• সোমবার, ৩০ মার্চ ২০২০, ১৬ চৈত্র ১৪২৬
  • ||

জিজ্ঞাসাবাদে তিন ‘গড মাদার’র নাম বলেছেন পাপিয়া

প্রকাশ:  ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৬:৪৬
নিজস্ব প্রতিবেদক

কোটি টাকার প্লট, বিলাসবহুল গাড়ি এবং ফ্ল্যাট। নিজস্ব ক্যাডার বাহিনী। বিদেশি পিস্তল। নগদ টাকা। কী নেই তার? সবই আছে। আছে বিশেষ ধরনের ব্যবসা। রাজনীতিবিদদের সঙ্গে বিশেষ নেটওয়ার্ক। তিনি শামিমা নূর পাপিয়া ওরফে পিউ। নরসিংদী জেলা যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক(বহিষ্কৃত) ছিলেন। আর এই পরিচয় ব্যবহার করে রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় তিনি অঢেল সম্পদের মালিক হয়েছেন। টাকার জোরেই নরসিংদী যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক পদটি বাগিয়ে নিয়েছিলেন।

অল্প দিনেই আঙুল ফুলে কলাগাছ হওয়া এই নেত্রী ৫ দিনের রিমান্ডের প্রথম দিনে জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশকে তিন ‘গড মাদার’ এর তথ্য দিয়েছেন। ওই তিন নেত্রীর আশ্রয়ে-প্রশ্রয়েই তার সম্রাজ্ঞী হয়ে ওঠা। এমনটিই জানিয়েছেন জিজ্ঞাসাবাদের দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তারা।

জাল টাকা সরবরাহ, মাদক ব্যবসা, অনৈতিক কাজ, অবৈধ অস্ত্র ও মাদক রাখার অভিযোগে পাপিয়া, তার স্বামী মফিজুর রহমান ওরফে মতি সুমনসহ চারজনকে মঙ্গলবার থেকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে রাজধানীর বিমানবন্দর থানা পুলিশ।

বিদেশে পালিয়ে যাওয়ার সময় ২২ ফেব্রুয়ারি হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে পাপিয়া ও তার স্বামীসহ চারজনকে আটক করে র‌্যাব। পরে তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয় এবং আদালত পাপিয়া ও তার স্বামীর ১৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে। মামলার অপর দুই আসামি পাপিয়ার সহযোগী সাব্বির খন্দকার ও শেখ তায়্যিবা। বর্তমানে তারা সবাই রিমান্ডে রয়েছেন।

রিমান্ডের প্রথম দিনেই গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছেন পাপিয়া। পাপিয়ার বিরুদ্ধে করা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও বিমানবন্দর থানার পরিদর্শক মো. কায়কোবাদ কাজী জানিয়েছেন, জিজ্ঞাসাবাদে পাপিয়ার অপরাধজগৎ সম্পর্কে চমকপ্রদ তথ্য বেরিয়ে আসছে। মূলত যুব মহিলা লীগের শীর্ষস্থানীয় দুই নেত্রী ও ঢাকার একজন সাবেক নারী সাংসদের আশ্রয়-প্রশ্রয় থেকে মাদক ব্যবসা, অনৈতিক কর্মকাণ্ড ও চাঁদাবাজি করতেন।

তিনি বলেন, এছাড়া চাকরি দেওয়ার কথা বলে কিংবা বিদেশে পাঠানোর নামে অনেকের কাছ থেকে তিনি বিপুল অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন।

মো. কায়কোবাদ কাজী বলেন, নরসিংদীর এক ব্যক্তিকে বিদেশে পাঠানোর কথা বলে পাপিয়া তাঁর কাছ থেকে আড়াই লাখ টাকা নেন। শেষ পর্যন্ত বিদেশে পাঠাতে না পারায় ওই ব্যক্তি টাকা ফেরত চাইলে তাঁকে মারধর করে তাড়িয়ে দেওয়া হয়। ওই ব্যক্তি থানায় মামলা করতে (গতকাল) এসেছিলেন। তাঁকে নরসিংদীতে মামলা করার পরামর্শ দেওয়া হয়।


পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএম

শামীমা নূর পাপিয়া,যুব মহিলালীগ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close