• বুধবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৬ ফাল্গুন ১৪২৬
  • ||

ধর্ষণ বন্ধের উপায় জানালেন ঢাবি শিক্ষক তাসলিমা

প্রকাশ:  ২৮ জানুয়ারি ২০২০, ০২:১৬ | আপডেট : ২৮ জানুয়ারি ২০২০, ০২:৪০
নিজস্ব প্রতিবেদক
ঢাবি শিক্ষক তাসলিমা ইয়াসমিন। ছবি সংগৃহীত

মানসিক বিকৃতির কারণে ধর্ষণের সংখ্যা বাড়ছে, পাশাপাশি আইনের দুর্বলতা এবং বিচার ব্যবস্থার অবনতির কারণে অপরাধীরা এই সুযোগ কাজে লাগাচ্ছে। কারণ অপরাধীরা ধারণা করছে যে, তারা ধর্ষণ করলে পার পেয়ে যাবে। সোমবার বেসরকারি টিভি চ্যানেল ডিবিসি নিউজে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক তাসলিমা ইয়াসমীন এ কথা বলেন।

তাসলিমা ইয়াসমীন বলেন, বর্তমান অপরাধ প্রবণতার মাধ্যমগুলো পরিবর্তন হয়েছে, মানুষের মনুষত্ববোধ এবং সামাজিক মূল্যবোধ হারিয়ে গেছে। প্রত্যেকটা মানুষের দুঃসাহস বেড়ে গেছে।

সম্পর্কিত খবর

    তিনি বলেন, ধর্মের অনুশাসন রয়েছে , পরিবারের শাসন রয়েছে, মা-বাবার শাসন রয়েছে কিন্তু তার মাধ্যমে কিশোরদের যে, শিক্ষা দেয়া হচ্ছে তার মধ্যে একটা গ্যাপ থেকে যাচ্ছে, যা বর্তমান শিশু ও কিশোরদের মধ্যে মানসিকতায় পজেটিভ প্রভাব ফেলছে না। ফলে তারা বিভিন্ন ধরণের অপরাধের সংঙ্গে যুক্ত হচ্ছে। ১৯৯৫ কেজি খিচুড়ি রান্না করে বিশ্ব রেকর্ড ≣ সকল রাজকীয় দায়িত্ব ছাড়লেন প্রিন্স হ্যারি ও মেগান, আহত হয়েছে রাজপরিবার, জানালো বাকিংহাম প্যালেস ≣ কৌশলে গ্রাহককে জিম্মি করে কোটিপতি ইভ্যালি

    তিনি আরও বলেন, ধর্ষণ এবং অপরাধ মোকাবেলায়, আমাদের গদবাধা শিক্ষা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে এবং নারী পুরুষের মাঝে বৈষম্য দূর করতে হবে। পরিবার কি শিক্ষা দিচ্ছে, পাঠ্যক্রমে কি শিক্ষা দেয়া হচ্ছে, সেই দিকে খেয়াল রাখতে হবে। ধর্ষণের ক্ষেত্রে নতুন আইনপ্রনয়ণ করতে হবে, বাক্য এবং ভাষাগত পরিবর্তন আনতে হবে।

    মিডিয়াকে একত্রিত হয়ে নারীর ক্ষমতায়ন নিয়ে কাজ করতে হবে। রাষ্ট্রকে এগিয়ে আসতে হবে, পাশাপাশি ধর্ষণের ক্ষেত্রে বিচারকমন্ডলী সঠিক ভাবে কাজ করছে কিনা সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। আমাদেরসময়.কম।

    ঢাবি শিক্ষক তাসলিমা
    মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
    • সর্বশেষ
    • সর্বাধিক পঠিত
    close