• শুক্রবার, ২১ জানুয়ারি ২০২২, ৭ মাঘ ১৪২৮
  • ||

ডা. মুরাদ হাসানের বিরুদ্ধে ঢাবি শিক্ষার্থীর জিডি

প্রকাশ:  ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ২৩:১৩
নিজস্ব প্রতিবেদক

মুরাদ হাসানের বিরুদ্ধে শাহবাগ থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী। সেটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) হিসেবে গ্রহণ করেছে থানা। অভিযোগটি পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইউনিটে মামলা হিসেবে নেওয়ারও আবেদন করেছেন ঢাবির ওই শিক্ষার্থী।

অভিযোগকারী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সলিমুল্লাহ মুসলিম হল সংসদের সাবেক সাধারণ সম্পাদক (জিএস) জুলিয়াস সিজার তালুকদার।

সম্পর্কিত খবর

    অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, ডা. মুরাদ হাসান তাঁর এক বক্তব্যে স্পষ্ট করে উল্লেখ করেন, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রস্রাব করার সময় ও আমার নাই।’ এতে স্পষ্ট প্রতীয়মান হয় যে, দেশের সর্ব প্রাচীন ও ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠকে উদ্দেশ্যমূলকভাবে তাচ্ছিল্য করেছেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঐতিহ্যবাহী রোকেয়া হল এবং শামসুন্নাহার হলের নারী শিক্ষার্থীদের চরিত্রহননের অপচেষ্টা করে বলেন, ‘তারা রাতে নিজের হলে অবস্থান না করে বিভিন্ন পাঁচ তারকা হোটেলে গিয়ে রাত্রি যাপন করে।’ এই বাক্য দিয়ে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নারী শিক্ষার্থীদের চরিত্রহননের অপচেষ্টা করেছেন। আমরা মনে করি, যেকোনো বিদ্যাপীঠই পবিত্র স্থান এবং একজন নাগরিকের চারিত্রিক বিষয়ে মন্তব্য করার ক্ষেত্রে একটি সীমারেখা রক্ষা করা সব নাগরিকের দায়িত্ব।

    ওই দুটি মন্তব্যের মাধ্যমে শুধু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নয় বরং বিদ্যাপীঠ সমূহের প্রতি তীব্র অশ্রদ্ধা প্রদর্শনের মাধ্যমে মধ্যযুগীয় কায়দায় ঘৃণার রাজনীতি করার অপপ্রয়াস দেখিয়েছেন ডা. মুরাদ। অন্যদিকে নারী শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার মূলক বক্তব্য দিয়ে তাঁদের চরিত্রহননের অপচেষ্টা করে নারীর রাজনীতি ও সামাজিক কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণের বিরোধিতা করেছেন।

    এ বিষয়ে জানতে চাইলে জুলিয়াস সিজার তালুকদার বলেন, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে অপদস্থ করে তিনি যে বক্তব্য দিয়েছেন এবং আমাদের নারী শিক্ষার্থীদের নিয়ে অপবাদ দিয়েছেন সে জন্য আমি তাঁর বিরুদ্ধে শাহবাগ থানায় জিডি করেছি। পাশাপাশি সাইবার ইউনিটে মামলা হিসেবে নেওয়ার আবেদন করেছি।’

    এ ব্যাপারে জানতে চাইলে শাহবাগ ডিউটি অফিসার চম্পক চক্রবর্তী বলেন, ‘আমরা জিডির কপি হাতে পেয়েছি। এখনো জিডি নাম্বার দেওয়া হয়নি।’

    পিপি/জেআর

    মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
    • সর্বশেষ
    • সর্বাধিক পঠিত
    close