• বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
  • ||

ঢামেক হাসপাতালে কর্মচারীকে পিটিয়ে হত্যা

ধূমপানের কথা পরিবারকে বলে দেওয়ায় এমন নৃশংসতা!

প্রকাশ:  ০২ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৯:১২ | আপডেট : ০২ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৯:১৮
নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢাকা মেডিক‌্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের কর্মচারী আমির হোসেনকে (৪২) পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে আসামি মো. ইব্রাহিম (১৮)।

এ ঘটনায় দায়ের করা মামলায় সোমবার (২ ডিসেম্বর) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আতিকুল ইসলামের আদালতে জবানবন্দি দেন আসামি।

স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করার আবেদনে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শাহবাগ থানার এসআই মহসীন সরদার উল্লেখ করেন, ধূমপানের কথা বলে দেওয়ায় ক্ষুব্ধ হয়ে ক্রিকেট ব্যাট দিয়ে পিটিয়ে আমির হোসেনকে হত্যা করে আসামি। আদালত ইব্রাহিমের জবানবিন্দ রেকর্ড শেষে তাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন।

এদিন মামলাটিতে কামাল হোসেন নামে একজন সাক্ষী হিসেবে হাবিবুর রহমান চৌধুরীর আদালতে জবানবন্দি দেন।

এদিকে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করার আবেদনে তদন্ত কর্মকর্তা উল্লেখ করেন, আমির হোসেন ঢামেক হাসপাতালের রেডিও থেরাপি বিভাগের এমএলএমএম পদের একজন কর্মচারী। তিনি ১ ডিসেম্বর সকাল ৬টা ১৫ মিনিটের দিকে ঢামেকের বহিঃবিভাগ মেইন গেইটের ভিতর দক্ষিণ পাশে অবস্থানকালে আসামি তাকে বলে, ‘তুই আমার সিগারেট খাওয়ার বিষয়টি আমার মাকে কেন বলেছিস?’

এই বলে আসামি আমির হোসেনকে এলোপাথাড়ি মারপিট শুরু করে। একপর্যায়ে আসামি রাগের বশবর্তী হয়ে দৌড়ে গিয়ে নিজ বাসা থেকে একটি ক্রিকেট ব্যাট নিয়ে আসে। সাড়ে ৬টার দিকে সেই ব‌্যাট দিয়ে আমির হোসেনের মাথার পিছন দিকে আঘাত করে। এতে তিনি গুরুতর জখম হয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে পড়ে যান। উপস্থিত লোকজন আমির হোসেনকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে ঘটনা ঘটিয়ে পালানোর সময় ঢামেক হাসপাতালের কর্তব্যরত আনসার সদস্য এবং কর্মচারীরা ইব্রাহিমকে আটক করেন।

আমির হোসেনকে পিটিয়ে হত্যা করার ঘটনায় তার ভাই নূর হোসেন মামলাটি দায়ের করেন।


পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএম

ঢামেক,আদালত
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত