• সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯
  • ||

বিক্ষোভ চলছে ইরানে, নিহত ৩১

প্রকাশ:  ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২:৪৪
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

হিজাব না পরার কারণে ‘পুলিশের পিটুনি’-তে তরুণী মাহসা আমিনির মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে ইরানে অব্যাহত বিক্ষোভে এখন পর্যন্ত ৩১ জন নিহত হয়েছেন।

ওসলোভিত্তিক একটি অলাভজনক বেসরকারি সংস্থা বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) নিহতের এই সংখ্যা জানিয়েছে। খবর বার্তা সংস্থা এএফপির।

এদিকে স্থানীয় মানবাধিকার সংস্থার দাবি অনুযায়ী, বিক্ষোভে কেবল পশ্চিমাঞ্চলেই ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে, যাদের মধ্যে সাতজনকে নিরাপত্তা বাহিনী হত্যা করেছে। বিক্ষোভ ঠেকাতে মরিয়া হয়ে উঠেছে সে দেশের সরকার। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ইন্টারনেট সেবা। বিচার বিভাগকে আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে। সরকারপন্থিদের পক্ষ থেকে আজ শুক্রবার একটি মিছিলেরও পরিকল্পনা করা হয়েছে।

কঠোর পোশাকবিধির আওতায় আটক হওয়ার পর গত শুক্রবার মাহসা আমিনি নামের ২২ বছর বয়সি ওই তরুণীর মৃত্যু ঘটে।

রেডিও ফ্রি ইউরোপ প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাতে জানিয়েছে, হেফাজতে নেওয়ার পর আমিনিকে পিটিয়েছে পুলিশ।

এদিকে এএফপি জানিয়েছে, একজন ইরানি আইনজীবী আমিনির মৃত্যুকে হত্যাকাণ্ড আখ্যা দিয়েছেন। হেফাজতে মৃত্যুর ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন মানবাধিকারকর্মীরা। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবারও বিক্ষোভ অব্যাহত ছিল। এদিন পুলিশ স্টেশনে আগুন দেওয়ার পাশাপাশি বিভিন্ন যানবাহনেও আগুন দিয়েছে বিক্ষুব্ধরা।

শুরুতে ইরানের কুর্দি-জনবহুল উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে এ বিক্ষোভ কেন্দ্রীভূত ছিল। পরে এটি খুব দ্রুত দেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়ে। বিবিসি ও রয়টার্সের প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, ইরানের অন্তত ৫০টি শহরে এখনও বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে। এর আগে ২০১৯ সালে জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে ব্যাপক বিক্ষোভ হয়েছিল ইরানে।

রয়টার্সের তথ্য মতে, এরপর এত বড় বিক্ষোভ আর হয়নি দেশটিতে। চলমান বিক্ষোভ ২০১৯ সালের বিক্ষোভের তুলনায় আরও ব্যাপক।

ইরানের সরকারি কর্মকর্তারা এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তাদের দাবি নিরাপত্তা বাহিনী বিক্ষোভকারীদের হত্যা করেনি। তারা বলছেন, বিক্ষোভকারীরা সশস্ত্র ভিন্নমতাবলম্বীদের গুলিতে মারা যেতে পারেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কর্তৃপক্ষ আরও কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছে। এর অংশ হিসেবে ইরানের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম নিয়ন্ত্রিত করা হয়েছে। ইন্টারনেট সেবাও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। সেখানকার সেনাবাহিনী বিচার বিভাগকে গুজব ও মিথ্যা তথ্য ছড়ানো ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে।

বিক্ষোভ,ইরান,নিহত
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close