক-শিক্ষিকাদের প্রতি অধিদপ্তরের অনুরোধ

প্রকাশ:  ০৫ এপ্রিল ২০২০, ২১:৫৭ | আপডেট : ০৫ এপ্রিল ২০২০, ২২:০৩
নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনাভাইরাসের কারণে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ। এ অবস্থায় শিক্ষার্থীদের পড়াশোনায় যাতে বিঘ্ন না ঘটে, সেজন্য আগামী মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) থেকে সংসদ বাংলাদেশ টেলিভিশনে বিষয়ভিত্তিক পাঠদান কর্মসূচি ‘ঘরে বসে শিখি’র উদ‌্যোগ নেওয়া হয়েছে। রোববার (৫ এপ্রিল) প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর ক্লাসের রুটিন প্রকাশ করেছে। শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি প্রাথমিক পর্যায়ের সব শিক্ষক-শিক্ষিকাকে পাঠদান কার্যক্রম দেখার অনুরোধ করেছে অধিদপ্তর।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের আওতাধীন সব কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে এই কার্যক্রমে অংশগ্রহণের জন্য শিক্ষার্থীদের অবহিত করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

প্রাক-প্রাথমিক থেকে পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য নির্দিষ্ট রুটিন অনুযায়ী আগামী ৭ এপ্রিল থেকে এ কার্যক্রমের সম্প্রচার শুরু হবে। পাঠদান কার্যক্রম দুপুর ২টায় শুরু হয়ে শেষ হবে বিকেল ৪টায়। প্রতিটি বিষয়ে পাঠদান ২০ মিনিট পর্যন্ত চলবে।

টেলিভিশনে পাঠদানকারী শিক্ষক শ্রেণি পাঠ শেষে পাঠদান করা বিষয়ের ওপর বাড়ির কাজ দেবেন। শিক্ষার্থীরা প্রত্যেক বিষয়ের জন্য আলাদা খাতায় তারিখ অনুযায়ী বাড়ির কাজ সম্পন্ন করবে এবং বিদ্যালয় খোলার পর সংশ্লিষ্ট শিক্ষকের কাছে জমা দেবে।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মোহাম্মদ ফসিউল্লাহ বলেন, করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) এর পরিস্থিতিতে চলমান বিদ্যালয় ছুটির সময় শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার ধারাবাহিকতা রক্ষার জন্য বিষয়ভিত্তিক পাঠদান কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। আগামী মঙ্গলবার আমরা ক্লাস শুরু করতে পারবো। আমাদের প্রস্তুতি শুধু এ সময়ের জন্য নয়। ভবিষ্যতেও আমাদের কার্যক্রম চলবে। সে হিসেবে আমাদের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। টেলিভিশনে পাশাপাশি এসব ক্লাস ইউটিউবেও আপলোড করা হবে। সেখান থেকে শিক্ষার্থীরা যেকোনো সময় ক্লাস লেকচারগুলো পুনরায় দেখার সুযোগ পাবে।

মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা রবীন্দ্রনাথ রায় বলেন, টেলিভিশনে পাঠদানকারী শ্রেণি শিক্ষক পাঠ শেষে পাঠদান করা বিষয়ের উপর বাড়ির কাজ দেবেন। শিক্ষার্থীরা প্রত্যেক বিষয়ের জন্য আলাদা খাতায় তারিখ অনুযায়ী বাড়ির কাজ সম্পন্ন করবে এবং বিদ্যালয় খোলার পর সংশ্লিষ্ট শিক্ষকের কাছে জমা দেবে। ৭-৯ এপ্রিলের রুটিন

৭ এপ্রিল দুপুর ২টা থেকে ২টা ২০ মিনিট পর্যন্ত প্রাক-প্রাথমিকের ক্রিয়াকলাপভিত্তিক অনন্দদায়ক শিখন, ২.২০-২.৪০ মিনিট পর্যন্ত প্রথম শ্রেণির বাংলা, ২.৪০-৩টা পর্যন্ত দ্বিতীয় শ্রেণির ইংরেজি, ৩টা থেকে ৩.২০ মিনিট পর্যন্ত তৃতীয় শ্রেণির বিজ্ঞান, ৩টা ২০ মিনিট থেকে ৩টা ৪০ মিনিট পর্যন্ত চতুর্থ শ্রেণির গণিত এবং ৩টা ৪০ মিনিট থেকে ৪টা পর্যন্ত পঞ্চম শ্রেণির বিজ্ঞান।

৮ এপ্রিল দুপুর ২টা থেকে ২টা ২০ মিনিট পর্যন্ত প্রাক-প্রাথমিকের ক্রিয়াকলাপভিত্তিক অনন্দদায়ক শিখন, ২.২০-২.৪০ মিনিট পর্যন্ত প্রথম শ্রেণির গণিত, ২টা ৪০ মিনিট থেকে ৩টা পর্যন্ত দ্বিতীয় শ্রেণির বাংলা, ৩টা থেকে ৩টা ২০ মিনিট পর্যন্ত তৃতীয় শ্রেণির ইংরেজি, ৩টা ২০ থেকে ৩টা ৪০ মিনিট পর্যন্ত চতুর্থ শ্রেণির বিজ্ঞান এবং ৩টা ৪০ থেকে ৪টা পর্যন্ত পঞ্চম শ্রেণির গণিত বিষয়ের ক্লাস হবে।

৯ এপ্রিল দুপুর ২টা থেকে ২টা ২০ মিনিট পর্যন্ত প্রাক-প্রাথমিকের ক্রিয়াকলাপ ভিত্তিক অনন্দদায়ক শিখন, ২.২০-২.৪০ মিনিট পর্যন্ত প্রথম শ্রেণির ইংরেজি, ২টা ৪০ থেকে ৩টা পর্যন্ত দ্বিতীয় শ্রেণির গণিত, ৩টা থেকে ৩টা ২০ মিনিট পর্যন্ত তৃতীয় শ্রেণির বিজ্ঞান, ৩টা ২০ থেকে ৩টা ৪০ মিনিট পর্যন্ত চতুর্থ শ্রেণির ইংরেজি এবং ৩টা ৪০ থেকে ৪টা পর্যন্ত পঞ্চম শ্রেণির বিজ্ঞানের ক্লাস অনুষ্ঠিত হবে।

পরবর্তী রুটিন যথাসময়ে জানানো হবে বলে এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে অধিদপ্তর।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বলেন, ডিজিটাল ক্লাস এ সপ্তাহে দুপুর ২টা থেকে ৪টা পর্যন্ত হবে। আগামী সপ্তাহে সকাল ৯টা থেকে ১১টা। আর মাধ্যমিকের ক্লাস শুরু হবে সকাল ১১টায়।

১৮ মার্চ থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের মধ্যে গত ২৯ মার্চ থেকে মাধ্যমিক শিক্ষার্থীদের জন্য টিভিতে ক্লাস দেখানো শুরু হয়। এরই মধ্যে সাধারণ ছুটি বাড়ানোয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটিও ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা মহাপরিচালক সৈয়দ গোলাম ফারুক বলেন, মাধ্যমিকের ক্লাস মনিটর করার জন্য একটি আলাদা সেল গঠন করেছি। তারা মনিটর করছে। নানা রকম সুপারিশ ও মতামত আসছে, সেগুলো আমলে নিয়ে পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।

আরও পড়ুন: শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটিও ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত

স্কুল-কলেজ শিক্ষকদের মার্চের এমপিওর চেক ছাড়

পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস

শিক্ষক
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close