Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬
  • ||

ছাত্রলীগকে কোটি টাকা চাঁদা দেওয়ার অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করলেন জাবি ভিসি

প্রকাশ:  ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৬:২১
জাবি প্রতিনিধি
প্রিন্ট icon

ছাত্রলীগকে ১ কোটি টাকা দেওয়ার যে অভিযোগ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের বিরুদ্ধে উঠেছে তা সত্য নয় বলে জানিয়েছেন বিশ্বদ্যালয়টির উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম।

তিনি বলেছেন, শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ন সম্পাদক সাদ্দাম হোসাইন যে তথ্য দিয়েছেন তা সত্য নয়। সে মিথ্যা বলেছে। সাদ্দাম এই বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়ানো বন্ধ না করলে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুশিয়ারি দেন জাবি উপাচার্য।

গতকাল সোমবার কয়েকটি টেলিভিশন চ্যানেল ও অনলাইন, প্রিন্ট মিডিয়ায় জাবি ছাত্রলীগের যুগ্ম সম্পাদক বলেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগকে ঈদ সালামি বাবদ ১ কোটি টাকা দিয়েছেন। এর মধ্যে জাবি ছাত্রলীগের সভাপতি জুয়েল রানা নিয়েছেন ৫০ লাখ টাকা, সাধারণ সম্পাদক এস এম আবু সুফিয়ান চঞ্চল নিয়েছেন ২৫ লাখ টাকা আর তিনি (সাদ্দাম) নিয়েছেন ২৫ লাখ টাকা।

সাদ্দামের দেওয়া এই বক্তব্যের প্রতি উত্তরে অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম এসব কথা বলেন।

এর আগে চাঁদাবাজির অভিযোগে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সদ্য সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী অভিযোগ করেন, জাবির উন্নয়ন প্রকল্পে বাধা হয়ে না দাঁড়ানোর জন্য বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগকে ভিসি ফারজানা ইসলাম ১ কোটি ৬০ লাখ টাকা দিয়েছেন। অন্যদিকে উপাচার্য অভিযোগ করেন, তিনি কোনো টাকা দেননি। বরং রাব্বানী ও ছাত্রলীগের বরখাস্ত হওয়া সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন তার কাছে কয়েক দফায় উন্নয়ন প্রকল্পের বাজেট থেকে ৪ থেকে ৬ শতাংশ টাকা ঈদ সালামি দাবি করেন।

এ বিষয়ে জাবি শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন গণমাধ্যমকে বলেন, উপাচার্য ম্যাম আমাদেরকে এক কোটি টাকা দিয়েছেন ঈদ সালামি বাবদ। সভাপতি জুয়েল ভাই ৫০ লাখ, সাধারণ সম্পাদক চঞ্চল ভাই ২৫ লাখ, আর আমি নিছি ২৫ লাখ। কে কয় টাকা নেব এটাও ভিসি ম্যাডাম ঠিক করে দিছেন।

ঈদ সালামি হিসেবে ছাত্রলীগ এক কোটি টাকা কেনো নেবে এমন প্রশ্নের জবাবে সাদ্দাম বলেন, ‘ভাই, আমাকে দিছে। ঈদ সালামি বলে আমি নিছি। আমার পোলাপান আছে। রাজনীতি করি টাকার দরকার আছে। কেউ যদি ঈদ সালামি দেয় আপনি নেবেন না? ভিসি কোথা থেকে এত টাকা সালামি দিয়েছেন এমন প্রশ্নে সাদ্দাম বলেন, কোথায় থেকে এই টাকা ম্যাম আমাদের দিয়েছেন, তা আমরা জানি না। এক কোটি টাকা ঈদ সালামি পেয়ে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের মধ্যে ভাগ করে দিয়েছি আমরা।

এ বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনিকে জানানো হয়েছে দাবি করে ফারজানা ইসলাম বলেন, আমি এ ব্যাপারে শিক্ষামন্ত্রীকে জানিয়েছি। তাকে (শিক্ষামন্ত্রী) বলেছি আপনারা চাইলে তদন্ত করেন। কিন্তু ওনি বলেছেন, এসব মিথ্যা। ভুয়া বিষয়ে আমরা তদন্ত করতে চাই না। যেগুলোর কোনো দালিলিক অভিযোগ নাই, সেখানে কেন তদন্ত করব শুধু শুধু। ওনারা চাইলে তদন্ত করতে পারেন-যোগ করেন ভিসি।

পূর্বপশ্চিমবিডি/পিএস

জাবি,ছাত্রলীগ,জাবি ভিসি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত