• সোমবার, ০৮ আগস্ট ২০২২, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯
  • ||

দুর্নীতির মামলায় সাবেক সংসদ সদস্য জ্যোতির ৭ বছরের কারাদণ্ড

প্রকাশ:  ১৯ মে ২০২২, ১৯:১১
বগুড়া প্রতিনিধি

বগুড়ার বিএনপি দলীয় সাবেক সংসদ সদস্য নূর আফরোজ বেগম জ্যোতিকে দুর্নীতির দায়ে দু’টি ধারায় ৭ বছরের কারাদণ্ড এবং ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন আদালত। অনাদায়ে তাকে আরও তিন মাসের বিনাশ্রম দণ্ডাদেশ দেওয়া হয়। এছাড়া আদালত অবৈধভাবে অর্জন করা ৫৩ লক্ষাধিক টাকা রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্ত করেছেন।

বৃহস্পতিবার (১৯ মে) দুপুরে জেলার স্পেশাল জজ আদালতের বিচারক এমরান হোসেন চৌধুরী মামলার রায় ঘোষণা করেন।

রায় ঘোষণার পর পরই সাবেক সংসদ সদস্য নূর আফরোজ বেগম জ্যোতিকে কারাগারে পাঠানো হয়। ২০০১ সালে জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনের এই সংসদ সদস্য এক সময় জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের বগুড়া জেলা কমিটির সভাপতি ছিলেন।

দুদকের স্পেশাল পিপি এসএম আবুল কালাম আজাদ জানান, তিনি এ রায়ে সন্তুষ্ট।

আসামিপক্ষের আইনজীবী আবদুল বাছেদ জানান, অধ্যক্ষ জ্যোতি বিএনপির হাইপ্রোফাইল নেত্রী হওয়ায় সরকার রাজনৈতিক প্রতিহিংসা পরায়ণ হয়ে দুদকের মাধ্যমে এ সাজা সৃষ্টি করেছে। আইন মন্ত্রণালয়ের অধীনে বিচার বিভাগ থাকায় জনগণ ন্যায় ও নিরপেক্ষ বিচার পাচ্ছে না; সরকারের ইশারায় আদালত রায় দিচ্ছেন।

তিনি আরও বলেন, যে অভিযোগে সাজা দেওয়া হলো তা বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। শিগগিরই উচ্চ আদালতে আপিল ও জামিনের উদ্যোগ নেওয়া হবে।

আদালত, দুদক ও স্থানীয় সূত্র জানায়, নূর আফরোজ বেগম জ্যোতি বগুড়া জেলা মহিলা দলের সাবেক সভানেত্রী, কেন্দ্রীয় মহিলা দলের সাবেক সহ-সভাপতি, জেলা বিএনপির সাবেক উপদেষ্টা। ২০০১-২০০৬ সাল পর্যন্ত অষ্টম জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য ছিলেন। বর্তমানে কেন্দ্রীয় সমবায় দলের সভানেত্রী নূর আফরোজ বেগম জ্যোতি বগুড়া শহরের উত্তর কাটনারপাড়ার প্রফেসর আবদুর রউফের স্ত্রী।

শিবগঞ্জ এমএইচ ডিগ্রি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ জ্যোতি ছাত্রজীবন থেকে বিএনপির রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন। তিনি গত ২০১৩ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি দুদক বগুড়া সমন্বিত কার্যালয়ে ১৯৯৯ থকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত তার স্থাবর, অস্থাবর ও দায়দেনার হিসাব বিবরণী দাখিল করেন। দাখিলকৃত সম্পদ বিবরণীতে ২৮ লাখ ১৭ হাজার ১৮৪ টাকা মূল্যের সম্পদ অর্জনের মিথ্যা তথ্য দেন।

পূর্বপশ্চিম - এনই

নূর আফরোজ বেগম জ্যোতি,দুর্নীতি মামলা
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close