• মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৬ আশ্বিন ১৪২৮
  • ||

জামায়াতের হামিদুর রহমান আযাদসহ দুই নেতা কারাগারে

প্রকাশ:  ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২০:২৪ | আপডেট : ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২০:২৫
নিজস্ব প্রতিবেদক

সন্ত্রাসবিরোধী আইনে করা মামলায় জামায়াতে ইসলামীর অ্যাসিস্টেন্ট সেক্রেটারি জেনারেল হামিদুর রহমান আযাদ ও নির্বাহী পরিষদ সদস্য আব্দুর রবকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালতে। একই সঙ্গে জামায়াতের কর্মী মনিরুল ইসলাম ও আব্দুল কালাম দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন।

রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) চার দিনের রিমান্ড শেষে তাদের ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। এরপর মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত হামিদুর রহমান ও আব্দুর রবকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করে পুলিশ। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মহানগর হাকিম মাসুদ উর রহমান তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

অন্যদিকে মনিরুল ও কালাম স্বেচ্ছায় দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দিতে সম্মত হওয়ায় তা রেকর্ড করার আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবির পরিদর্শক কাজী ওয়াজেদ আলী।

আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মহানগর হাকিম শহিদুল ইসলাম আসামি মনিরুলের ও ঢাকা মহানগর হাকিম মোর্শেদ আল মামুন ভুইয়া আসামি কামালের স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি রেকর্ড করেন। এরপর তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত।

অন্যদিকে রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) চারদিনের রিমান্ড শেষে জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল মিয়া গোলাম পরওয়ারসহ পাঁচ আসামিকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। এরপর ভাটারা থানায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে করা মামলা সুষ্ঠু তদন্তের জন্য আবারও তাদের ১০ দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করেন ডিবি পুলিশের পরিদর্শক কাজী ওয়াজেদ আলী। অন্যদিকে তাদের আইনজীবী রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষ ঢাকা মহানগর হাকিম মাসুদ উর রহমান তাদের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

রিমান্ডে যাওয়া আসামিরা হলেন- জামায়াতে ইসলামীর অ্যাসিস্টেন্ট সেক্রেটারি জেনারেল রফিকুল ইসলাম খান, নির্বাহী পরিষদ সদস্য ইজ্জত উল্লাহ, মোবারক হোসেন ও ছাত্রশিবিরের সাবেক সভাপতি ইয়াসিন আরাফাত।

এর আগে ৭ সেপ্টেম্বর ৯ আসামিকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। এরপর ভাটারা থানায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে করা মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য ১০ দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করেন ভাটারা থানার উপ-পরিদর্শক আমিনুল ইসলাম। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম বেগম মাহমুদা আক্তার তাদের প্রত্যেকের চারদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গত ৬ সেপ্টেম্বর রাতে ভাটারা থানায় জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল মিয়া গোলাম পরওয়ারসহ নয়জনের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবিরোধী আইনে মামলা করে পুলিশ। মামলায় অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয় অনেককে। সেদিনই বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা থেকে তাদের আটক করে পুলিশ।

পূর্বপশ্চিমবিডি/অ-ভি

নেতা,হামিদুর রহমান আযাদ,জামায়াত
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close