• বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১৭ আশ্বিন ১৪২৭
  • ||

৬ বছর ধরে স্কুলে যাননি শিক্ষিকা, তুলছেন বেতন ভাতা!

প্রকাশ:  ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:৫৮ | আপডেট : ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ০১:০৬
বরিশাল প্রতিনিধি

বরিশালের মুলাদী উপজেলার জাগরণী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা ঝুমুর আক্তার দীর্ঘ ৬ বছর ধরে স্কুলে ক্লাস না করিয়ে বেতন তুলে নিচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এমনকি তার বদলে অন্য শিক্ষকদের ব্যাবহারও করছেন স্কুলটির প্রধান শিক্ষক। স্কুলটির ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি এ্যাডভোকেট তারিকুল ইসলাম পলাশের ভাইয়ের বউ হওয়ায় এ নিয়ে অন্য শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা প্রতিবাদ করার সাহসও পান না।

অভিযোগ রয়েছে, বেতনের টাকার অর্ধেক প্রধান শিক্ষককে দেয়ায় তিনিই বিষয়টি ধামাচাপা দিয়ে ম্যানেজ করে নেন। স্কুলে অনুপস্থিত থাকার অভিযোগে সম্প্রতি সরেজমিনে গেলে স্কুলের কর্মরত শিক্ষক-শিক্ষিকারা কথা বলতে রাজি হননি।

ওই স্কুলে অধ্যায়নরত শিক্ষার্থীরা বলেছেন, ঝুমুর আক্তার নামে তাদের স্কুলে কোনো শিক্ষিকা নেই। তাকে চেনে বলে জানায় শিক্ষার্থীরা।

গণিত বিভাগের শিক্ষক মজিবুর রহমান জানান, স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি এ্যাড. তারিকুল ইসলাম পলাশ সাহেবের ভাইয়ের বউ ঝুমুর আক্তার। এ ব্যাপারে বরিশাল গিয়ে দেখা করে তার সাথে কথা বলতে পারেন।

প্রধান শিক্ষক মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, আমি কোনো টাকার ভাগ নেই না। আমরা রাজকীয় পরিবারের লোক। আমরা সকলে শিক্ষক ম্যানেজিং কমিটির নির্দেশনা অনুযায়ী চলি। ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি এ্যাড মো. তরিকুল ইসলামের ভাইয়ের বউ ঝুমুর আক্তার বর্ষার মৌসুমে স্কুলে অনুপস্থিত থাকলেও শীতের মৌসুমে প্রতিদিন নিয়মিত ক্লাস করান। তিনি সমাজ বিজ্ঞানের শিক্ষিকা।

অভিযুক্ত স্কুল শিক্ষিকা ঝুমুর আক্তারের কাছে এ বিষয়ে কথা বলতে চাইলে সাংবাদিক পরিচয় দেয়ার পর-পরই তিনি মোবাইলের সংযোগ কেটে দেন। পরে একাধিকবার কল দিলেও তিনি আর রিসিভ করেন নি।

এ ব্যাপারে স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি এ্যাড মো. তরিকুল ইসলাম পলাশ বলেন, আমার শ্যালক কাষ্টম অফিসার ও যুগ্ম সচিব। আমি একজন আইনজীবী সমিতির সদস্য। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যদি বলেন, তবে আমার ভাইয়ের বউকে বরখাস্ত করা হবে। সাংবাদিকরা রেশনের চাল দেয়, সেখানে গিয়ে ডিস্টার্ব করে বেড়ায়। তাদের খেয়ে, ধেয়ে কি কাম নাই!

এ বিষয়ে জেলা শিক্ষা অফিসার মো. আনোযার হোসেন জানান, মুলাদী উপজেলার মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারকে জরুরি ভিত্তিতে সরেজমিনে গিয়ে অনুসন্ধান পূর্ব প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে। তদনন্ত প্রতিবেদন দাখিলের পর প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে তদন্ত প্রতিবেদন পাঠানো হবে।

পূর্বপশ্চিম/এসএস

বরিশাল,শিক্ষক
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close