• সোমবার, ৩০ জানুয়ারি ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯
  • ||

বিক্ষোভের মুখে চীনে করোনাবিধি শিথিল

প্রকাশ:  ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ২১:৫৩
নিজস্ব প্রতিবেদক

দেশজুড়ে তীব্র বিক্ষোভের পর বিতর্কিত 'জিরো কোভিড' নীতি শিথিল করছে চীনের ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট সরকার। ইতিমধ্যে দেশটির প্রায় সব শহর থেকে লকডাউন তুলে নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে এইচটিডিএস।

সম্পর্কিত খবর

    চীনের উপপ্রধানমন্ত্রী সান চুন লান জানান, 'দেশে করোনা সংক্রমণের ভয়াবহতাও অনেকটা কমে এসেছে, সেই সঙ্গে বেড়েছে টিকাদান কর্মসূচির গতিও। শুরু থেকেই অন্যদের চেয়ে অনেক পরিকল্পিতভাবে আমরা মহামারি মোকাবিলার পরিকল্পনা নিয়েছিলাম এবং সে স্থানে পৌঁছেছি।'

    গত কয়েক দিন ধরে গুয়াংজুসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় লকডাউনবিরোধী বিক্ষোভ হচ্ছে। বিক্ষোভ দমাতে মাঠে রয়েছে সাদা পোশাকধারী পুলিশ। আন্দোলনকারীদের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটেছে।

    এমন পরিস্থিতিতে রাজধানী বেইজিং, বৃহত্তম শহর ও বাণিজ্যিক কেন্দ্র সাংহাই, দক্ষিণাঞ্চলীয় বাণিজ্যকেন্দ্র গুয়াংজু, চংকিং, ঝেংঝৌসহ চীনের সব এলাকায় লকডাউন তুলে নেওয়া হয়েছে। গণহারে পিসিআর টেস্টও বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে শহরটিতে।

    এ ছাড়া আগে কোনো একটি আবাসিক ভবনে একজন করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হলে পুরো ভবন লকডাউন করা হতো। তবে তিনিই আইসোলেশনে থাকবেন।

    কোভিড-১৯ সংক্রমণের বিস্তার রোধে কয়েক মাস ধরে চীন সরকার দেশজুড়ে ‘শূন্য কোভিড নীতি’ বাস্তবায়ন করছে। দীর্ঘদিন ধরে কঠোর লকডাউন চলার কারণে জনমনে অসন্তোষ দেখা দেয়। ফলে সম্প্রতি নানা এলাকায় লোকজনকে সড়কে নেমে লকডাউনবিরোধী বিক্ষোভ করতে দেখা যাচ্ছে।

    গত শনিবার থেকে ‍বিক্ষোভ ক্রমেই জোরদার হয়েছে। অনেকেই ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টির নেতাদের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে ক্ষোভ প্রকাশ করছেন।

    চীনের উরুমছিতে সম্প্রতি একটি ভবনে আগুন লেগে ১০ জন নিহতের ঘটনা বিক্ষোভের আগুনে ঘি ঢেলেছে। মানুষজন ভবনে আটকা পড়ার জন্য কোভিড বিধিনিষেধকে দায়ী করা হচ্ছে। যদিও এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে চীনা কর্তৃপক্ষ।

    বিশ্লেষকেরা বলছেন, ‘শূন্য কোভিড নীতি’ নিয়ে মানুষের অসন্তোষকে বরাবরই আমলে নেয়নি চীন সরকার। শূন্য কোভিড নীতি নিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। সম্প্রতি তিনি এ নীতি থেকে সরে না দাঁড়ানোর অঙ্গীকারও করেছিলেন।

    মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
    • সর্বশেষ
    • সর্বাধিক পঠিত
    close