• মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল ২০২০, ২৪ চৈত্র ১৪২৬
  • ||

মুক্তিযোদ্ধাদের রক্তকে ফুলের বাগানে রাঙাতে কাজ করছে শেখ হাসিনা: ফারুক

প্রকাশ:  ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২১:৫৯ | আপডেট : ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২২:০৪
ক্যাম্পাস প্রতিনিধি

১৯৭১ সালের স্বাধীনতা সংগ্রামে মহান মুক্তিযোদ্ধারা তাদের তাজা রক্তের বিনিময়ে আমাদের জন্য ছিনিয়ে এনেছিল স্বাধীনতা।তাদের সেই রক্তকে ফুলের বাগানে সাজাতে বর্তমানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কাজ করে যাচ্ছেন বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা ১৭ আসনের সংসদ সদস্য আকবর খান পাঠান (নায়ক ফারুক)।

সোমবার (১৬ ডিসেম্বর) সকাল ১১টায় রাজধানীর সরকারি তিতুমীর কলেজে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

ফারুক বলেন, পঁচাত্তরে বঙ্গবন্ধুর পরিবারকে যখন নৃশংস ভাবে হত্যা করা হয় তখন বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বাস্তবায়নের জন্য শত বাধা উপেক্ষা করে এই দেশের হাল ধরেন শেখ হাসিনা। যুদ্ধের পরে দেশটাকে গড়তে শিক্ষার প্রয়োজন, আর সেই শিক্ষা অধিকার বাস্তবায়নে ঘরে ঘরে বই পৌঁছে দিচ্ছেন শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনা যেভাবে কাজ করে যাচ্ছেন আমরা বিশ্বাস করি. এই দেশে ক্ষুধা থাকবে না, কান্না থাকবে না। শেখ হাসিনা আমাদের সোনার বাংলা উপহার দেওয়ার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন।

সরকারি তিতুমীর কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আশরাফ হোসেনের সভাপতিত্বে ও রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক প্রফেসর সালমা মুক্তার সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন. সরকারি তিতুমীর কলেজের উপাধ্যক্ষ ড.মোসাঃ আবেদা সুলতানা, শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক প্রফেসর মালেকা আক্তার বানু, মহান বিজয় দিবস উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক প্রফেসর নাসিমা আক্তার।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন সরকারি তিতুমীর কলেজ ছাত্রলীগ সাবেক সভাপতি মিরাজুল ইসলাম ডলার, সাধারণ সম্পাদক মানিক হোসেন মানিক, বর্তমান ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ রিপন মিয়া, সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হক জুয়েল মোড়ল সহ বিভিন্ন ডিপার্টমেন্টের বিভাগীয় প্রধান, শিক্ষকবৃন্দ ও কলেজের শিক্ষার্থীরা।

সভাপতির বক্তব্যে সরকারি তিতুমীর কলেজের অধ্যক্ষ বলেন, ১৯৪৭ সাল থেকে ভাষা আন্দোলনের মাধ্যমে শুরু হয় স্বাধীন একটি ভূখন্ডের স্বপ্ন দেখা। এরপর ৬৯ এর গণঅভূত্থান, ৭০ এর নির্বাচন এবং ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীন বাংলাদেশের জন্য। আমাদের দীর্ঘ স্বাধীনতা সংগ্রামের আন্দোলনের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

তিনি বলেন, মহান বিজয় দিবসের এদিনে জাতির পিতাসহ পঁচাত্তরে শহিদ হওয়া তার পরিবারের সদস্যদের কৃতজ্ঞচিত্রে স্মরণ করি। অনেক ত্যাগ আর বিসর্জনের বিনিময়ে এ স্বাধীনতা অর্জিত হয়েছে। এটি অটুট রাখতে হলে যার যার অবস্থান থেকে সবাইকে দায়িত্ব পালন করতে হবে। তাহলে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণ হবে।

অনুষ্ঠানে বক্তব্যের পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয় এবং অনুষ্ঠানের শেষে মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।

পূর্বপশ্চিমবিডি/জিএম

আকবর খান পাঠান,নায়ক ফারুক,অভিনেতা,সংসদ সদস্য,সরকারি তিতুমীর কলেজ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close