• শনিবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২০, ৫ মাঘ ১৪২৭
  • ||

ডাকসু

ভিপি নুরের ওপর ছাত্রলীগের হামলা

প্রকাশ:  ১২ মার্চ ২০১৯, ১৫:০০
নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) নবনির্বাচিত সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুরের ওপর হামলা চালিয়েছে ছাত্রলীগ।

মঙ্গলবার (১২ মার্চ) দুপুরে এ হামলা হয় বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন।

জানা যায়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচন বাতিল করে পুনঃতফসিল ও বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে টিএসসিতে বিক্ষোভ করছিল বামপন্থী ছাত্র সংগঠনগুলোর নেতাকর্মীরা। দুপুরে সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে সেখানে যোগ দেন নবনির্বাচিত ভিপি নুরুল হক নুর। এ সময় ছাত্রলীগের ৫০/৬০ জন নেতাকর্মী লাঠিসোটা নিয়ে তার ওপর হামলা করে।

এসময় নুরুল হক নুরের সঙ্গে থাকা ডাকসুর নবনির্বাচিত সমাজসেবা সম্পাদক আকতার হোসেনের মাথা ফেটে যায়।

ধাওয়ার বিষয়ে ছাত্র ফেডারেশন সমর্থিত স্বতন্ত্র জোটের জিএস প্রার্থী উম্মে হাবিবা বেনজির বলেন, আমরা মিছিল শেষে জড়ো হয়েছিলাম। তখন নুর সেখানে এসেছিলেন মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলার জন্য। ঠিক তখন ছাত্রলীগের কর্মীরা তার উপর অতর্কিত হামলা চালায়।

উল্লেখ্য, দীর্ঘ ২৮ বছর পর গত ১১ মার্চ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ডাকসু নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এদিন দুপুরে ছাত্রলীগ ছাড়া বামজোটসহ অন্যান্য ছাত্র সংগঠন নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিয়ে মঙ্গলবার ধর্মঘট এবং ক্লাস বর্জনের ডাক দেয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনে সহসভাপতি (ভিপি) পদে বিজয়ী হয়েছেন কোটা আন্দোলনের নেতা নুরুল হক নুর। তিনি ১১ হাজার ৬২ ভোট পেয়েছেন। সাধারণ সম্পাদক (জিএস) পদে বিজয়ী হয়েছেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। তিনি পেয়েছেন ১০ হাজার ৪৮৪ ভোট। সোমবার দিবাগত রাতে এ ফল ঘোষণা করেন ভিসি ড. মো. আখতারুজ্জামান।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচনের ভোট সোমবার সকাল ৮টায় শুরু হয়ে শেষ হয় দুপুর ২টায়।

নির্বাচনে চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা অনুসারে ডাকসুর ২৫টি পদের বিপরীতে ২২৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এর মধ্যে সহসভাপতি (ভিপি) পদে ২১ জন, সাধারণ সম্পাদক (জিএস) পদে ১৪ এবং সহসাধারণ সম্পাদক (এজিএস) পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন ১৩ জন। এছাড়া স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক পদে ১১ জন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক পদে ৯ জন, কমনরুম ও ক্যাফেটেরিয়া সম্পাদক পদে ৯ জন, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক পদে ১১ জন, সাহিত্য সম্পাদক পদে ৮ জন, সংস্কৃতি সম্পাদক পদে ১২ জন, ক্রীড়া সম্পাদক পদে ১১ জন, ছাত্র পরিবহন সম্পাদক পদে ১০ জন ও সমাজসেবা সম্পাদক পদে ১৪ জন। এর বাইরে ১৩টি সদস্য পদের বিপরীতে ৮৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

পিবিডি/এসএম

ডাকসু,নুরুল হক নুর
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত