• শুক্রবার, ২২ নভেম্বর ২০১৯, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
  • ||

ধানের ন্যায্য দামের দাবিতে আন্দোলন করায় শিক্ষার্থীদের নোটিশ!

প্রকাশ:  ০১ জুন ২০১৯, ১৬:০৯
বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি

গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) ১৪ জন শিক্ষার্থীকে আন্দোলনে অংশগ্রহণের জন্য কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। তবে কোন আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে এ নোটিশ প্রদান করা হয়েছে তা উল্লেখ করা হয়নি।

জানা গেছে, কয়েকদিন আগে কৃষকের ধানের ন্যায্য দাম নিশ্চিতের দাবিতে অন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের মত বশেমুরবিপ্রবির শিক্ষার্থীরাও মানববন্ধন করে।

গত বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. মোঃ নূরউদ্দিন আহমেদ স্বাক্ষরিত নোটিশে বলা হয়- অত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার পরিবেশ বিনষ্ট করার অভিপ্রায়ে প্রশাসন অনুমতি ছাড়া সরকার ও প্রশাসন বিরোধী প্ল্যাকার্ড, ফেস্টুন বহন ও উস্কানিমূলক বক্তব্য প্রদান করা এবং অতুৎসাহী হয়ে অন্য কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো আন্দোলন করার আগেই আন্দোলনের সাথে আপনাদের সংশ্লিষ্টতা পাওয়া গেছে যা বিশ্ববিদ্যালয় শৃঙ্খলা পরিপন্থী একটি গর্হিত কাজ।

নোটিশ পাওয়া শিক্ষার্থীরা হলেন, সমাজবিজ্ঞান বিভাগের দিগন্ত লস্কর, নিউটন মজুমদার, মেহেদী হাসান; আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের নাজমুল হুদা, রথীন্দ্র নাথ বাপ্পী, শিবলী সাদিক, সিরাজুল ইসলাম; ব্যবস্থাপনা শিক্ষা বিভাগের ইসমাইল হোসেন, সিকদার মাহবুব; লোকপ্রশাসন বিভাগের মিথুন হোসাইন, সৌরভ সমাদ্দার; ইংরেজি বিভাগের বুলবুল আহমেদ; আইন বিভাগের আবদুল্লাহ কাফি; পরিসংখ্যান বিভাগের রিসালাত আহমেদ।

নোটিশে পত্র জারির তারিখ থেকে ৭ কার্য দিবসের মধ্যে লিখিতভাবে তাদের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

নোটিশপ্রাপ্ত শিক্ষার্থী রথীন্দ্র নাথ বাপ্পী জানান, ‘আমরা কিছুদিন আগে ধানের ন্যায্য মূল্যের দাবিতে মানববন্ধন করি। প্রশাসন সম্ভবত ওই মানববন্ধনকে কেন্দ্র করে এ নোটিশ দিয়েছে। তবে উক্ত মানববন্ধনে আমরা সরকার ও প্রশাসন বিরোধী কোন ধরনের বক্তব্য, প্ল্যাকার্ড এবং ফেস্টুন ব্যবহার করি নি। শুধুমাত্র কৃষকের অধিকারের কথা বলেছি এবং সরকারের নিকট ধানের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিতের দাবি জানিয়েছি।’

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারের সাথে যোগাযোগ করা হলে কোন আন্দোলনের জন্য এ নোটিশ দেয়া হয়েছে তা তিনি জানেন না, তিনি শৃঙ্খলা বোর্ডের নির্দেশ অনুযায়ী নোটিশ দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন।

শৃঙ্খলা কমিটির সদস্য এবং প্রক্টর মোহাম্মদ আশিকুজ্জামান ভূইয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনিও কোন আন্দোলনের জন্য নোটিশ দেয়া হয়েছে তা জানেন না বলে জানান। তিনি এ বিষয়ে রেজিস্ট্রারের সাথে কথা বলতে বলেন।


পিপিবিডি/এসএম

বশেমুরবিপ্রবি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত