• মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
  • ||

হলি আর্টিজান হামলা

গুলি করে হত্যার পর গলা কাটা হয়, তদন্ত কর্মকর্তার সাক্ষ্য

প্রকাশ:  ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ১৯:২৭ | আপডেট : ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ১৯:৪০
আদালত প্রতিবেদক
হলি আর্টিজানে অভিযান। ফাইল ছবি

গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারীতে হামলার ঘটনায় তদন্ত কর্মকর্তার সাক্ষ্যগ্রহণ করেছেন ঢাকার সন্ত্রাস বিরোধী বিশেষ ট্রাইবুনাল।

বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) দুপুরে আদালতে হত্যা ও বিস্ফোরক আইনে পৃথক দুই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা হুমায়ুন কবীরের সাক্ষ্যগ্রহণ করেন বিচারক মো. মজিবর রহমান।

সকালে হলি আর্টিজান বেকারীতে জঙ্গি হামলার ঘটনায় দায়ের করা ২ মামলায় গ্রেফতারকৃত ৮ আসামির সবাইকে আদালতে হাজির করে পুলিশ। পরে তাদের উপস্থিতিতেই ১১৩তম সাক্ষী হিসেবে আদালতে সাক্ষ্য দেন তদন্ত কর্মকর্তা হুমায়ুন কবীর।

প্রায় ২ ঘন্টার সাক্ষ্যে তিনি জানান, এক মাস ধরে বসুন্ধরা এলাকার একটি বাড়িতে পরিকল্পনা করা হয় হলি আর্টিজানে হামলার। হত্যাকাণ্ডকে সর্বোচ্চ বিভৎস রূপ দিতেই দেশি বিদেশি এতগুলো মানুষকে গুলি করে হত্যার পর তাদের গলা কাটা হয়।

এছাড়া ঘটনার আগে ও পরে বিভিন্ন ধরণের অ্যাপ-টেলিগ্রাম, হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে অপরাধীরা যোগাযোগ রাখে বলেও আদালতে সাক্ষ্য দেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা।

হত্যাকাণ্ডের পর হলি আটিজান বেকারীর ভেতরের চিত্র একাত্তরের মতো বিভৎস ছিলো বলেও জানান তিনি। মামলার পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য আগামী ২১ অক্টোবর দিন ধার্য করা হয়।


পূর্বপশ্চিমবিডি/কেএম

হলি আর্টিজান হামলা,সাক্ষ্য
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত