• বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
  • ||

‘ভারত জোড়ো যাত্রা’য় সোনিয়া, মায়ের জুতার ফিতা বেঁধে দিলেন রাহুল

প্রকাশ:  ০৬ অক্টোবর ২০২২, ১৮:৫৭ | আপডেট : ০৬ অক্টোবর ২০২২, ১৮:৫৯
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

‘ভারত জোড়ো যাত্রা’য় পুত্র রাহুলের সঙ্গে হাঁটলেন কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী। বৃহস্পতিবার (৬ অক্টোবর) সকালে দক্ষিণ ভারতের কর্ণাটক রাজ্যের মান্ডিয়া জেলায় কিছুটা পথ হাঁটেন তিনি।

এদিকে পদযাত্রায় অংশ নিতে যাওয়ার সময় হঠাৎই সোনিয়া গান্ধীর পায়ের জুতার ফিতা আলগা হয়ে যায়। হাঁটতে গিয়ে থমকে গিয়েছিলেন সোনিয়া। বিষয়টি নজরে আসতেই রাহুল নিচু হয়ে বেঁধে দেন ফিতা। এই ছবি প্রকাশ্যে আসার পর নেটিজেনরা রাহুলের প্রশংসা করছেন।

দুর্গাপূজা ও বিজয়া দশমীর জন্য মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর) ও বুধবার (৫ অক্টোবর) যাত্রার বিরতি ছিলো। আগামী বছর মার্চ–এপ্রিলে কর্ণাটক বিধানসভার ভোট। কর্ণাটকে এই যাত্রা চলবে সবচেয়ে বেশি। ২১ দিন।

রাহুলের যাত্রাসঙ্গী হওয়ার আগে বুধবার সোনিয়া স্থানীয় ভিমানাকোল্লি মন্দিরে পূজা দেন ও বিজয়া দশমী উপলক্ষে প্রার্থনা করেন।

গত ৭ সেপ্টেম্বর তামিলনাড়ুর কন্যাকুমারী থেকে কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী ভারত জোড়ো যাত্রা শুরু করেন। সাড়ে ৫ মাস ধরে ১২ রাজ্যের ৩ হাজার ৫৭০ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে এই যাত্রা শেষ হবে কাশ্মীরে। বিজেপির ‘ভাগাভাগির রাজনীতির’ বিরুদ্ধে কংগ্রেসের এই যাত্রার লক্ষ্য ‘দেশকে ঐক্যবদ্ধ’ রাখা। রাহুল তাঁর যাত্রাপথের সর্বত্র সেই কথা বলে যাচ্ছেন। ২ অক্টোবর মহাত্মা গান্ধীর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে মাইশুরুতে এক জনসভায়ও তিনি ওই কথা জানিয়ে বলেন, বিজেপি দেশকে বিভিন্ন ভাগে বিভক্ত করে চলেছে। কংগ্রেসের উদ্দেশ্য তা রুখে দেশকে ঐক্যবদ্ধ রাখা ও বিজেপির বিভাজনের রাজনীতির বিপদ মানুষকে বোঝানো। নিরলসভাবে কংগ্রেস এই লড়াই চালিয়ে যাবে।

কর্ণাটকের বেলারি কেন্দ্র থেকেই সোনিয়া গান্ধী ১৯৯৯ সালে তার প্রথম লোকসভা ভোটে দাঁড়িয়েছিলেন। সেবার তিনি হারিয়েছিলেন বিজেপির নেত্রী সুষমা স্বরাজকে। সেই বেলারিতেই সোনিয়া এক জনসভায় ভাষণ দেবেন। সেখান থেকেই শুরু হবে এই রাজ্যে কংগ্রেসের নির্বাচনী প্রচারাভিযান।

পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএম

কংগ্রেস,সভানেত্রী,সোনিয়া গান্ধী,রাহুল,ভারত
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close