• বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭
  • ||

নীলা হত্যা: প্রধান আসামি মিজান ৭ দিনের রিমান্ডে

প্রকাশ:  ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৬:৫৬
নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢাকার সাভারে দশম শ্রেণির ছাত্রী নীলা রায় হত্যা মামলার প্রধান আসামি মিজানুর রহমান চৌধুরীর ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত। শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) বিকেলে শুনানি শেষে ঢাকার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রাজীব হাসান এ আদেশ দেন।

এদিন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সাভার থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নির্মল চন্দ্র দাস আসামিকে আদালতে হাজির করে দশ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন।

শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে সাভারের তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়নের রাজফুলবাড়িয়ার কর্নেল ব্রিকস ফিল্ডের পাশে অভিযান পরিচালনা করে মিজানুর রহমানকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এ সময় মিজানের দুই সহযোগী সাকিব ও জয়কে আটকসহ আলামত হিসেবে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত একটি ছুরিও জব্দ করা হয় বলে জানায় পুলিশ। পরে ওই দুজনকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়। মিজানুর রহমানকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মারুফ হোসেন সরদার।

নীলা হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় এখন পর্যন্ত মিজান ও তার মা-বাবাসহ ছয়জনকে গ্রেপ্তার করা হলো।

এদিকে, দুদিনের পুলিশ হেফাজতে রয়েছেন মিজানের বাবা আবদুর রহমান ও মা নাজমুন নাহার সিদ্দিকী। রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদে তাদের কাছ থেকেও বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়ার কথা জানিয়েছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা সাভার মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম। এর আগে শুক্রবার মিজানের মা-বাবাকে দুদিনের রিমান্ডের আদেশ দেন আদালত।

মিজানের বাবা আবদুর রহমান ও তার স্ত্রী সাভারের ব্যাংক কলোনি এলাকায় ভাড়া থাকতেন। তবে নীলা হত্যাকাণ্ডের পরই মূল আসামি মিজানুর রহমানসহ তারাও আত্মগোপনে চলে যান।

এদিকে, মিজানুর রহমানকে গ্রেপ্তারের দাবিতে ২৩টি সংগঠন নিয়ে আন্দোলনে নামা সাভার দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক সালাহউদ্দিন খান নঈম বলেন, ‘এই হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে আমাদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।’

তিনি বলেন, ‘মূল আসামি গ্রেপ্তার হওয়ায় আমরা পুলিশের ভূমিকাকে স্বাগত জানাই। নিঃসন্দেহে তা সংক্ষুব্ধ পরিবারের জন্য কিছুটা হলেও স্বস্তি এনে দেবে। তবে হত্যাকাণ্ডের দ্রুত বিচারের দাবিতে আমাদের আন্দোলন জোরদার থাকবে।’

নীলার পরিবারের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে নীলাকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল একই এলাকার বাসিন্দা মিজানুর রহমান মিজান। আব্দুর রহমান-নাজমুন্নাহার দম্পতির সন্তান মিজান এইচএসসি পরীক্ষার্থী। প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করার কারণেই গত ২০ সেপ্টেম্বর রাতে হাসপাতালে যাওয়ার সময় ভাইয়ের সামনে থেকে স্থানীয় অ্যাসেড স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্রী নীলা রায়কে তুলে নিয়ে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাতে হত্যা করে বখাটে মিজান। ওই ঘটনায় নীলার বাবা নারায়ণ রায় গত ২১ সেপ্টেম্বর রাতে মিজান, তার বাবা আব্দুর রহমান ও মা নাজমুন্নাহার সিদ্দিকাসহ অজ্ঞাতনামা আরও কয়েকজনকে আসামি করে সাভার থানায় মামলাটি দায়ের করেন।

পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস

সাভার
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close